মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণে ৩ হাজার কোটি টাকা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

প্রকাশিত : ৩০ ডিসেম্বর ২০১৪

হামিদ-উজ-জামান মামুন ॥ উপকূলীয় অঞ্চলে ৫৫৬ নতুন সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণে বড় ধরনের সহায়তা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। বহুমুখী দুর্যোগ আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা সহজশর্তে ঋণ দিচ্ছে সংস্থাটি। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকার ব্যয় করবে ১০ কোটি টাকা। আজ মঙ্গলবার প্রকল্পটি অনুমোদনের জন্য জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে উপস্থাপন করা হচ্ছে। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠেয় বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপার্সন শেখ হাসিনা। অনুমোদন পেলে ২০২১ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে এটি বাস্তবায়নের কাজ শেষ করবে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি)।

এ বিষয়ে প্রকল্পটির দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিকল্পনা কমিশনের কৃষি,পানিসম্পদ ও পল্লী প্রতিষ্ঠান বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সদস্য মোহাম্মদ সফিকুল আজম পরিকল্পনা কমিশনের মতামত দিতে গিয়ে বলেছেন, উপকূলীয় ৯ জেলার ৭৪ উপজেলায় এ আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ করা হলে বন্যা, সাইক্লোন ও অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগে মানুষের জীবন, সম্পদ, আশ্রয়স্থল, গবাদিপশু এবং অবকাঠামোর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি থেকে সুরক্ষা সম্ভব হবে। তাই প্রকল্পটি অনুমোদনযোগ্য।

অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) সূত্র জানায়, প্রকল্পটি বাস্তবায়নে গত ১১ নবেম্বর বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে সরকারের ঋণ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। তাছাড়া এটি বাস্তবায়নে এর আগে এলজিইডির বাস্তবায়নাধীন এবং বিশ্বব্যাংকের সাহায্যপুষ্ট ইমার্জেন্সি ২০০৭ সাইক্লোন রিকভারি এ্যান্ড রেস্টোরেশন প্রজেক্টের মাধ্যমে ডিজাস্টার শেল্টার সিস্টেম ফেজ-১ শীর্ষক একটি সম্ভাব্যতা সমীক্ষা পরিচালিত হয়েছে। এর আলোকেই প্রস্তাবিত প্রকল্পটি বাস্তবায়িত করা হবে। স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ভৌগোলিক অবস্থানগত দিক থেকে দেশের উপকূলীয় এলাকা দুর্যোগপ্রবণ হিসেবে চিহ্নিত। নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে উপকূলীয় জেলার প্রায় ৮ হাজার ৯০০ বর্গকিলোমিটার এলাকার জনগণ অত্যন্ত ঝুঁকির মধ্যে জীবন যাপন করছে।

প্রকাশিত : ৩০ ডিসেম্বর ২০১৪

৩০/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: