মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নববর্ষের উদ্দীপনা

প্রকাশিত : ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪
নববর্ষের উদ্দীপনা
  • শামীমা আকতার রীমা

দরজায় কড়া নাড়ছে নতুন বছর। নববর্ষকে স্বাগত জানাতে গেলে পার্টির আয়োজন করতে হয়। পার্টিতে কী রকম পোশাক পারবেন বা কী রকম খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা করবেন এটা একটা চিন্তার বিষয়। এজন্য চাই সঠিক সিদ্ধান্ত। প্রথমে আশা যাক পোশাকের ব্যাপারে।

পার্টির দিনে সবার মাঝে নজর কাড়তে হলে বিশেষ যতেœর প্রয়োজন। সারা বছর একঘেয়েমি জিনস, টি-শার্ট থেকে বেরিয়ে একটু অন্যরকম সাজিয়ে চলুন। বেছে নিতে পারেন থিম অনুযায়ী পোশাক। একটু এক্সপেরিমেন্টাল সাজে চমকে দিন সবাইকে। ওয়েস্টার্ন পোশাকের ফিউশন ট্রাই করে দেখতে পারেন। পার্টির দিনে একটু সাহসী হতে ক্ষতি কী। ব্যাকলেস কালো ড্রেস এ ক্ষেত্রে একেবারে পারফেক্ট। হেমলাইনে সিক্যুইনের কাজ মানাবে ভাল। স্টাইলিশ স্টোলের সঙ্গে টিম আপ করতে পারেন। গলায় একটা সুন্দর নেকলেস আর আপনার সাজ কমপ্লিট। মেটালিক শেডের গাউন পরতে পারেন। সঙ্গে আপনার স্টিলেটো। কাজে সুন্দর দুল আপনাকে আরও সুন্দর করে তুলবে। যদি সাজটা ট্র্যাডিশনাল রাখতে চান, তা হলে শাড়ি পরুন। তবে অতিরিক্ত জমকালো শাড়ি না পরে সফিস্টিকেটেড লুক ট্রাই করুন। শিফন বা ভাল সিল্ক শাড়ি পরতে পারেন। শাড়ির সঙ্গে জুয়েলারি অবশ্যই দরকার, সোনার গয়না না পরে ডায়মন্ড বা পার্ল বা কুন্দনের সেট পরতে পারেন। একটু ভিন্নতা আসবে, সব সময় যে রকম ব্লাউজ পরেন তা না পরে হল্টারনেক, ব্যাকলেস বা অন্য ধরনের ব্লাউজ ট্রাই করুন। নতুন ধরনের হেয়ারস্টাইল ট্রাই করুন। মেক-আপের ওপর বিশেষ নজর দিন। চোখ এবং চিকবোন হাইলাইট করুন। খুব বেশি গাঢ় শেডের লিপস্টিক পরবেন না। গোলাপি, ব্রাউন, পিচ শেড বেছে নিন অথবা গ্লস লাগাতে পারেন। জুতা আর ব্যাগের দিকে খেয়াল রাখবেন। হ্যান্ডব্যাগের জায়গায় স্মার্ট ক্লাচ ব্যাগ নিতে পারেন। জুতা, ব্যাগ দুটোই ট্রেন্ডি হওয়া দরকার। তবে তা এক রঙের হতে হবে তার কোন মানে নেই। যে কোন পার্টির আমেজ আনতেই ইনোভেটিভ ডেকোরেশন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। পার্টি সাজাতে ভাল করে ফুল লাগান। অর্কিড জাতীয় ফুল আপনার পার্টিতে বাড়তি সৌন্দর্য যোগ করবে। খাওয়ার টেবিলেও ফুল রাখতে পারেন। এতে অতিথিরা উষ্ণতার ছোঁয়া পাবেন। পার্টির থিম অনুযায়ী ডেকোরেশন করুন, যাতে লোকে পার্টিতে এসেই থিমের আভাস পেয়ে যান। চাইলে কস্টিউম পার্টির ব্যবস্থা করতে পারেন। এতে আপনার পার্টি একটু আলাদা হয়ে উঠবে। পার্টিতে বাচ্চারা আমন্ত্রিত হলে ফ্যান্সি রিবন, স্ট্রিমার ‘হ্যাপি নিউইয়ার’ লেখা বেলুন, রঙিন স্নোফ্রেকশ, বিভিন্ন ধরনের মোমবাতি দিয়ে সাজাতে পারেন। আলোর দিকে বিশেষ নজর দিন। পুরো এরিয়াকে আলোকিত করলে পার্টির ড্রামা নষ্ট হয়ে যেতে পারে। আলো-আঁধারী রোমান্টিক পরিবেশ তৈরি করুন।

পার্টিতে ভাল খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা তো করতেই হবে। পার্টির যদি কোন বিশেষ থিম ঠিক করে থাকেন তা হলে সেই অনুযায়ী খাবারের আয়োজন করুন। তবে ঘরোয়া খাবার না করে এক্সক্লুসিভ রেসিপি ট্রাই করুন। ককটেল ছাড়া যে কোন পার্টি একেবারেই বেমানান। টেম্পরারি বার কাউন্টার তৈরি করতে পারেন। তবে হার্ড ড্রিংকের পাশাপাশি মকটেল এবং সফট ড্রিংকের ব্যবস্থা রাখুন। শ্যাম্পেন কিন্তু মাস্ট। এক্সপার্ট বারটেনডার রাখুন যাতে অতিথিদের কোন রকম অসুবিধা না হয়। পার্টি মানেই যে রিচ খাবার করতে হবে তার কোন মানে নেই। এমনভাবে খাবার পরিবেশন করুন যাতে তা আকর্ষণীয় হয়ে উঠতে পারে। পার্টিতে বুফের ব্যবস্থা করাই ভাল এতে সবাই নিজের পছন্দমতো এবং পরিমাণ মতো খাবার বেছে নিন। বেশি ভারি বা অত্যধিক পরিমাণে স্ন্যাকস রাখবেন না। না হলে ডিনারের মজা নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ডেজার্ট ছাড়া নিউইয়ার পার্টি এক কথায় অসম্পূর্ণ। সম্ভব হলে ২ থেকে ৩ রকমের ডেজার্টের আয়োজন করুন এবং সেগুলোকে বিশেষভাবে সাজান।

অন্যান্য : পার্টির জন্য ইনভিটেশন কার্ড তৈরি করতে ভুলবেন না। নিজের হাতে কার্ড তৈরি করতে পারেন, এতে অতিথিরা নিজেদের স্পেশাল মনে করবেন। কার্ডে ডিরেকশন এবং টাইমিং স্পষ্টভাবে উল্লেখ করবেন। পার্টিতে মিউজিক্যাল নেয়ার, ট্রুথ এ্যান্ড ডেয়ার, পাসিং দা পিলো ইত্যাদির মতো মজার কিছু খেলার আয়োজন করতে পারেন। তা হলে কোন অতিথি বোরড ফিল করবেন না। পার্টিতে মিউজিকের বিশেষ অবদান থাকে। তবে একই ধরনের মিউজিক যেন সারাক্ষণ না বাজে, সেদিকে খেয়াল রাখুন। টাইম টু টাইম মিউজিক বদলান। কখনও হিপহাপ, কখনও ডিস্কো কখনও বা সফট রোমান্টিক।

মডেল : মুনিয়া, পিয়াস, মাসুদ, সজিব, রানা ও অজান্তা

প্রকাশিত : ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪

২৯/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: