কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

টিপু সুলতানের জন্মবার্ষিকী পালনের সিদ্ধান্তে কংগ্রেস বিজেপি মুখোমুখি

প্রকাশিত : ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪

ভারতের কর্নাটক রাজ্যের মহীশূরের শাসনকর্তা ছিলেন টিপু সুলতান। তিনি একজন বীর যোদ্ধা ছিলেন। ইংরেজদের বিরুদ্ধে তিনি বীরত্ব সহকারে যুদ্ধ করেছিলেন। তার বীরত্বের জন্য তিনি ‘শের-ই-মহীশূর’ বা মহীশূরের বাঘ নামে পরিচিত ছিলেন। খবর ওয়েবসাইটের।

সম্প্রতি তার জন্মবার্ষিকী পালন করা নিয়ে কর্নাটকে বিতর্ক শুরু হয়েছে। রাজ্যে ক্ষমতাসীন কংগ্রেস সরকার টিপু সুলতানের জন্মবার্ষিকী পালন করার সিদ্ধান্ত নিতেই হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি তার তীব্র বিরোধিতা শুরু করেছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া বলেছেন, ‘টিপু সুলতান সবস্তরের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে চলতেন। তিনি মসজিদ উন্নয়নের জন্য যেমন টাকা দিতেন, তেমনই মন্দিরও তৈরি করেছেন। তিনি ইংরেজ শাসকের বিরুদ্ধে শেষমুহূর্ত পর্যন্ত লড়াই করেছেন। তার সম্মানে রাজ্য সরকার টিপু সুলতান জন্মবার্ষিকী পালন করবে।’ সম্প্রতি টিপু সুলতানকে নিয়ে লেখা একটি বইয়ের উদ্বোধন উপলক্ষে তিনি এ ঘোষণা করেন। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণায় হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি জোরালো আপত্তি জানিয়ে বিরোধিতা শুরু করেছে। বিজেপি’র রাজ্য নেতা সুরেশ কুমার বলেছেন, টিপু সুলতান জোর করে ধর্মান্তরিত করেছিলেন। এজন্য আমাদের দল সরকারের এ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছে।’ আসলে টিপু সুলতানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চলে আসছে বহুদিন ধরে। অনেক পণ্ডিত ব্যক্তিও এই অপপ্রচারে শামিল ছিলেন।

যদিও নিরপেক্ষ ঐতিহাসিকরা তার মূল্যায়ন করেছেন সুশাসক এবং সব ধর্মের প্রতি উদার হিসেবে। উড়িষ্যার সাবেক গবর্নর ও বিখ্যাত ইতিহাসবিদ ড. বিএন পাণ্ডে প্রমাণ করেছেন, টিপু সুলতান হিন্দু মন্দিরের জন্য বার্ষিক অনুদান দিতেন। হিন্দু ধর্মগুরু শঙ্করাচার্য’র সঙ্গে ছিল টিপু সুলতানের গভীর সম্পর্ক। জোর করে ধর্মান্তর তো দূরের কথা, তার প্রধানমন্ত্রী এবং সেনাপতিও ছিলেন হিন্দু ব্রাহ্মণ।

প্রকাশিত : ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪

২৯/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: