আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

১৯ দিনে ৮২ কোটি ডলার রেমিটেন্স

প্রকাশিত : ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চলতি ডিসেম্বর মাসের ১৯ দিনে বিভিন্ন ব্যাংকের মাধ্যমে প্রবাসীদের পাঠানো মোট রেমিটেন্স এসেছে ৮২ কোটি ২৭ লাখ ৮০ হাজার মার্কিন ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি বিভাগের প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, ১ থেকে ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, রূপালী, জনতা ও অগ্রণী ব্যাংকের মাধ্যমে আসা রেমিটেন্সের পরিমাণ ২৪ কোটি ৫৫ লাখ ৮০ হাজার ডলার। এছাড়া ৩৯টি বেসরকারী বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে রেমিটেন্স এসেছে ৫৫ কোটি ৭৩ লাখ ৯০ হাজার ডলার। রাষ্ট্রায়ত্ত ৪ ব্যাংকের তুলনায় বেসরকারী ব্যাংকের মাধ্যমে আসা রেমিটেন্সের পরিমাণ দ্বিগুণ বেশি। একই সময়ে বিশেষায়িত এবং বিদেশী ব্যাংকের মাধ্যমে আসা রেমিটেন্সের পরিমাণ যথাক্রমে ১ কোটি ২০ লাখ ৭০ হাজার এবং ৭৭ লাখ ৪০ হাজার ডলার।

বেসরকারী ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ডিসেম্বরে আসা ৫৫ কোটি ৭৩ লাখ ৯০ হাজার ডলারের মধ্যে আল-আরাফাহ ৪৭ লাখ ১০ হাজার, এবি ব্যাংক ১ কোটি ৬০ লাখ ৯০ হাজার, কমার্স ব্যাংক ৪ লাখ ২০, ব্যাংক এশিয়া ২ কোটি ৮০ লাখ, ব্র্যাক ব্যাংক ১ কোটি ৭১ লাখ ৫০ হাজার, ঢাকা ব্যাংক ১ কোটি ৭০ লাখ ৫০ হাজার, ডাচ্-বাংলা ১ কোটি ৮৫ লাখ ২০ হাজার, ইস্টার্ন ব্যাংক ১ কোটি ৪৯ লাখ ৯০ হাজার, এক্সিম ব্যাংক ১১ লাখ ৪০ হাজার, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক ৩২ লাখ ৯০ হাজার, আইএফআইসি ২৯ লাখ, ইসলামী ব্যাংক ১৯ কোটি ৯৭ লাখ ৬০ হাজার, যমুনা ব্যাংক ৭১ লাখ, মার্কেন্টাইল ১ কোটি ২৩ লাখ ১০ হাজার, এমটিবি ৪৫ লাখ ৮০ হাজার, ন্যাশনাল ৪ কোটি ১০ লাখ ৩০ হাজার, এনসিসি ১ কোটি ২৯ লাখ ৮০ হাজার, এনআরবি ৫০ হাজার, ওয়ান ব্যাংক ৬ লাখ ৬০ হাজার, প্রাইম ১ কোটি ৭৬ লাখ ৯০ হাজার, পূবালী ২ কোটি ৬৫ লাখ ৫০ হাজার, শাহজালাল ৪ লাখ ৯০ হাজার, এসআইবিএল ১৯ লাখ ৮০ হাজার, সাউথইস্ট ২ কোটি ৩৬ লাখ ২০ হাজার, স্ট্যান্ডার্ড ৫৮ লাখ ২০ হাজার, দি সিটি ব্যাংক ২ কোটি ৫ লাখ ৩০ হাজার, প্রিমিয়ার ২৯ লাখ ৮০ হাজার, ট্রাস্ট ব্যাংক ৮২ লাখ ২০ হাজার, ইউসিবিএল ৩৯ লাখ ৯০ হাজার, উত্তরা ৩ কোটি ৯০ লাখ ৯০ হাজার ও আইসিবি ইসলামী ১ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার।

এদিকে সরকারী ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে একই সময়ে আসা রেমিটেন্সের পরিমাণ ২৪ কোটি ৫৫ লাখ ৮০ হাজার ডলার। রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মধ্যে অগ্রণী ৯ কোটি ৪০ লাখ ২০ হাজার, জনতা ৬ কোটি ৬০ লাখ ২০ হাজার, সোনালী ৭ কোটি ৪৭ লাখ ৫০ হাজার ও রূপালী ব্যাংকের মাধ্যমে ১ কোটি ৭ লাখ ৯০ হাজার মার্কিন ডলার এসেছে। বিশেষায়িত কৃষি ব্যাংকের মাধ্যমে আসা রেমিটেন্সের পরিমাণ ১ কোটি ২০ লাখ ৭০ হাজার ডলার।

একই সঙ্গে বিদেশী ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৭৭ লাখ ৪০ হাজার ডলার। এ সব ব্যাংকের মধ্যে আল হাবিব ১০ হাজার, কমার্স ব্যাংক অব সিলন ৪ লাখ ৮০ হাজার, সিটি ব্যাংক-এনএ ৯০ হাজার, এইচএসবিসি ২৮ লাখ ৫০ হাজার, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ৪১ লাখ, স্টেট ব্যাংক ইন্ডিয়া ২০ হাজার ও উরি থেকে ১ লাখ ৯০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিটেন্স এসেছে। এদিকে বিদেশী আল-ফারাহ ও ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তানের মাধ্যমে কোন রেমিটেন্স আসেনি।

তথ্যমতে, ডিসেম্বরের প্রথম ১৯ দিনে সরকারী ও বেসরকারী ব্যাংকগুলো থেকে রেমিটেন্স এসেছে ৮২ কোটি ২৭ লাখ ৮০ হাজার ডলার। এদিকে চলতি অর্থবছরে নবেম্বরে রেমিটেন্স এসেছে ১১৬ কোটি ৮৯ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার। অক্টোবরে ১০১ কোটি ৮০ লাখ ৩০ হাজার, সেপ্টেম্বর ১৩৪ কোটি ৪২ লাখ ৭০ হাজার, আগস্ট ১১৭ কোটি ৪৩ লাখ ৭০ হাজার ও জুলাই ১৪৯ কোটি ২৪ লাখ ৭০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিটেন্স এসেছে।

প্রকাশিত : ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪

২৯/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: