কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দেশের ১০ ভাগ মানুষ প্রতিবন্ধিতার শিকার

প্রকাশিত : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের মোট জনসংখ্যার ১০ শতাংশ কোন না কোনভাবে প্রতিবন্ধিতার শিকার। আর প্রাকৃতিক দুর্যোগকালীন ও দুর্যোগ পরবর্তী সময় সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকেন প্রতিবন্ধীরাই। তাই দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমে তাদের অংশগ্রহণ জরুরী। এজন্য দুর্যোগের পূর্বাপর পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রতিবন্ধীদের জন্য কার্যকর প্রস্তুতি বিষয়ে সরকারী-বেসরকারী সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন। তাছাড়া টেকসই দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার স্বার্থে কর্মসংস্থানমুখী ত্রাণ কার্যক্রমের ওপর জোর দিতে হবে। ত্রাণ সহায়তার সঙ্গে চাহিদা অনুযায়ী প্রশিক্ষণ ও কাজের সুযোগ দিলে প্রতিবন্ধীরাও স্বাবলম্বী হতে পারবে। শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ‘প্রতিবন্ধীবান্ধব দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা’ শীর্ষক জাতীয় কর্মশালায় বক্তারা এসব কথা বলেন। ডিজএ্যাবল্ড রিহ্যাবিলিটেশন এ্যান্ড রিসার্চ এ্যাসোসিয়েশন (ডিআরআরএ)-এর আয়োজন করে। কর্মশালায় ঘূর্ণিঝড় ‘সিডর’ ও ‘আয়লা’ দূর্গত সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার প্রতিবন্ধীরা অংশ নেন।

কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ আবদুল ওয়াজেদ বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমে প্রতিবন্ধীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। তাদের অধিকার নিশ্চিত করতে এরই মধ্যে ‘প্রতিবন্ধী সুরক্ষা আইন-২০১২’ প্রণয়ন করা হয়েছে। দুযোর্গপ্রবণ এলাকার ইউনিয়ন কমিটিতে প্রতিবন্ধী সদস্য অন্তর্ভুক্ত করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সাইক্লোন সেন্টারের নকশা করা হয়েছে প্রতিবন্ধীবান্ধব। প্রতিবন্ধীদের জন্য নতুন কোন বিদেশী অনুদানের প্রয়োজন নেই, যা আছে তার সঠিক বাস্তবায়নটাই এখন জরুরী। এ সময় প্রতিবন্ধীদের নেতৃত্ব গুণের বিকাশ ঘটিয়ে বিভিন্ন সামাজিক ইস্যুতে তাদের অংশগ্রহণের সমান সুযোগ নিশ্চিত করতে সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণের কথাও জানান তিনি।

এনজিও সংগঠন সাইটসেভারসের (দৃষ্টিহীনদের নিয়ে কাজ করে) প্রোগ্রাম ম্যানেজার রিফাত শাহপার খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কম্প্রিহেনসিভ ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রামের (সিডিএমপি) জাতীয় প্রকল্প পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল কাইয়ুম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডিআরআরএ’র নির্বাহী পরিচালক ফরিদা ইয়াসমীন। বক্তৃতাপর্ব শেষে কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী প্রতিবন্ধীরা তাঁদের দুর্যোগকালীন ও পরবর্তী সময়ের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন। মুক্ত আলোচনায় তাঁরা বলেন, দৃষ্টি ও শ্রবণ প্রতিবন্ধীদের জন্য প্রচলিত দুর্যোগ সতর্কতা সঙ্কেত কার্যকর নয়। এক্ষেত্রে বিকল্প সতর্কতা ব্যবস্থার কথা ভাবতে হবে। কেবল ত্রাণ নয়, স্বাভাবিক জীবনযাপনের প্রশিক্ষণ ও কাজের সুযোগ দেয়ার দাবিও জানান তারা।

প্রকাশিত : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৪

২৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: