মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

মম-সজলের ‘নিঃশব্দ ভালবাসা’

প্রকাশিত : ২৭ ডিসেম্বর ২০১৪
মম-সজলের ‘নিঃশব্দ ভালবাসা’

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ভালবাসা দিবসে প্রচারের জন্য সম্প্রতি নির্মিত হয়েছে নাটক ‘নিঃশব্দ ভালবাসা’। নাটকটি রচনা করছেন মুশফিক ইভান। পরিচালনা করেছেন শহিদুল ইসলাম রুনু। নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন লাক্স তারকাখ্যাত জনপ্রিয় অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মম, সজল, নওশিন, ঝুনা চৌধুরী, কাজী উজ্জ্বলসহ আরও অনেকে। নাটকের কাহিনীতে দেখা যাবে রোজা একজন সাংবাদিক। কাজের ফাঁকে এক রেস্টুরেন্টে গিয়ে বসে। সেখানে আবিষ্কার করে সুদর্শন বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবক তুর্যকে। জানার আগ্রহ জাগে কে এই তুর্য? জন্ম থেকেই কি সে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী নাকি কোন ঘটনা-দুর্ঘটনার শিকার? খুঁজে পায় তুর্যদের পুরনো কর্মচারী গফুর আহমেদকে। রোজা তুর্য সম্পর্কে জানতে চায় গফুর আহমেদের কাছে। গফুর আহমেদ তুর্যর ফেলে আসা দিনগুলোর কথা বলতে থাকে রোজার কাছে। তুর্য ও সূর্য দু’ভাই। অকাল প্রয়াত বাবার ব্যবসা দু’ভাই দেখাশোনা করে। তুর্য ছিল খুবই স্মার্ট একটি ছেলে। খান গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের এমডি, সূর্য ডিরেক্টর, মা চেয়ারম্যান ও গফুর আহমেদ বাবার পুরনো কর্মচারী যিনি অত্যন্ত বিস্বস্থতার সঙ্গে এ পরিবারকে আগলে রেখেছেন। ম্যাকাডোনা রেস্টুরেন্টটাও তাঁদের। একদিন দুপুরে এই রেস্টুরেন্টে লাঞ্চ করতে আসে তুর্য। এক ঘটনায় এখানেই পরিচয় হয় জারার সঙ্গে। একে অপরকে ভালবেসে ফেলে। এদিকে জারার বান্ধবী বর্ষার সঙ্গে সূর্যর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একদিন রাতে বাড়ি ফেরার পথে গাড়ি এ্যাকসিডেন্টে তুর্য এবং জারা দু’জনেই আহত হয়। তুর্য হয় বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী আর জারার হয় সর্ট টার্ম মেমোরি লস। কোন কিছুই ১২ ঘণ্টার বেশি মনে রাখতে পারে না। এভাবেই নাটকের কাহিনী এগিয়ে যায়।

প্রকাশিত : ২৭ ডিসেম্বর ২০১৪

২৭/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: