আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চাঁদাবাজি ॥ হাত-পা বেঁধে কলেজছাত্রকে নদীতে নিক্ষেপ

প্রকাশিত : ২৭ ডিসেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ চাঁদার জন্য অপহৃত এক ছাত্রকে হাত-পা বেঁধে খুলনার কাজিবাছা নদীতে ফেলে দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এ ঘটনার পর বটিয়াঘাটা থানা পুলিশ অপহৃত আরেক ছাত্রকে উদ্ধার ও অপহরণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ৩ জনকে আটক করেছে।

তবে শুক্রবার রাত পর্যন্ত নদীতে ফেলে দেয়া ওই ছাত্রের সন্ধান পাওয়া যায়নি বলে পুলিশ জানিয়েছে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে খুলনার লবণচরা থানাধীন রূপসা ব্রিজের নিকট থেকে অনুপম রায় (২০) ও প্রতিরাম বৈরাগী (২০) নামে দুই কলেজছাত্রকে তাদের অপর এক বন্ধু কয়রা থানার সাতালিয়া গ্রামের সাহেব আলী খানের ছেলে আলামিন খান (২১) নৌকা ভ্রমণে যাওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে যায়। নৌভ্রমণে যাওয়ার জন্য এরপর তাদের সঙ্গে বন্ধুরূপী আরও ৩জন যুক্ত হয়। এ সময় তারা একটি ট্রলারে উঠে ঘুরে বেড়ানোর এক পর্যায়ে অনুপম রায়ের হাত-পা বেঁেধ তার কাছে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী তার পিসিকে ফোন করতে বলা হয়। এতে সে অস্বীকৃতি জানালে কথিত বন্ধুরা তাকে মারধর করে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় ধাক্কা দিয়ে নদীতে ফেলে দেয়। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় জনতা আলামিন খান, নুর আলম ও রবিউল ইসলামকে আটক করে পুলিশে দেয়। এরপর পুলিশ তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যায় এবং ট্রলারটি জব্দ করে। নিখোঁজ অনুপমের সঙ্গে ডেকে নিয়ে যাওয়া কয়রা উপজেলার মালিখালী গ্রামের ধীরাজ বৈরাগীর ছেলে প্রতিরাম পুলিশের কাছে সমস্ত ঘটনা জানিয়েছে। নিখোঁজ অনুপমের বাড়ি পাইকগাছা উপজেলার পারসেমারী গ্রামে। তাঁর বাবার নাম গোস্ট রায়।

বটিয়াঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মাহতাব উদ্দিন বলেন, নিখোঁজ অনুপমের সন্ধান করছে পুলিশ। ঘটনাস্থল লবণচরা থানা এলাকায় হওয়ায় ওই থানায় মামলা হয়েছে।

প্রকাশিত : ২৭ ডিসেম্বর ২০১৪

২৭/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: