কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মেঘনায় বালু উত্তোলন নিয়ে সংঘর্ষের আশঙ্কা

প্রকাশিত : ২৬ ডিসেম্বর ২০১৪
মেঘনায় বালু উত্তোলন নিয়ে সংঘর্ষের আশঙ্কা

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মহালের সীমানা অতিক্রম করে মুন্সীগঞ্জের মেঘনা নদীতে এখন অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বালু উত্তোলন কার্যক্রম চালাচ্ছে ইজারাদার সিন্ডিকেট। এ নিয়ে বিরোধ দেখা দেয়ায় দুই ইজারাদার গ্রুপ এখন মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। দুই গ্রুপই এখন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে নদীতে প্রতিযোগিতার মাধ্যমে বালুবাহী বলগেট জাহাজের টোকেন মানি আদায় করছে। এর ফলে যে কোন সময় দুই ইজারাদার গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় মেঘনা নদীর দুইটি বালু মহালে বালু উত্তোলনে শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখতে মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুই ইজারাদার গ্রুপকে নোটিস করা হয়েছে।

মুন্সীগঞ্জ সীমানার মহালের মেসার্স বিজয় এন্টারপ্রাইজের ইজারাদার মোঃ আফসার উদ্দিন ভুইয়া অভিযোগ করে বলেন, গজারিয়া সীমানার মহালের চাঁদনী ট্রেডার্সের ইজারাদার সিন্ডিকেট মহালের সীমানা অতিক্রম করে জোরপূর্বক তাদের সীমানার বালু কেটে নিয়ে যাচ্ছে। এছাড়া অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সন্ত্রাসী বাহিনী নদীতে অবস্থান করায় যে কোন সময় অপ্রীতিকর ঘটনার আশঙ্কা করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, নিয়মানুযায়ী মহালের কাছে টোকেন মানি আদায় করার কথা থাকলেও চাঁদনী ট্রেডার্সের ইজারাদার সিন্ডিকেট তা অমান্য করে মেঘনা নদীর প্রবেশ মুখে অবস্থান নিয়ে জোরপূর্বক বালুবাহী বলগেট জাহাজের টোকেন মানি আদায় করে তাদের মহালের বালু লোড করতে বাধ্য করছে।

নদীতে টহলরত মুন্সীগঞ্জ সদর থানার এএসআই মোঃ নজরুল ইসলাম জানান, বর্তমানে মেঘনা নদী এলাকা ও বালু মহালের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। পুলিশের টহল ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা সার্বক্ষণিক নজরদারি অব্যাহত রেখেছেন।

জয়পুরহাটে রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার

নিজস্ব সংবাদদাতা জয়পুরহাট থেকে জানান, জেলার বালুমহালে চলছে নানা অনিয়ম, এক শ্রেণীর কর্মচারীদের সঙ্গে বালু মহালের ইজারাদারদের সখ্যতা ও সিন্ডিকেট চক্রের যোগসাজশের কারণে প্রতিবছর জেলার বালু মহালগুলো ইজারা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। ইজারা ছাড়াই রাজনৈতিক কিছু নেতা এই কাজে প্রত্যক্ষ জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে। বার বার টেন্ডার আহ্বান করেও ইজারাদার না পাওয়ার কারণে ইজারাবিহীন অবস্থায় থাকছে বালু মহালগুলো। ফলে সরকার হারাচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকার রাজস্ব। সবচেয়ে ভয়ানক ব্যাপার এ সব বালু মহাল থেকে বোরিং করে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে যা ভয়াবহ বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে।

প্রকাশিত : ২৬ ডিসেম্বর ২০১৪

২৬/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: