কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জয়ে বছর শেষ করতে চায় বার্সিলোনা

প্রকাশিত : ২০ ডিসেম্বর ২০১৪
জয়ে বছর শেষ করতে চায় বার্সিলোনা
  • স্প্যানিশ লা লিগায় কাতালানদের প্রতিপক্ষ আজ কর্ডোবা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মিশ্র একটা বছর অতিবাহিত করছে বার্সিলোনা। উত্থান আর পতনের সমারোহ থাকলেও বছরের বেশিরভাগ সময়ই দলটির পারফর্মেন্স নিম্নগামী দেখা গেছে। স্প্যানিশ লা লিগার সর্বশেষ ম্যাচেও গেটাফের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে কাতালানরা। এই অবস্থায় আজ বছরের শেষ ম্যাচে মাঠে নামছে বার্সিলোনা। ঘরের মাঠ ন্যুক্যাম্পে তাদের প্রতিপক্ষ কর্ডোবা। লা লিগায় ২০১৪ সালের শেষ ম্যাচ হওয়ায় জয় দিয়ে বছর শেষ করার প্রত্যয় ব্যক্ত হয়েছে কাতালান শিবির থেকে।

আজকের অন্য ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে লেভান্তে-রিয়াল সোসিয়েদাদ, এইবার-ভ্যালেন্সিয়া ও রায়ো ভায়োকানো-এস্পানিওল। ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপে ব্যস্ত থাকার কারণে রিয়াল মাদ্রিদের ম্যাচ নেই এই সময়ে। নতুন বছরে দলটি ফের মিশন শুরু করবে। এই সুযোগ পয়েন্ট তালিকায় তাদের কাছাকাছি যাওয়ার স্বপ্ন বুনছে লুইস এনরিকের দল। বার্সিলোনার পয়েন্ট এখন ৩৫। তারা ম্যাচ খেলেছে ১৫টি। সমান ম্যাচে ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষে অপ্রতিরোধ্য রিয়াল মাদ্রিদ। ৩২ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

জয় দিয়ে বছর শেষ করতে মুখিয়ে আছে বার্সিলোনা। দলটির মিডফিল্ডার ইভান রাকিটিচ বৃহস্পতিবার এক সাক্ষাতকারে বলেছেন, কর্ডোবার বিরুদ্ধে ম্যাচটি আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জয় দিয়ে বছর শেষ করাটা জরুরী। নতুন বছরে তাহলে বাড়তি অনুপ্রেরণা পাওয়া যাবে। ভক্তরাও নিশ্চিতকরে এমনই চাচ্ছে। গত ছয় বছরের মধ্যে এবারই প্রথম বার্সা মাত্র একটি ট্রফি নিয়ে বছর শেষ করতে যাচ্ছে। তবে দলটির মিডফিল্ডার জাভি হার্নান্দেজের বিশ্বাস, দ্রুতই এই পরিস্থিতি পাল্টে চেনা রূপে ফিরবে দল। আজকের ম্যাচে ইনজুরি আক্রান্ত দুই ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার ও দানিয়েল আলভেজ খেলতে পারবেন বলে আশা করছেন বার্সা কোচ এনরিকে।

এ্যাওয়ে ম্যাচে এবার শুরু থেকেই খারাপ করছে বার্সা। ১৩ ডিসেম্বর আবারও ব্যর্থতার স্বাক্ষর রাখেন লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজ, জাভি হার্নান্দেজরা। ম্যাচটি খেলেননি ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। ফলাফল ফের ধাক্কা খায় সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচটিতে গেটাফের ঘরের মাঠ কলিসেউম আলফনসোতে আতিথ্য গ্রহণ করে বার্সিলোনা। বরাবরেই মতো ম্যাচে একতরফা আধিপত্য বিস্তার করে খেলে স্প্যানিশ পরাশক্তিরা। কিন্তু মেসি, সুয়ারেজ, জাভিদের আক্রমণ তেমন সংঘবদ্ধ হয়নি। ম্যাচে মোট ২৩টি প্রচেষ্টার একটিও গোলে পরিণত করতে না পারাটা বার্সার জন্য বিরাট ব্যর্থতা। এর মধ্যে দুটি প্রচেষ্টা গোলমুখে যায়। দুটোই মেসির ফ্রিকিক। এই দুটি শটের একটি আবার বারপোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। এ্যাওয়ে ম্যাচে মেসির ব্যর্থতা আরেকবার প্রকট হয়ে দেখা যায়। এই ম্যাচটিসহ সর্বশেষ ১৩ এ্যাওয়ে ম্যাচে মেসি গোল পেয়েছেন মাত্র দুটি।

চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সর্বশেষ ম্যাচের মতো গেটাফের বিরুদ্ধেও ৪-৩-৩ ফরমেটে দলকে খেলান বার্সা কোচ লুইস এনরিকে। এই ফরমেটে শুরু থেকেই নিজেদের মধ্যে বল আদান-প্রদান করে খেলতে থাকেন মেসি, সুয়ারেজ, পেড্রো, জাভি, রাকিটিচরা। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। ম্যাচ শেষে কলিসেউম আলফনসোতের নিম্নমানের মাঠের সমালোচনা করেন বার্সিলোনার ক্রীড়া পরিচালক এ্যান্ডোনি জুবিজারেটা। তিনি বলেন, ম্যাচ শুরুর সময় আর মাঠের বাজে অবস্থা আমাদের ভাল খেলতে অসুবিধার সৃষ্টি করেছে। তবে ‘যত দোষ নন্দ ঘোষ’ না বলে নিজেদের খেলার সমালোচনা করেন বার্সা কোচ লুইস এনরিকে। পেছন ভুলে তিনি আজ জয়ের ধারায় ফেরার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

প্রকাশিত : ২০ ডিসেম্বর ২০১৪

২০/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: