মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের প্রতি ‘জিরো টলারেন্স’

প্রকাশিত : ২০ ডিসেম্বর ২০১৪
  • পাকিস্তানে প্রধানমন্ত্রী ও সেনাপ্রধানের প্রত্যয় ব্যক্ত
  • ৪৮ ঘণ্টায় ৩ হাজার জঙ্গীর ফাঁসি দাবি সেনাপ্রধানের

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের প্রতি ‘জিরো টলারেন্স’ এবং পাকিস্তান থেকে সন্ত্রাসবাদ দূর করতে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ও সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরীফ। জেনারেল হেডকোয়ার্টারে শুক্রবার অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এ সময় তাঁরা সন্ত্রাসী তথা জঙ্গীদের কোন ছাড় না দেয়া এবং এ ব্যাপারে কঠোর হওয়ার ব্যাপারে একমত পোষণ করেন। জেনারেল রাহিল শরীফ আফগান নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে অবহিত করেন। স্কুলে হামলার ঘটনায় শুক্রবার সিনেটে এক নিন্দা প্রস্তাব পাস হয়েছে। প্রতিরক্ষামন্ত্রী খাজা আসিফ বলেছেন, সন্ত্রাসবাদবিষয়ক মামলার বিচারে ‘সামরিক আদালত’ গঠন করা হচ্ছে। এদিকে পেশোয়ারে নারকীয় হত্যাযজ্ঞে জড়িত সন্দেহে ভাওয়ালপুর থেকে এক মহিলাসহ চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর আগে সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরীফ এক টুইটার বার্তায় ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তিন হাজার জঙ্গীকে ফাঁসি দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। সেনাবাহিনী পরিচালিত স্কুলে হামলার পর আফগান সীমান্তের কাছে স্থল ও বিমান হামলায় ৫৯ জঙ্গী নিহত হয়েছে। খবর এএফপি, বিবিসি ও ডন অনলাইনের।

প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের সঙ্গে জেনারেল রাহিল শরীফের বৈঠকে পাক-আফগান সীমান্তে নিরাপত্তা আরও জোরদার করার বিষয়ে আলোচনা হয়। পাক-আফগান সীমান্তে নিরাপত্তা জোরদার করা হলে জঙ্গীরা সহজে পাকিস্তানে ঢুকতে পারবে না আবার পাকিস্তান থেকে আফগানিস্তানেও ঢুকতে পারবে না।

বৈঠকে উত্তর ওয়াজিরিস্তান এবং খাইবারপাখতুন খাওয়ায় চলা অভিযান আরও বাড়ানোর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এছাড়া খাইবারের তিরাহ উপত্যকায় জঙ্গীদের আস্তানা লক্ষ্য করে হামলা চালানোর বিষয়ে একমত পোষণ করেছেন তাঁরা। পরবর্তী পর্যায়ে অন্য উপজাতি এলাকায়ও জারব-ই আজব অভিযানের পরিকল্পনা করা হয়।

জঙ্গীদের নির্মূলে সরকার প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম, তথ্য সরবরাহ এবং সহযোগিতা আরও বাড়ানোর আশ্বাস দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরীফকে আরও দিয়েছেন যে, সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধ বিষয়ক আইন প্রয়োজনে সংশোধন করা হবে। এছাড়া বৈঠকে প্রধান প্রধান শহর এবং উপজাতি এলাকায় জঙ্গীদের আস্তানা খুঁজে বের করতে গোয়েন্দা এবং বেসামরিক পর্যায়ে তথ্য আদান-প্রদান জোরদারের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে জেনারেল শরীফ সামরিক আদালতে মৃত্যুদ-প্রাপ্ত ছয় জঙ্গীর ফাঁসি অনুমোদন করেন।

সিনেটে নিন্দা প্রস্তাব পাস ॥ সেনাবাহিনী পরিচালিত স্কুলে হামলার ঘটনায় শুক্রবার পাকিস্তান পার্লামেন্টের সিনেটে সর্বসম্মতিক্রমে নিন্দা প্রস্তাব পাস হয়। সিনেটর কাইয়ুম সুমরো এ প্রস্তাব উত্থাপন করেন। এ সময় পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষে পেশোয়ার হত্যাকা- নিয়ে আলোচনার দাবি জানানো হয়। আগামী সোমবার বিকেল তিনটা পর্যন্ত সিনেটের কার্যক্রম মুলতবি করা হয়। সে অধিবেশনে এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

মহিলাসহ চারজন গ্রেফতার ॥ মঙ্গলবারের নারকীয় হত্যাযজ্ঞে জড়িত সন্দেহে দক্ষিণ পাঞ্জাবের ভাওয়ালপুর জেলার হাসিলপুরের গরীবাবাদ এলাকা থেকে এক মহিলাসহ চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। স্কুলে হামলার সময় জঙ্গীদের ব্যবহৃত মোবাইল সিমের সূত্র ধরে এসব জঙ্গীকে শনাক্ত করা হয়। ওই সিমটি গ্রেফতার মহিলার নামে রেজিস্ট্রেশন করা ছিল। তদন্তে সহযোগিতার জন্য স্থানীয় এক মোবাইল ফোন ডিলারকে কমিটি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

সেনা অভিযানে ৫৯ জঙ্গী নিহত ॥ পাকিস্তানে আফগান সীমান্তসংলগ্ন এলাকার কাছে স্থল ও বিমান হামলায় ৫৭ জঙ্গী নিহত হয়েছে। পেশোয়ারে স্কুলে তালেবান জঙ্গী হামলায় ১৪১ জন নিহত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এ অভিযান চালাল পাকিস্তান।

প্রকাশিত : ২০ ডিসেম্বর ২০১৪

২০/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: