কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দেশীয় র‌্যাম্পের অগ্রগতি

প্রকাশিত : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৪

চারপাশের ধোঁয়ার কু-লি ভেদ করে সবার সামনে এসে হাজির হলো এক পরী। না কোন রূপ কথার গল্প নয়। র‌্যাম্প শোর একটি দৃশ্য এটি। ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে র‌্যাম্প শো। যে কোন পণ্য এখন বিপণনের অন্যতম মাধ্যম এখন র‌্যাম্প শো। বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। সেইসঙ্গে এগিয়ে যাচ্ছে এদেশের ফ্যাশন ট্রেন্ড। সেই নব্বই দশক থেকে এগিয়ে যাওয়া ফ্যাশন ট্রেন্ড এখন অনেকটাই পরিপূর্ণতা লাভ করেছে। তবে এর সঙ্গে এখনও অনেক সমস্যা রয়ে গেছে। রয়েছে নানা ধরনের অসঙ্গতি। ভালমন্দ সব জায়গাতেই রয়েছে। তবে ফ্যাশন সেগমেন্ট নিয়ে ভ্রু কুচকানিটা যেন একটু বেশিই। অনেকে তো ভেবেই বসে আছেন ফ্যাশন বা মডেলিং কোন শিল্পকলার আওতায় পরে না। যার ফলে ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি তার প্রাপ্য মূল্যায়ন পাচ্ছে না। তারপরেও এগিয়ে যাচ্ছে ফ্যাশন ট্রেন্ড। ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির এগিয়ে চলা এবং এর নানাবিধ সমস্য সমাধানের লক্ষ্যে দ্য বিগ এ কমিউনিকেশনের উদ্যোগে এবং ভোরের কাগজের সহায়তায় ‘ফ্যাশন মডেলিংয়ের একাল- সেকাল’ শীর্ষক এক গোলটেবিলের আয়োজন করা হয়েছিল। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত এবং সভাপতিত্ব করেন রেডিয়েন্ট ফ্যাশন এ্যান্ড ডিজাইনিং ইনস্টিটিউশনের চেয়ারম্যান গুলশান নাসরীন আরা চৌধুরী। অনুষ্ঠানটি চারটি ভাগে বিভক্ত করা হয়েছিল। প্রথমেই ফ্যাশন জগতের একাল-সেকাল নিয়ে একটি ডকুমেন্টরি দেখানো হয়। যার গ্রন্থনা ও উপস্থাপনায় ছিলেন দৈনিক দিনের শেষের বিনোদন ও ফ্যাশন সম্পাদক একে আজাদ সানি এবং পরিচালনায় কোরিওগ্রাফার কৃষাণ ভূঁইয়া।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় ভাগে প্রবন্ধ পাঠ করেন দ্য বিগ এ কমিউনিকেশনের ডিরেক্টর। মূল প্রবন্ধে ফ্যাশন জগতের এ পর্যন্ত পথ চলার নানা সুবিধা অসুবিধা এবং অসঙ্গতি উঠে এসেছে। এবং এ থেকে পরিত্রাণের জন্য গোলটেবিল বৈঠক থেকে পরামর্শ চাওয়া হয়। গোলটেবিলে উপস্থিত অন্তর শো বিজের কর্ণধার স্বপন চৌধুরী, ইনফিনিটির কর্ণধার নাইমুল ইসলাম খান, অঞ্জনসের স্বত্বাধিকার শাহীন আহমেদ, রঙের চিফ ডিজাইনার ও পরিচালক বিপ্লব সাহা, বিশিষ্ট ফটোগ্রাফার চঞ্চল মাহমুদ, আশীষ সেনগুপ্ত, কোরিওগ্রাফার কৃষাণ ভূঁইয়া, মডেল বুলবুল টুম্পা, শাওন খান, নাট্য পরিচালক মনির হোসেন জীবনসহ আরও অনেকে আলোচনায় অংশ নেন। তাঁদের প্রত্যেকেই ফ্যাশন ইন্ড্রাস্ট্রিকে এগিয়ে নেয়ার ব্যাপারে একযোগে কাজ করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এবং একটি স্বতন্ত্র সংগঠন গড়ার ব্যাপারে ঐক্যমত পোষণ করেন। এর সঙ্গে শ্যামল দত্ত ফ্যাশন ইনস্টিটিউট এবং মডেল এজেন্সি গড়ার ব্যাপারে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। যাতে করে ইন্ডাস্ট্রি এগিয়ে যেতে পারে, একটি প্ল্যাটফর্মে থেকে সরকারী সহোযোগিতা পাবার ব্যাপারে জানান উপস্থিত সবাইকে।

পরিশেষে সব সেক্টরে ভালমন্দ থাকবে তাই বলে থেমে থাকা চলবে না বলে ইতিবাচক মত পোষণ করেন সভাপতি। খারাপ দল একদিন ঠিকই চিহ্নিত হবে এবং শক্ত হাতে তাদের প্রতিহত করা হবে। এবং যোগ্য লোকই টিকে থাকবে এই আশাবাদ ব্যক্ত করে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে এবং মধ্যাহ্ন ভোজের আমন্ত্রণ জানিয়ে গোলটেবিল বৈঠকের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

ফ্যাশন ডেস্ক

প্রকাশিত : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৪

১৯/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: