আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বছর জুড়েই আলোচনায় ট্র্যাক এ্যান্ড ফিল্ড

প্রকাশিত : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৪
বছর জুড়েই আলোচনায় ট্র্যাক এ্যান্ড ফিল্ড

স্পোটর্স রিপোর্টার ॥ ক্রীড়াজগতের আরেকটি বছর কেটে গেল। ফুটবল-ক্রিকেটাঙ্গনের পাশাপাশি ট্র্যাক এ্যান্ড ফিল্ডও আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল বছরজুড়ে। উসাইন বোল্ট-এ্যাডামসদের সাফল্যের পাশাপাশি মৌসুমের শেষ মুহূর্তে এসে ডোপিং নেয়ার ব্যাপারে অভিযোগ উঠে রাশিয়ান এ্যাথলেটদের বিরুদ্ধেও। যা শেষদিকে এসে নতুন করে বিতর্কের জন্ম দেয়।

২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে পুরুষের পোল ভল্টে সের্গেই বুবকার দখলে থাকা দীর্ঘদিনের রেকর্ড ভেঙ্গে নতুন কীর্তি গড়েন ফ্রান্সের রেনাউড লাভিলেনি। শুধু তাই নয়। এবারই প্রথমবারের মতো কমনওয়েলথ গেমসে অংশ নেন বিশ্বের দ্রুততম মানব উসাইন বোল্ট। গ্লাসগোতে অনুষ্ঠিত সেই ইভেন্টের ৪ গুণিতক ১০০ মিটারে স্বর্ণপদক জিতেন জ্যামাইকার এই কিংবদন্তি স্প্রিন্টার। ক্রীড়াজগতের মহাযজ্ঞ হিসেবে পরিচিত অলিম্পিক। আর লন্ডনে অলিম্পিকের আসরে অসাধারণ পারফর্মেন্স উপহার দিয়ে নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যান বোল্ট। নিজেকে ঘোষণা দেন কিংবদন্তি হিসেবে। আর প্রথমবারের মতো কমনওয়েলথ গেমসে অংশগ্রহণ করেও নিজের শ্রেষ্ঠাত্বের পরিচয় দেন তিনি। তবে এ বছরটা ভাল কাটেনি দূরপাল্লার দৌড়বিদ মোহাম্মদ ফারাহর। ব্রিটিশ এই এ্যাথলেট এবার ইনজুরিতে পড়েন মৌসুমের শুরুর দিকে। জুরিখে অনুষ্ঠিত ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ফেরার কথা ছিল তার। কিন্তু ঠিক লড়াইয়ে নামার পূর্ব মুহূর্তে আবারও ইনজুরিতে পড়েন ফারাহ। এর ফলে আর জুরিখের সেই ইভেন্টে খেলতে পারেননি তিনি। ২৭ বছর বয়সী শেলি এ্যান ফ্রেজার প্রাইসের বছরটাও ভাল কেটেছে। ২৭ বছর বয়সী এই এ্যাথলেটের এই বছরই বিশ্ব ইনডোর চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করে ৬০ মিটারে স্বর্ণপদক জিতেন। নিজের জাত চিনিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের ভ্যালারি এ্যাডামসেরও। তার পারফর্মেন্সের দক্ষতার প্রমাণ দিয়ে এবারই আইএএএফের বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদের পুরস্কার জিতে নেন তিনি। এটা ছিল তার টানা ৫৬তম শিরোপা জয়। বিতর্কের মধ্যে ছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এ্যাথলেট জাস্টিন গ্যাটলিনেরও।

তবে বছরের শেষদিকে এসে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি) বেশ বড় রকমের অভিযোগ করেছে রাশিয়ান এ্যাথলেটদের বিরুদ্ধে। বিশ্বব্যাপী ডোপ পাপীদের এত দৌরাত্ম্য বাড়ার পেছনে মূলত রাশিয়ান এ্যাথলেটরা নাকি দায়ী। অধিকাংশ রাশিয়ান এ্যাথলেটই পারফর্মেন্স বর্ধক হিসেবে নিষিদ্ধ ওষুধ সেবন করে থাকে। আর এমনটাই অভিযোগ করেছে আইওসি। শুধু অভিযোগ করেই বসে থাকেনি আইওসি। রাশিয়ান এ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনকে আহ্বান জানিয়েছে যত দ্রুত সম্ভব তদন্ত পরিচালনা করার। বিশ্ব এন্টি ডোপিং এজেন্সির (ডব্লিউএডিএ) প্রধান ক্রেইগ রিডি ইতোমধ্যেই এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে যথাযথ তথ্যাদি এ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের কাছে হস্তান্তরও করেছেন। আইওসির মুখপাত্র মার্ক এডামস এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে আইওসির এমন দাবিকে প্রত্যাখ্যান করেছে রাশিয়ান এ্যাথলেটিক্স কর্তৃপক্ষ। কিছুদিন আগে জার্মান টেলিভিশনের একটি ডকুমেন্টারিতে দেখানো হয়েছে রাষ্ট্রীয়ভাবে মদদপুষ্ট হয়ে রাশিয়ার এ্যাথলেটরা বিভিন্ন নিষিদ্ধ ওষুধ সেবনের সঙ্গে জড়িত। এরপর আইওসির নির্বাহী বোর্ডের এক সভায় এটাকে নিশ্চিত বলে দাবি করা হয়েছে। কিন্তু রাশিয়ার কর্মকর্তারা এসব অভিযোগতে নাকচ করে দিয়েছেন। তবে এটিকে মারাত্মক এক অভিযোগ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন তারা। এ বিষয়ে এডামস বলেন, ‘এ বিষয়টি খুব ভালভাবেই খতিয়ে দেখা প্রয়োজন।

প্রকাশিত : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৪

১৯/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: