কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মঙ্গলগ্রহে প্রাণ নিয়ে নতুন আশার আলো

প্রকাশিত : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৪
  • মিথেনের অস্তিত্বের কথা জানালেন কিউরিসিটি মিশনের গবেষকরা

মঙ্গল গ্রহে প্রাণের অস্তিত্ব নিয়ে নতুন আশাবাদ প্রকাশ করেছেন বিজ্ঞানীরা। এক বছর আগে নাসার কিউরিসিটি রোভার মিশন জানিয়েছিল, গ্রহটিতে মিথেন গ্যাস নেই। মঙ্গলবার বিজ্ঞানীরা তাদের সেই অবস্থান সম্পূর্ণ পাল্টে বলেছেন যে, গ্রহটিতে মিথেনের অস্তিত্ব ধরা পড়েছে এবং সেখানে প্রাণের অস্তিত্ব থাকা সম্ভব। ইন্টারন্যাশনাল নিউইয়র্ক টাইমস।

কিউরিটি মিশন থেকে এখন বলা হয়েছে, মঙ্গলে এমন মিথেন পাওয়া গেছে যেগুলোর অস্তিত্ব দু’মাস পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে। গবেষকরা মিথেন উপস্থিতির সম্ভাব্য দুটো কারণের কথা জানিয়েছেন। একটি হলো এই মিথেন হতে পারে মঙ্গলপৃষ্ঠে থাকা ক্ষুদ্র অনুজীবের দেহ নিসৃত বর্জ্য। আরেকটি হতে পারে এই মিথেন সার্পেন্টিনিজেশন নামের ভূতাত্ত্বিক প্রক্রিয়ায় উৎপন্ন হয়ে থাকতে পারে। যে প্রক্রিয়ায় ২৬০ ডিগ্রী সেলসিয়াস বা তদুর্ধ তাপমাত্রায় শিলার গঠন রূপান্তরিত হয় তাকে সার্পেন্টিনিজেশন বলে। কিউরিটি মিশনের বিজ্ঞানী জন গ্রৎজিনজার বলেন, এই অনুমানের ওপর ভিত্তি করে আমরা সামনের দিকে অগ্রসর হতে পারি। এই প্রথম বিজ্ঞানীরা মঙ্গলে মিথেন গ্যাস থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এটি শিলার গাঠনিক প্রক্রিয়াতেও পারে অথবা এটি অনুজীবের দেহ নিসৃত না অন্যকোন উৎস থেকে নির্গত সে ব্যাপারে বিজ্ঞানীরা এখন পর্যন্ত প্রাথমিক ধারণার মধ্যে রয়েছেন। তারা যে কার্বনভিত্তিক জৈব অণু সম্বলিত শিলার সন্ধান পেয়েছেন সেটি সরাসরি প্রাণের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়। তবে এর সঙ্গে জীবনের পরোক্ষ সম্পর্ক রয়েছে। গ্রৎজিনজার বলেন, এটি মিশনের এক গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত। আমেরিকান জিওফিজিক্যাল ইউনিয়নের শরৎকালীন সম্মেলনে তিনি এই কথা বলেছেন। মিথেনের উপস্থিতি আবিষ্কার করতে পারাটা তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ এই গ্যাস দীর্ঘ সময় পর্যন্ত টিকে থাকে না।

প্রকাশিত : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৪

১৯/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: