মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পাকিস্তানকে সাত উইকেটে হারিয়ে সমতায় ফিরল নিউজিল্যান্ড

প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৪
  • পাক-কিউই চতুর্থ ওয়ানডে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের চমৎকার সেঞ্চুরির ওপর ভর করে চতুর্থ ওয়ানডেতে ৭ রানে জয় পেয়েছে নিউজিল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের বিপক্ষে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ২৯৯ রানের চ্যালেঞ্জিং রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ইউনুস খানের সেঞ্চুরিতে পাকিস্তান ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে করেছে ২৯২ রান। অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি খেলেছেন ২৫ বলে ৪৯ রানের একটি ঝড়ো ইনিংস। আবুধাবিতে টস জিতে ব্যাটিং নেয়া কিউদের ভাল শুরু এনে দেন মার্টিন গাপটিল ও ডিন ব্রাউনলি। ১৬.৪ ওভারে ৮১ রান যোগ করেন দুই ওপেনার। ৪৮ বলে ৬ চারের সাহায্যে ৪২ রান করে সাজঘরে ফেরেন ব্রাউনলি। তবে ক্যারিয়ারের উনিশতম হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন গাপটিল। ৭৮ বলে ৭ চারের সাহায্যে ৫৮ রান করে পেসার সোহেল তানভিরের শিকারে পরিণত হন কিউই তারকা ওপেনার। এরপর ব্যক্তিগতভাবে সঙ্গীরা বড় স্কোর না পেলেও একপ্রান্তে দুরন্ত ব্যাটিং করে দলকে বড় সংগ্রহ এনে দেন উইলিয়ামসন। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে মোহাম্মদ ইরফানের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ১০৫ বলে ১২৩ রানের মনোমুগ্ধকর ইনিংস দেন নিউজিলান্ড সেনাপতি। ২৪ বছর বয়সি ডানহাতি ব্যাটসম্যানের ইনিংসে ছিল ১২টি দৃষ্টিনন্দন চারের মার। ৫৮তম ওয়ানডেতে উইলিয়ামসনের এটি চতুর্থ সেঞ্চুরি।

সাবেক অধিনায়ক রস টেইলর ৩৭ বলে ২৬, কোরি এ্যান্ডারসন ২০ বলে ২৩ রান করে আউট হন। শেষ দিকে টম লাথাম ১২ বলে অপরাজিত ১৪ রান করেন। পাকিস্তানের মোহাম্মদ ইরফান ২টি, সোহেল তানভির, আনোয়ার আলি ও অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি নেন ১টি করে উইকেট। নিরপেক্ষ ভেন্যু আরব আমিরাতে পাঁচ ওয়ানডের সিরিজ খেলছে দু’দল। যেখানে প্রথম ও তৃতীয়টি জিতে এগিয়ে যায় পাকিরা। আর দ্বিতীয়টিতে জয় পায় কিউইরা। বিশ্বকাপ সামনের রেখে দু’দলের জন্যই সিরিজটির গুরুত্ব অনেক। নিয়মিত অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের অনুপস্থিতিতে নিউজিল্যান্ডকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তরুণ উইলিয়ামসন। আর দ্বিতীয় ম্যাচে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কবলে পড়া মিসবাহ-উল হকের পরিবর্তে পাকিস্তানের দায়িত্বে তারকা শহীদ আফ্রিদি। সিরিজে ব্যাটে-বলে দারুণ সময় কাটাচ্ছেন অভিজ্ঞ এই পাক অলরাউন্ডার।

তিনশত রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান প্রথম ওভারেই উইকেট হারায়। দলীয় ৫৯ রানেই তিন উইকেটের পতন ঘটে। এরপর ৮২ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় পাকিরা। এ অবস্থায় হাল ধরেন দলের সিনিয়র খেলোয়াড় ইউনুস খান। অভিজ্ঞ এ ব্যাটসম্যান ১১৭ বলে ১০৩ রান করেন। ৩৭ ওভারে দলীয় ১৭২ রানে উমর আকমলকে রান আউট করে ৫ম ওভার তুলে নেয় কিউরা। দলের জয়ের জন্য যখন দরকার ৮৩ বলে ১২৮ রান এ সময় ব্যাট করতে নামেন অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি। ২৫ বলে ৪৯ রানের একটি ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি দলকে ভালই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন। ২৩৮ রানে তিনি আউট হলে পাকিস্তানের জয়ের আশা ক্ষীণ হয়ে যায়। এরপর সরফরাজ আহমেদ ১৮, সোহেল তানভীর ১১ ও আনোয়ার আলী ২০ রান করেছেন।

প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৪

১৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: