আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পুঁজিবাজারে লেনদেন বাড়লেও সূচক কমেছে

প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৪

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে নতুন প্রজন্মের (ডিএসই) স্বয়ংক্রিয় লেনদেন ব্যবস্থা চালু থেকে প্রতিদিনই সার্বিক মূল্যসূচক কমছে। তবে আস্তে আস্তে এই নতুন সফটওয়ার বিনিয়োগকারীদের আয়ত্তে আসায় কিছুটা হলেও লেনদেনে গতি বাড়ছে। তবে তা সার্বিক মূল্য সূচকের পতন আটকানোর মতো কিছু নয়।

তাই আগের দিনের ধারাবাহিকতায় বুধবারও সূচক কমেছে উভয় পুঁজিবাজারে। তবে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আগের দিনের চেয়ে টাকার অঙ্কে লেনদেন সামান্য বেড়েছে। ঢাকার বাজারের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও লেনদেন কিছুটা বেড়েছে।

বাজার পর্যালোচনায় বলা হয়েছে, সকালে সূচকের সামান্য উর্ধগতি দিয়ে লেনদেন শুরুর পরে দিনশেষে ডিএসইর সার্বিক সূচকটি আগের দিনের চেয়ে ৪০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৮৩৭ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩১২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১১২টির, কমেছে ১৭৩টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টি কোম্পানির শেয়ার দর। সেখানে লেনদেন হয়েছে ২৮৪ কোটি ৫৩ লাখ ৪ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট।

বুধবার ডিএসইর টপ-২০ তালিকায় থাকা কোম্পানিগুলোর মোট ১২০ কোটি ১ লাখ ৬৬ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা ডিএসইর মোট লেনদেনের ৪২.১৮ শতাংশ। এদিন ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি শেয়ার লেনদেন হয়েছে অগ্নি সিস্টেমসের। দিনভর এ কোম্পানির ৩২ লাখ ৩০ হাজার ৫০৪টি শেয়ার ১০ কোটি ৭৯ লাখ ৯৯ হাজার ৭৬ হাজার টাকায় লেনদেন হয়েছে। যা ডিএসইর মোট লেনদেনের ৩.৭৯ শতাংশ। এছাড়া ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের ৯ কোটি ৪৮ লাখ, ফু-ওয়াং ফুডের ৯ কোটি ১৭ লাখ, লাফার্জ সুরমা সিমেন্টের ৮ কোটি ২৬ লাখ, স্কয়ার ফার্মার ৮ কোটি ২৬ লাখ, সামিট এলায়েন্স পোর্টের ৮ কোটি ১৭ লাখ, তুং হাই নিটিংয়ের ৭ কোটি ২৩ লাখ, গ্রামীণফোনের ৬ কোটি ১ লাখ, আরএকে সিরামিকের ৫ কোটি ৮১ লাখ এবং যমুনা অয়েলের ৫ কোটি ৫৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

ডিএসইতে দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো- এমবিএল ১ম মিউচ্যুয়াল ফান্ড, আরকে সিরামিক, শাহজিবাজার পাওয়ার, মোজাফফর হোসেন স্পিনিং মিলস, তুং হাই নিটিং, বিডি কম, জনতা ইন্স্যুরেন্স, ৭ম আইসিবি, অগ্নি সিস্টেম ও হাক্কানী পাল্প।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : আজিজ পাইপস, অলটেক্স, ইমাম বাটন, এসপি সিরামিকস, আরামিট, আইসিবি ১ম এনআরবি, মেঘনা কনডেন্স মিল্ক, ইবিএলএআরএফ ও সোনারগাঁও টেক্সটাইল।

দিনশেষে অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক ৫২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৯০৯৯ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৫৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৮১টির, কমেছে ১৩৮টির এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টি কোম্পানির। সেখানে লেনদেন হয়েছে ২৬ কোটি ১ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট।

আগের দিন সিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ২৬ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট। সে হিসেবে বুধবার সিএসইতে লেনদেন কমেছে ৪৪ লাখ টাকা।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো- ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, তুং হাই নিটিং, হামিদ ফেব্রিক্স, আরকে সিরামিক, অগ্নি সিস্টেম, যমুনা ওয়েল, এবি ব্যাংক, সামিট এলায়েন্স পোর্ট লিমিটেড, বেক্সিমকো ও মবিল যমুনা বিডি।

প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৪

১৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: