মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

শোকস্তব্ধ পাকিস্তান

প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৪
শোকস্তব্ধ পাকিস্তান
  • মোমবাতি জ্বেলে বিশেষ মোনাজাতের মাধ্যমে ছোট্ট শহীদদের জন্য দোয়া কামনা

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ পাকিস্তানের পেশোয়ারে আর্মি পাবলিক স্কুলে শিশুদের ওপর তালেবান জঙ্গীদের বর্বর হত্যাযজ্ঞের পর দেশজুড়ে চলছে মাতম। আহতদের আর্তনাদ আর নিহতদের স্বজনের আহাজারিতে পরিবেশ ভারি হয়ে উঠেছে। বিভিন্ন শহরে মোমবাতি জ্বালিয়ে সমবেত হয়ে শোক প্রকাশ করে সাধারণ মানুষ। নিরীহ শিশু হত্যাকারী তালেবানের ধ্বংস চেয়ে বিশেষ প্রার্থনা করা হয়। বিভিন্ন স্কুলেও প্রার্থনার আয়োজন করা হয়। এ সময় শিক্ষার্থীরা নিহতদের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করে। মঙ্গলবার রাতেই অনেকের লাশ দাফন করা হয়। বুধবার বাকিদের লাশ দাফন করা হয়। মঙ্গলবারের ওই হামলায় ১৪১ জন নিহত হয়, যাদের ১৩২ জনই শিক্ষার্থী। অধিকাংশের বয়স ১০ থেকে ২০ বছরের মধ্যে। প্রায় আট ঘণ্টার সেনা অভিযানে ৯ জঙ্গীর মৃত্যুর মধ্য দিয়ে মঙ্গলবার বিকেলে সেই শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতির অবসান ঘটে। বুধবারও পেশোয়ারের বিভিন্ন হাসপাতালে আহত সন্তানের জন্য অভিভাবকদের উদ্বিগ্ন সময় পার করতে দেখা যায়। ফুলে ফুলে ঢাকা কফিন কাঁধে রাজপথে ছুটছে শবযাত্রীর মিছিল। বুধবার গুরুতর আহত তিনজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে তালেবানী নৃশংসতায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১৪৪ জন। খবর এএফপি, বিবিসি ও ডন অনলাইনের।

এই হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় পাকিস্তানে চলছে তিন দিনের জাতীয় শোক। সব সরকারী,আধা-সরকারী ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পাকিস্তান দূতাবাসে তিনদিন জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে এবং নানা কর্মসূচী পালন করা হবে। হত্যাযজ্ঞের পর দেশের অনেক এলাকায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও কিছু এলাকায় খোলা ছিল। সেখানে হতভাগ্য সহপাঠীদের স্মরণে প্রার্থনার আয়োজন করা হয়। বর্বর এই হামলার ঘটনায় আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আর সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে চলছে শোক আর নিন্দার ঝড়। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা থেকে শুরু করে পোপ ফ্রান্সিস, শান্তিতে নোবেল বিজয়ী মালালা ইউসুফজাই পর্যন্ত এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। এমনকি আফগানিস্তানের তালেবানও এ হামলার তীব্র নিন্দা জানায়। এদিকে বর্বরোচিত এ হত্যাযজ্ঞে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এক শোকবার্তায় তিনি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান। তুরস্কেও একদিনের জাতীয় শোক ঘোষণা করা হয়। আঙ্কারায় এক সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী আহমেদ দাভুতোগলু এ ঘোষণা দেন।

দুবাইয়ে শ্রমিক হিসেবে কাজ করা আখতার হোসেন দাফন করছিলেন তার নিহত ছেলে ফাহাদকে। এ সময় কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, তারা (তালেবান জঙ্গী) মুহূর্তের মধ্যে আমার সবকিছু ধ্বংস করে দিয়েছে। আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ সম্পদ আমার সন্তানকে তারা হত্যা করেছে। আমি আমার ছেলের জন্য দুবাইয়ে কঠোর পরিশ্রম করি। তিনি বলেন, নিষ্পাপ ছেলেকে আজ দাফন করতে হলো। আমি আর বাঁচতে চাই না।

ফাঁসি কার্যকরে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার ॥ মৃত্যুদ- কার্যকরের ওপর ছয় বছর ধরে চলা নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে পাকিস্তান। বুধবার গবর্নর হাউসে প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের সভাপতিত্বে সর্বদলীয় বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পাকিস্তান সরকারের মুখপাত্র মহিউদ্দিন বাওয়ানী এ তথ্য জানান। সভায় নিহতদের স্মরণে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়।

পেশোয়ারে সর্বদলীয় সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ঘোষণা করেন, আন্তর্জাতিক চাপে ফাঁসি কার্যকর বন্ধ ছিল। আর্মি পাবলিক স্কুলে ভয়াবহ হামলার পর ফাঁসি কার্যকরের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হলো।

নওয়াজ শরীফের কার্যালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, সন্ত্রাসবাদ সম্পর্কিত ঘটনায় মৃত্যুদ- কার্যকরের ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে, মৃত্যুদ- কার্যকরের ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে হবে। প্রধানমন্ত্রী এই সিদ্ধান্ত অনুমোদন করেছেন। প্রেসিডেন্ট মামনুন হুসেইন আট জঙ্গীর প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন। ২০১২ সালে প্রেসিডেন্টর কাছে এ প্রাণভিক্ষার আবেদন করেছিল জঙ্গীরা। এর ফলে ওসব জঙ্গীর ফাঁসি কার্যকরে আর বাধা রইল না।

সর্বদলীয় সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ বলেন, তারা (তালেবান) নিষ্পাপ শিশুদের শরীরে যেভাবে বুলেটবিদ্ধ করেছে, তাদের মুখম-ল বুলেটে ঝাঁঝরা করে দিয়েছে, এসব দৃশ্য আমাদের ভুলে যাওয়া উচিত নয়। তিনি বলেন, সন্ত্রাসবাদ এবং চরমপন্থার বিরুদ্ধে আমাদের যুদ্ধ চলবে।

এমপিসিতে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান এ ঘটনা তদন্তে সন্ত্রাসবাদ বিরোধী বিশেষজ্ঞদের নিয়ে একটি কমিটি গঠন এবং সাত দিনের মধ্যে রিপোর্ট দেয়ার আহ্বান জানান।

এএনপি প্রধান আসফান্দিয়ার ওয়ালী খান বলেন, এ ঘটনার পর আমাদের সব ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

মুসলিম লীগের (কিউ) মুজাহিদ হোসেন সৈয়দ বলেন, তামিলনাড়ু থেকে যদি সন্ত্রাসবাদ দূর হবে তবে পেশোয়ার থেকে নয় কেন?

নিহতদের স্মরণে ভারতে শোক ॥ পাকিস্তানের স্কুলে তালেবান হামলায় ১৪১ জনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে বুধবার ভারতজুড়ে সব স্কুলে দুই মিনিট নীরবতা পালন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ সব এমপিও দুই মিনিট নীরবতা পালন করেন। ভারতজুড়ে স্কুলশিশুরা পাকিস্তানে নিহত শিশু ছাত্রদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে বিশেষ প্রার্থনায় শামিল হয়ে শোক পালন করে। দিল্লীর মডার্ন স্কুলে অনুষ্ঠিত হয় বিশেষ শোকসভা।

তালেবান হত্যাযজ্ঞের পর পেশোয়ার রুটে ফ্লাইট বাতিল করেছে ছয়টি বিদেশী এয়ারলাইন্স। এয়ারলাইন্সগুলোর সূত্র উদ্ধৃত করে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি এ খবর জানিয়েছে। নিরাপত্তা উদ্বেগের কারণে উড়োজাহাজ পরিচালনা প্রতিষ্ঠানগুলো এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে উল্লেখ করেছে এনডিটিভি। তবে এয়ারলাইন্সগুলোর নাম জানায়নি ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমটি।

প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৪

১৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: