কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আমেরিকার ‘পুরুষ’ টেনিসের প্রভাব কমছে

প্রকাশিত : ১৭ ডিসেম্বর ২০১৪
  • সংশয়ে কিংবদন্তি পিট সাম্প্রাস

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অসামান্য কীর্তির জন্য টেনিস বিশ্বে স্বর্ণাক্ষরে লেখা নামগুলোর মধ্যে পিট সাম্প্রাস এবং আন্দ্রে আগাসী অন্যতম। আমেরিকার হয়ে টেনিস বিশ্বে দ্যুতি ছড়িয়েছেন তাঁরা। কিন্তু বর্তমান সময়ে টেনিস বিশ্বে আমেরিকান কোন পুরুষ তারকা নেই। সেরা পাঁচ কিংবা দশ তো দূরের কথা টেনিস বিশ্বের শীর্ষ ২০ খেলোয়াড়ের মধ্যে রয়েছেন কেবল একজন। বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ে জন ইসনারের অবস্থান এখন উনিশতম। এরপর দুইয়ে থাকা আরেক আমেরিকান খেলোয়াড় হলেন সাম কুয়েরি। যার অবস্থান পঁয়ত্রিশ।

তাই আমেরিকান পুরুষ টেনিস নিয়ে সংশয়ে আছেন দেশটির জীবন্ত কিংবদন্তি পিট সাম্প্রাস। তাঁর মতে, আমেরিকান পুরুষ টেনিস এখন আর বিশ্বকে রাজত্ব করতে পারছে না। বরং দিনে দিনে তলিয়ে যাচ্ছে পুরুষ টেনিস খেলোয়াড়রা। বিশেষ করে টেনিসে যুব খেলোয়াড়দের সংশ্লিষ্টতা না থাকায় হতাশ প্রকাশ করেছেন তিনি। তবে তার বিশ্বাস বিশ্ব পুরুষ টেনিসে আমেরিকার দাপট আবারও দেখা যাবে। তবে হয়ত সময় লাগবে।

এ বিষয়ে পুরুষ এককে ১৪টি গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট জয়ী পিট সাম্প্রাস বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরেই টেনিস বিশ্বে আমাদের শীর্ষ সারির কোন খেলোয়াড় নেই। আমেরিকান টেনিস যে অবস্থানে ছিল ঠিক সেই অবস্থানে ফিরতে আরও কিছু সময় লাগবে।’ দীর্ঘ এক যুগ আগে টেনিসকে বিদায় বলেছিলেন পিট সাম্প্রাস। নব্বইয়ের দশকে আন্দ্রে আগাসী এবং পিট সাম্প্রাস ছিল বিশ্ব টেনিসের আতঙ্কের নাম। ২০০২ সালে বিদায় বলার আগেই টেনিসকে উপহার দিয়েছেন আমেরিকান খেলোয়াড়দের দাপট। বর্তমান বিশ্বে টেনিসের জনপ্রিয়তা ব্যাপকভাবে বেড়েছে। এক যুগ আগেও যা ছিল না। তবে সেই তুলনায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পুরুষ টেনিসটা অনেক পেছনে। এর কারণ হিসেবে যুব টেনিস খেলোয়াড়দের সেভাবে আগ্রহ করে তুলতে পারছে না বলে মনে করেন সাম্প্রাস। এ বিষয়ে ৪৩ বছর বয়সী পিট সাম্প্রাস বলেন, ‘এখন সমগ্র বিশ্বব্যাপী টেনিস ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। সমগ্র বিশ্বের খেলোয়াড়রাই এখন এই খেলাটা খেলেন। এর প্রতি বিশ্বব্যাপী মানুষেরই আগ্রহ বাড়ছে। কিন্তু সেই তুলনায় আমেরিকান শিশুরা তেমনভাবে সম্ভাবনা দেখাতে পারছে না।’

বয়সে পিট সাম্প্রাস যেখন ৩২। ঠিক তখনই টেনিসকে বিদায় বলে দিয়েছিলেন সাম্প্রাস। কিন্তু টেনিসের প্রতি এখনও তাঁর আগ্রহের কমতি নেই। এখন তিনি খেলছেন ভারতে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক টেনিস প্রিমিয়ার লীগে। তার মতে ত্রিমূর্তি নোভাক জোকোভিচ এবং রাফায়েল নাদাল এখন টেনিস বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। শুধু তাই নয়, টেনিসে তাদের এমন রাজত্ব আরও দেখা যাবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। এ বিষয়ে পিট সাম্প্রাস বলেন, ‘নোভাক জোকোভিচ অবশ্যই বর্তমান সময়ের সেরা খেলোয়াড়। রজার ফেদেরারও দুর্দান্ত। টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান যে কোন সময়ই ফিরে পাওয়ার জন্য লড়াই করে যাচ্ছেন তিনি। তবে স্বাস্থ্যের কারণে কিছুটা অনিশ্চয়তার মধ্যে থাকেন রাফায়েল নাদাল। তার পরও সে ভাল করবে।’ গত এক দশক ধরেই টেনিস বিশ্বে রাজত্ব করছেন নোভাক জোকোভিচ, রজার ফেদেরার এবং রাফায়েল নাদাল। শুধু তাই নয় বর্তমান টেনিসের সেরা তারকা হিসেবে বুলগেরিয়ার গ্রিগর দিমিত্রোভকেও দেখছেন পিট সাম্প্রাস। প্রথমবারের মতো শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক টেনিস প্রিমিয়ার লীগ।

আর এই ইভেন্টে বিশ্ব সেরাদের পাশাপাশি খেলছেন পিট সাম্প্রাসও। রবিবার তিনি প্রথমবারের মতো খেলতে নামেন এই ইভেন্টে। তবে টেনিস বিশ্বে আমেরিকান পুরুষ খেলোয়াড় সেরাদের তালিকায় না থাকলেও মহিলা টেনিসে এককভাবেই রাজত্ব করছেন সেরেনা উইলিয়ামস। মারিয়া শারাপোভা কিংবা আনা ইভানোভিচদের মতো খেলোয়াড়দের হতাশ করে এবারও টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থেকে মৌসুম শেষ করেছেন তিনি।

প্রকাশিত : ১৭ ডিসেম্বর ২০১৪

১৭/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: