মূলত মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.৮ °C
 
২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ৯ ফাল্গুন ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

জাতীয় স্কুল হকি শুরু বুধবার

প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৪

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আগামী বুধবার থেকে মওলানা ভাসানী জাতীয় হকি স্টেডিয়ামে শুরু হতে যাচ্ছে ‘ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক জাতীয় স্কুল হকি টুর্নামেন্ট।’ আন্তর্জাতিক হকি ফেডারেশনের সভাপতি লিয়েন্দ্রো নেগ্রে এ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করবেন। এবারের প্রতিযোগিতায় ১২০ দল অংশ নিচ্ছে। দেশের ১১ ভেন্যুতে প্রাথমিক পর্বের খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হবে। ভেন্যুগুলো হলো ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, ফরিদপুর, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, দিনাজপুর, কুমিল্লা, সিলেট, বরিশাল ও ময়মনসিংহ। প্রাথমিক পর্ব শেষে মূলপর্বে উত্তীর্ণ হবে ৩২ দল। এদের নিয়ে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে মূল পর্বের খেলা। প্রতিযোগিতার মিডিয়া পার্টনার এটিএন বাংলা। এটিএন বাংলা উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বেলা ৩টা ১০ মিনিটে মওলানা ভাসানী জাতীয় হকি স্টেডিয়াম থেকে সরাসরি সম্প্রচার করবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে থিম সং পরিবেশন করবেন দেশের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী এসআই টুটুল। সঙ্গে থাকবে বর্ণাঢ্য ডিসপ্লে প্রদর্শনী। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সভাপতি এয়ার মার্শাল ইনামুল বারী, জাতীয় স্কুল হকি কমিটি এবং এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ এ এস জাকারিয়া, এটিএন বাংলার পরিচালক মনিরুল ইসলাম, পরিচালক রুকসানা কবীর কাকলী, এটিএন বাংলার উপদেষ্টাম-লী, অংশগ্রহণকারী স্কুলসমূহের শিক্ষক, প্রতিযোগী, শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ আমন্ত্রিত ব্যক্তিবর্গ মনোজ্ঞ এই অনুষ্ঠান উপভোগ করবেন। আসন্ন টুর্নামেন্ট সম্পর্কে স্কুল হকি কমিটির সম্পাদক মামুন উর রশিদ জানান, ‘এবার সকল স্কুলগুলোকে আমরা হকি খেলার সব ধরনের সরঞ্জাম দিয়ে সাহায্য করব। প্যাড, স্টিক, গার্ড থেকে শুরু করতে সব সরঞ্জাম দেয়া হবে ১২০ স্কুলকে। ঢাকায় মূল পর্বে কোয়ালিফাই করা দলগুলোকে আমরা স্থায়ীভাবে এসব জিনিস দেব।’ হকি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক খাজা রহমতউল্লাহ্ বলেন, ‘স্কুল হকির প্রথম পর্বের ৪৬ ছেলেকে আমরা বৃত্তি প্রদান করছি নিয়মিত।’

পাকিস্তানকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হকির শিরোপা জার্মানির

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অলিম্পিকের ফিল্ড হকিতে লন্ডনে স্বর্ণ জিতেছিল জার্মানির ফিল্ড হকি দল। এবার আরেকটি বড় আসরের শিরোপা জিতে আরেকটি সাফল্য বয়ে এনেছে তারা। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ফিল্ড হকির ফাইনালে উজ্জীবিত পাকিস্তানকে ২-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে জার্মানরা। ভারতের ভুবনেশ্বরে ম্যাচের ১৮ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যাওয়া জার্মানি শেষ বাঁশি বাজার তিন মিনিট আগে অপর গোলটি করে পাক হকি শিবিরকে হতাশায় নিমজ্জিত করে। কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে প্রায় ৭ হাজার ভারতীয় দর্শক উপস্থিত হয়েছিলেন। তারা স্বতঃস্ফূর্তভাবেই জার্মানির তরুণ দলকে সমর্থন দিয়েছেন। ২০০৭ সালে জার্মানরা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা সর্বশেষবার জিতেছিল। তবে এবারের দলটি ছিল সত্যিই ফেবারিট। কারণ ৭টি জুনিয়র হকি বিশ্বকাপ জয় করা দলের সদস্যদের নিয়ে গঠন করা হয়েছিল এ দলটি। অপরদিকে, পুরো আসরে দুর্দান্ত খেলা পাকিস্তান ছিল দারুণ উজ্জীবিত আর অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী। কিন্তু নিষেধাজ্ঞার কারণে দু’জন অপরিহার্য খেলোয়াড়কে ছাড়াই ফাইনালে জার্মানদের বিরুদ্ধে নামতে হয় তাদের। কিন্তু এর পরও ১৯৯৪ সালে সর্বশেষ কোন বড় আসরের শিরোপা জয়ী পাকরা এবার শিরোপা খরা ঘোচানোর জন্য ছিল আত্মপ্রত্যয়ী। তবে ভারতীয় দর্শকদের কাছ থেকে সে জন্য কোন সমর্থনই পায়নি তারা। এর মূল কারণ সেমিফাইনালে স্বাগতিক ভারতকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে ফাইনালে পা রেখেছিল পাকরা। আর সে ম্যাচের পর একজন পাক খেলোয়াড় স্বাগতিক দর্শকদের দিকে অশালীন অঙ্গভঙ্গি করার দায়ে আন্তর্জাতিক হকি ফেডারেশনের কাছ থেকে বহিষ্কারাদেশ পান এবং ফাইনালে সে কারণে নামতে পারেননি।

প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৪

১৬/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: