আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মুক্তিযুদ্ধে শহীদ তিন ভাইয়ের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

প্রকাশিত : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৪

আজ ১৫ ডিসেম্বর সোমাবর মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ভ্রাতৃত্রয়ের (বদিউজ্জামান, শাহজাহান ও করিমুজ্জামান) ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী। এ উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের পরিবারের পক্ষ থেকে শহীদদের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ, কোরানখানি শেষে কবর জিয়ারত করা হবে। শহীদ বদিউজ্জামানের বড় ছেলে এটিএম ওয়াহিদুজ্জামান ওরফে আল আমিনের ৯৮, রামকৃষ্ণ মিশন রোড, গোপীবাগ ৬ষ্ঠ লেনের বাসভবনে দরুদ শরীফ, কোরান তেলাওয়াত ও বাদ জোহর মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধাদের পরিবারের পক্ষ থেকে শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা বদিউজ্জামানের স্ত্রী হাজেরা খাতুন জামান আত্মীয়স্বজন, বন্ধু-বান্ধব ও শুভাকাক্সক্ষীদের মিলাদ মাহফিলে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করেছেন।

১৯৭১ সালের ১৫ ডিসেম্বর মহান স্বাধীনতা সংগ্রামে মুক্তিযোদ্ধা বদিউজ্জামান (বদি মেম্বার) ও তাঁর ছোট দুই ভাই মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান (এসএসসি) ও মুক্তিযোদ্ধা করিমুজ্জামান ওরফে মুল্লুকজাহান (বিএ) শহীদ হন। শহীদ মুক্তিযোদ্ধা বদিউজ্জামান (বিদ মেম্বার) গোপীবাগ, মতিঝিল, কমলাপুর, মানিকনগর, যাত্রাবাড়ী, নারিন্দা ও শ্যামবাজার অঞ্চলে আওয়ামী লীগের জনপ্রতিনিধি ও এলাকার বিডি মেম্বার ছিলেন। তাঁরা সমাজসেবী, বিদ্যোৎসাহী ও ক্রীড়া সংগঠক ছিলেন। মুক্তিযোদ্ধা করিমুজ্জামান ওরফে মুল্লুকজাহান গোপীবাগ সমাজকল্যাণ ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করেন। পরে মুক্তিযুদ্ধে তিনি শহীদ হলে তাঁর নাম অনুসারে শহীদ মুল্লুকজাহান সমাজকল্যাণ ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন কেন্দ্রের নামকরণ করা হয়। মহান মুক্তিযুদ্ধের চূড়ান্ত বিজয়ের একদিন পূর্বে ১৫ ডিসেম্বর রাতে ঢাকা শহরে গেরিলা যুদ্ধে অংশ গ্রহণ শেষে মধ্যরাতে বাসায় ফেরার পথে ওতপেতে থাকা পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর দোসর কুখ্যাত রাজাকার, আলবদর বাহিনী দ্বারা আক্রান্ত ও অপহৃত হন। পরে তাঁদের গুলি করে হত্যা করা হয়। বিজয় দিবসে অনেক জায়গায় খোঁজার পর রায়েরবাজার বদ্ধভূমিতে অসংখ্য লাশের মধ্য থেকে তাঁদের লাশ ইটখোলার কাদাযুক্ত জলাশয়ের মধ্যে পাওয়া যায়।-বিজ্ঞপ্তি

প্রকাশিত : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৪

১৫/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



ব্রেকিং নিউজ: