আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আবারও ওয়ার্নারের হিউজেস-স্মরণ

প্রকাশিত : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৪
আবারও ওয়ার্নারের হিউজেস-স্মরণ
  • টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এ্যাডিলেড টেস্টে প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ব্যাট-হেলমেট উঁচু করে আকাশের পানে তাকিয়ে ছিলেন। দিন শেষে ডেভিড ওয়ার্নার বলেছিলেন, এ অর্জন অকালপ্রয়াত বন্ধু ফিলিপ হিউজেসের জন্য। দু’দিনের মধ্যে একই দৃশ্যের পুনরাবৃত্তি করলেন। দ্বিতীয় ইনিংসেও দুরন্ত সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে ফের হিউজেসকে স্মরণ করলেন মারকাটারি ওপেনার। বললেন, ‘ও আমার সঙ্গেই আছে। আমরা কেউই হিউজেসের ছায়া থেকে বের হতে পারিনি। এ্যাডিলেডে ব্যক্তিগত ও দলীয় সব অর্জনই তার জন্য।’ প্রথম ইনিংসে ১৪৫Ñএর পর এবার ১০২ রানের চিত্তাকর্ষক ইনিংস খেলে দলকে শক্ত অবস্থানের ওপর দাঁড় করিয়ে দিয়েছেন ওয়ার্নার। একাধিক অর্জনে নাম লেখানোর পাশাপাশি মাঠে প্রতিপক্ষ ভারতীয় ক্রিকেটারের সঙ্গে এক দফা উক্তপ্ত বাক্যবিনিময়ও হয়েছে! তবে দিন শেষে হিউজেস প্রসঙ্গকেই বড় করে দেখছেন তিনি।

‘ক্রিকেটে এসব মামুলি ঘটনা। এমনটা হতেই পারে। যা ঘটেছে, সেটি মাঠেই শেষ হয়ে গেছে। আমি ওসব মনে রাখি না, এখানে তো নয়ই। আমাদের সবার লক্ষ্য একটাই, হিউজেসের জন্য ভাল খেলা। প্রথম ইনিংসের মতো আজও সেঞ্চুরির পর হিউজেসকে মনে পরছিল। এর আগে ২০০৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এমনি সেঞ্চুরির দিনে অপরপ্রান্তে ছিল সে, আমাকে এসে আলিঙ্গন করেছিল। সেসব এখন বেশি করে মনে পড়ছে।’ আর এ্যারনের উচ্ছ্বসিত হওয়া সম্পর্কে তিনি আরও যোগ করেন, ‘এ্যারন ভাল বোলার। এখানে সে বেশ আটসাটো বোলিং করেছে, যা উইকেট পাওয়ার মতো। তবে যে কেউ যে কোন সময় নো বল দিতে পারে, এটি খেলারই অংশ।’ ঘটনা চতুর্থ দিন চা বিরতির ঠিক আগে। পেসর বরুণ এ্যারনের ৩৪তম ওভারের দ্বিতীয় বলে ওয়ার্নার বোল্ড হয়ে যাওয়ার পর, তখন ক্রেজি ওয়ার্নারের নামে পাশে ৬৬ রান।

প্যাভিলিয়নের দিকে হাঁটা দেন তিনি। ওদিকে অতি উচ্ছ্বাসে, ওয়ার্নারের উদ্দেশে উস্কানিমূলক দু-চারটি কথাও ছুড়ে দেন এ্যারন! টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় এটি ‘নো’ বল! আর পায় কে? ক্রিজে ফেরার সময় এ্যারনের দিকে গজরাতে গজরাতে, ‘কাম অন! কাম অন!’ বলে শোধ তোলেন ওয়ার্নার। তাতে যোগ দেন বিরাট কোহলি, শিখর ধাওয়ানও। পঞ্চম ব্যাটসম্যান ও একমাত্র অস্ট্রেলিয়ান হিসেবে এ বছর (২০১৪ সালে) ১ হাজার রানের ল্যান্ডমার্ক অতিক্রম করলেন ওয়ার্নার (১৪ ইনিংসে ১০৬২)। ইউনুস খানের সঙ্গে যৌথভাবে সর্বোচ্চ সংখ্যক ৬ সেঞ্চুরি! ৭ সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে রেকর্ডটি সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিংয়ের (২০০৬ সালে, ১৮ ইনিংসে ১৩৩৩ রান)। এ বছর অস্ট্রেলিয়া আরও দুটি টেস্ট খেলবে। সুতরাং পন্টিংকে ছাড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ ২৮ বছর বয়সী ওয়ার্নারের সামনে। ৩৩ টেস্টে ৫০ গড়ে তার রান এখন ২৯৫৩, সেঞ্চুরি ১১ ও হাফ সেঞ্চুরি ১৩টি।

প্রকাশিত : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৪

১৩/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: