মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

আগামী প্রজন্মের কথা ভেবে বিদ্যুত ব্যবহারে সাশ্রয়ী হতে হবে

প্রকাশিত : ১২ ডিসেম্বর ২০১৪
  • জাতীয় বিদ্যুত সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যথেচ্ছ বিদ্যুত ব্যবহারের মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জনিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। বৃহস্পতিবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে জাতীয় বিদ্যুত সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ আহ্বান জানান।

এ বছর জাতীয় বিদ্যুত সপ্তাহের বিদ্যুতবিষয়ক সেরা প্রতিবেদকের পুরস্কার পেয়েছেন দৈনিক জনকণ্ঠের সিনিয়র রিপোর্টার রশিদ মামুন। যৌথভাবে এই পুরস্কার পেয়েছেন দৈনিক সমকালের সিনিয়র রিপোর্টার রফিকুল বাসার। এছাড়া চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের ইকবাল আহসান টিভি মিডিয়াতে সেরা প্রতিবেদকের পুরস্কার পান। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে রাষ্ট্রপতি নয়জনের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাষ্ট্রপতি বলেন, আমাদের দায়বদ্ধতা থেকে ভবিষ্যত প্রজšে§র জন্য জ্বালানি নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করতে হবে। আমাদের মনে রাখতে হবে বিদ্যুত উৎপাদন অত্যন্ত ব্যয়বহুল কার্যক্রম। এতে প্রচুর অর্থ বিনিয়োগের প্রয়োজন পড়ে। আগামী প্রজšে§র কথা ভেবেই বিদ্যুত ব্যবহারে আমাদের সাশ্রয়ী হতে হবে বলে জানান রাষ্ট্রপতি।

তিনি বলেন, বিদ্যুত আমাদের জাতীয় সম্পদ এবং উন্নয়নের অপরিহার্য উপাদান। দেশের সার্বিক উন্নয়নে তাই বিদ্যুত উৎপাদন যেমন জরুরী তেমনি এর সাশ্রয়ী ব্যবহারও গুরুত্বপূর্ণ। আমি আশা করি, বিদ্যুত সপ্তাহ পালনের মাধ্যমে জনগণ একদিকে বিদ্যুত ব্যবস্থার উন্নয়নে সরকারের কর্মকা- সম্পর্কে জানতে পারবেন অন্যদিকে বিদ্যুত ব্যবহারে আরও সাশ্রয়ী ও সচেতন হবেন। বিদ্যুত ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার পাশাপাশি এ খাতে ‘সিস্টেম লস’ কমাতেও সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান আবদুল হামিদ। তিনি বলেন ‘জীবাশ্ম জ্বালানির ওপর নির্ভরতা কমিয়ে পরিবেশবান্ধব নবায়নযোগ্য জ্বালানির ব্যবহার বৃদ্ধি করতে হবে।

এ সময় তিনি বিদ্যুত বিতরণ ও সঞ্চালনে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রশংসা করে বলেন, ‘বিদ্যুত জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে উৎপাদিত বিদ্যুত বিতরণ ও সঞ্চালনে বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম গ্রহণ করা জরুরী। তিনি বলেন, ‘এ পর্যন্ত তিন লাখ তিন হাজার কিলোমিটার বিতরণ লাইন নির্মাণ করা হয়েছে, যার মধ্যে বিগত ৬ বছরে নির্মিত হয়েছে ৪৩ হাজার কিলোমিটার লাইন। এ লাইনের মাধ্যমে এক কোটি ৫৬ লাখ গ্রাহককে বিদ্যুত সংযোগের আওতায় আনা হয়েছে জেনে আমি খুশি হয়েছি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে বিদ্যুত জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ২০১৩ সালের মধ্যে স্ত হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত উৎপাদনের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছিল। কিন্তু আমরা লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ১০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত উৎপাদনে সক্ষম হয়েছি।

তিনি বলেন, বিদ্যুত খাত এখন শক্ত ভিতের ওপর প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ২০০৯ সালে যেখানে উৎপাদন ক্ষমতা ছিল চার হাজার ৯৪২ মেগাওয়াট। এখন সেখানে ১১ হাজার ২৬৫ মেগাওয়াট বিদ্যুত উৎপাদন ক্ষমতা অর্জিত হয়েছে।

বিদ্যুত প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিদ্যুত, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ তাজুল ইসলাম, বিদ্যুত বিভাগের সচিব মনোয়ার ইসলাম বক্তব্য রাখেন।

পরে রাষ্ট্রপতি বিদ্যুত সপ্তাহ উপলক্ষে আয়োজিত তিনদিনব্যাপী মেলার উদ্বোধন করেন। মেলায় অংশ নিয়েছে সরকারী-বেসরকারী ৯৭টি প্রতিষ্ঠান। প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা উš§ুক্ত থাকবে।

প্রকাশিত : ১২ ডিসেম্বর ২০১৪

১২/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: