মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রূপনগরে ৯০ লাখ টাকা ছিনতাই, বিকাশ এজেন্ট গুলিবিদ্ধ

প্রকাশিত : ৮ ডিসেম্বর ২০১৪
  • রাজধানীতে আরও দুটি ছিনতাই ॥ পুলিশের সোর্স ও যুবক খুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীতে দুটি হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে তেজগাঁওয়ে এক পুলিশ সোর্সকে হাত-পা বেঁধে হত্যা করা হয়েছে। বিমানবন্দর এলাকায় আরেক যুবককে শ্বাসরোধে খুন করা হয়েছে। ট্রেনে কাটা পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এদিকে পৃথক স্থানে তিনটি ছিনতাইয়ে ঘটনা ঘটছে। ছিনতাইকারীরা তিনজনকে গুলি ও ছুরিকাঘাত করে প্রায় সোয়া কোটি টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে। এর মধ্যে রূপনগর এলাকায় ছিনতাইকারীরা প্রশিকা ভবন মোড়ে এক বিকাশ এজেন্টকে গুলি করে ৯০ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে। খিলগাঁওয়ে এক দোকান কর্মচারীকে গুলি করে ২০ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। মিরপুরে ছিনতাইকারীরা এক রিক্সাচালকে কুপিয়ে নগদ টাকা ও মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে। অপরদিকে রমনায় এক গৃহকর্ত্রীর নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। তাকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় গৃহকর্তা শামস বায়েজিদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। রবিবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। স্থানীয় সূত্র জানায়, তেজগাঁওয়ের শাহীনবাগ এলাকা ইউনুস খান (৩০) নামে এক পুলিশ সোর্সকে হাত-পা বেঁধে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পুলিশ পশ্চিম নাখালপাড়া শিয়া মাজারের ঢালের তুজার গ্যারেজের পেছনে ময়লার ড্রেন থেকে কম্বল মোড়ানো তার হাত-পা বাঁধা পচা-গলা লাশ উদ্ধার করে ঢামেক মর্গে পাঠায়। নিহতের বাবার নাম মোঃ হাবিব খান। গ্রামের বাড়ি বরিশাল জেলার বানারীপাড়া থানার বড় চাওলা গ্রামে। তিনি তেজগাঁওয়ে পশ্চিম নাখালপাড়া এলাকার ৬৪৭/৫ নম্বর বাড়িতে সপরিবারে থাকতেন। পুলিশ জানায়, নিহত ইউনুস পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করত। তেজগাঁও থানার এসআই সাইফুর রহমান জানান, কিছুদিন আগে ইয়াবার একটা বড় চালান ধরিয়ে দিয়েছিল ইউনুস। ধারণা করা হচ্ছে সেই কারণে তিনি খুন হতে পারেন। তাঁকে হাত বেঁধে শ্বাসরোধে হত্যা করে এখানে ফেলে গেছে। তিনি জানান, ৮ দিন ধরে তিনি নিখোঁজ থাকার পর তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। কম্বল দিয়ে মুড়িয়ে পেছনে হাত বাঁধা অবস্থায় তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যাকারীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এদিকে একইদিন দুপুরে পুলিশ বিমানবন্দর থানাধীন হাজিক্যাম্প রেলক্রসিং ও কাওলা রেলক্রসিয়ের মধ্যবর্তী স্থানের পুকুর পাশ থেকে অজ্ঞাত (৩৫) এক যুবককের লাশ উদ্ধার করে ঢামেক মর্গে পাঠায়। বিমানবন্দর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফরহাদ জানান, নিহতের পিঠে ও ঘাড়ে আঁচড়ের চিহ্ন রয়েছে। কানে সামান্য রক্তজমাট বেঁধে ছিল। ধারণা করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে তাঁর লাশ এখানে ফেলে গেছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। নিহতের পরনে গোলাপি রঙের হাফহাতা শার্ট ও কালো ফুলপ্যান্ট ছিল।

এদিকে রবিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা রেলওয়ে পুলিশ তেজগাঁও রেলওয়ে স্টেশন থেকে অজ্ঞাত (৫৫) এক ব্যক্তির ক্ষত বিক্ষত লাশ উদ্ধার করে ঢামেক মর্গে পাঠায়। রেলওয়ে পুলিশের এসআই সিরাজুল ইসলাম জানান, ট্রেনে কাটা পড়ে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। নিহতের পরনে চেক লুঙ্গি ও চেক শার্ট ছিল।

ছিনতাই ॥ পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রবিবার দুপুরে রূপনগর থানাধীন প্রশিকা ভবন মোড়ে স্বপ্ন সুপার শপ সংলগ্ন রাস্তায় ছিনতাইকারীরা বিকাশ এজেন্ট ও এক মোবাইল কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধির গাড়ি চালক মোঃ জাহিদকে (৩৪) এলোপাতাড়ি গুলি করে ৯০ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে গেছে। পরে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত জাহিদ জানান, দুপুরে একটি প্রাইভেটকারে টাকা নিয়ে যাচ্ছিলাম। তার প্রাইভেটকারটি দুই পাশে ২টি মোটরসাইকেলে বিকাশ এজেন্টের ৪ জন দিয়ে নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরি করে বিকাশের ৭৬ লাখ ও এয়ারটেল মোবাইল কোম্পানির ১৪ লাখ টাকাসহ মোট ৯০ লাখ টাকা জমা দেয়ার জন্য যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে তাদের প্রাইভেটকারটি প্রশিকা ভবন স্বপ্ন সুপার শপ সংলগ্ন রাস্তায় এলে ৬-৭টি মোটরসাইকেলে করে ১২-১৪ জন দুর্বৃত্ত তাদের ওপর এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ করে। এতে তিনি (প্রাইভেটকার চালক জাহিদ) পায়ে গুলিবিদ্ধ হন। একপর্যায়ে তিনি গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের ফুটপাতে তুলে দেন। এ সময় ছিনতাইকারীরা প্রাইভেটকারের ভেতর থেকে টাকার ব্যাগটি নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তাঁকে উদ্ধার করে পঙ্গু হাসপাতালে নেয়া হয়। রূপনগর থানার পরিদর্শক মতলুবুর রহমান জানান, দুপুরে একটি প্রাইভেটকারে কয়েকজন বিকাশ এজেন্টের ৯০ লাখ টাকা ব্যাংকে জমা দিতে যাচ্ছিলেন। এ সময় কয়েকটি মোটসাইকেলযোগে ১০-১২ ছিনতাইকারী এলেপাতাড়ি গুলি করে প্রাইভেটারের ভেতর থেকে ওই টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে যায়। এ সময় গুলিতে গাড়িচালক জাহিদ আহত হন। এদিকে একইদিন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে খিলগাঁওয়ে গোড়ান এলাকার তৃপ্তি হোটেলের সামনে ছিনতাইকারীরা আব্দুস সালাম (২৮) নামে এক দোকান কর্মচারীকে গুলি করে নগদ ২০ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে। পরে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত সালাম জানান, তিনি একতা জেনারেল স্টোর নামে একটি দোকানে কাজ করেন। সকালে সাইদুল নামে আরেক কর্মচারীকে নিয়ে রিক্সাযোগে দোকানের ২০ লাখ টাকা ব্যাংকের গোড়ান শাখায় জমা দিতে যাচ্ছিলেন। ব্যাংকের অদূরে ২টি মোটরসাইকেলে করে ২ জন ও হেঁটে ৪ দুর্বৃত্ত তাদের রিক্সা গতিরোধ করে। তারা টাকা ভর্তি ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। পরে তারা বাধা দিলে ছিনতাইকারীরা তার বাম পায়ে ২ রাউন্ড ও ডান পায়ে ১ রাউন্ড গুলি লাগে। পথচারীরা তাকে প্রথমে খিদমা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যদিকে একইদিন সকালে মিরপুর ২ নম্বর সেকশনের হার্ট ফাউন্ডেশনের সামনে থেকে ছিনতাইকারীরা আব্দুল আজিজ (৩০) নামে গ্রামে ফেরত এক রিক্সাচালককে কুপিয়ে ১৫০০ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে। পরে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতের স্ত্রী রাবেয়া বেগম জানান, তাঁরা মিরপুরের রূপনগর এলাকার শিয়ালবাড়ি এলাকায় থাকেন। তাঁর স্বামী পেশায় রিক্সাচালক। তিনি গ্রাম থেকে যাত্রীবাহী বাসে করে ঢাকা এসে রাতে সায়েদাবাদ নামেন। ওখান থেকে সিএনজিযোগে বাসায় ফিরছিলেন। পথে ওই স্থানে দুর্বৃত্তরা সিএনজি থামিয়ে তাঁকে জোর করে নামিয়ে কুপিয়ে সঙ্গে থাকা টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

রমনায় গৃহকর্মী নির্যাতনে শিকার ॥ রবিবার বিকেলে পুলিশ রমনা থানাধীন সেগুনবাগিচার একটি এ্যাপার্টমেন্ট থেকে শম্পা বানু (১৩) নামে এক কিশোরী গৃহকর্মীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত গৃহকর্মী শম্পার বাবার নাম মোঃ হামিদুল ইসলাম। গ্রামের বাড়ি নওগাঁ জেলার সদর থানার ছোটো কেশবপুর গ্রামে। রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মোঃ সেলিম মিয়া জানান, শম্পা ৫ মাস ধরে ৯ নম্বর সেগুনবাগিচার একটি এ্যাপার্টমেন্ট ভবনের ৭০২ নম্বর ফ্ল্যাটে কাজ করে আসছিল। দুপুরে তার নির্যাতনের সংবাদ পেয়ে পুলিশ ওই এ্যাপার্টমেন্টের নিচ থেকে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। সেখান থেকে চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তাকে ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। তিনি জানান, অভিযুক্ত গৃহকর্ত্রী তাপসী রাবেয়া বসরী ইস্টার্ন ব্যাংকের গুলশান শাখার কর্মকর্তা। তাঁর স্বামীর নাম শামস বায়েজীদ। আহত গৃহকর্মী শম্পা জানায়, কাজের ভুল হলেই তাকে লাঠি দিয়ে পেটানো হতো। এমনকি তাকে এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি মারা হতো। এতে চোখে মারাত্মকভাবে আঘাত করার কারণে তার চোখে কালো দাগের সৃষ্টি হয়েছে। ঠিকমতো দেখতে পায় না। পায়ে লাঠি দিয়ে পেটানোর কারণে ঠিকমতো হাঁটতে কষ্ট হয় তার। রমনা থানার ওসি তদন্ত জানান, এ ঘটনায় গৃহকর্তা শামস বায়েজীদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রমনা থানায় আনা হয়েছে। থানায় আসার নির্দেশ দেয়া হয়েছে গৃহকর্ত্রী রাবেয়া বসরীকে। অফিস শেষে থানায় পৌঁছাবেন বলে তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন। এছাড়া খবর দেয়া হয়েছে নির্যাতিত গৃহকর্মীর পরিবারকেও। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে ওসি তদন্ত মোঃ সেলিম মিয়া জানান।

অস্ত্রসহ দুই অপরাধী আটক ॥ রবিবার সকাল সোয়া ৭টার দিকে পুলিশ পুরান ঢাকার হাজারীবাগ থেকে দুটি আগ্নেয়াস্ত্রসহ মোঃ জুয়েল রানা (২৩) ও মোঃ আল আমিন (৩০) নামে দুই যুবককে আটক করে। ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মোহাম্মদ সাঈদুর রহমান জানান, সকালে হাজারীবাগ বেড়িবাঁধ এলাকার ময়না মার্কেটের সামনে থেকে দুটি বিদেশী পিস্তল ও ১৬ রাউন্ড গুলিসহ ওই দুজনকে গ্রেফতার করা হয়। জুয়েল ও আল আমিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও পার্শ্ববর্তী সীমান্ত এলাকা থেকে টাকার বিনিময়ে অস্ত্র ও গুলি ঢাকায় অস্ত্র ব্যবসায়ীদের কাছে পৌঁছে দিত। আগ্নেয়াস্ত্রগুলো হস্তান্তরের সময়ই দুজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

এসিডসহ দুইজন গ্রেফতার ॥ রবিবার ভোরের পুরান ঢাকার শ্যামপুর থেকে ১৫ লিটার এ্যাসিডসহ দুইজনকে আটক করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)। এই সময় শ্যামপুর ২৫/২৬ নম্বর স্বদেশ মেটাল কারখানা থেকে এ্যাসিডসহ তাদের আটক করা হয়। এপিবিএন এর মিডিয়া অফিসার স্নিগ্ধা সরকার জানান, শ্যামপুর কারখানায় অভিযান চালিয়ে সেখানে উপস্থিত দুইজনকে আটক করা হয়। এ সময় সেখান থেকে ১৫ লিটার সাদা এসিড উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক বাজার মূল্য ৩০ হাজার টাকা। তিনি আরও জানান, আটক দুইজনকে শ্যামপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে।

প্রকাশিত : ৮ ডিসেম্বর ২০১৪

০৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: