মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

জনগণ ছাড়া কোন ষড়যন্ত্রকে ভয় করে না আওয়ামী লীগ ॥ নাসিম

প্রকাশিত : ৮ ডিসেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ জনগণের ভোট ছাড়া চুপি চুপি বৈঠক ও ষড়যন্ত্র করে কোন লাভ নেই উল্লেখ করে খালেদা জিয়ার উদ্দেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, আওয়ামী লীগ নির্বাচনের দল, জনগণ ছাড়া কোন চক্রান্ত, ষড়যন্ত্রকে ভয় করে না। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া এ দল সামরিক শাসনের মধ্যেও নির্বাচন করেছে। কখনও হেরেছে, আবার কখনও জিতেছে। খালেদা জিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেন, চক্রান্ত, ষড়যন্ত্র ও বিদেশী প্রভুদের খুশি করে ক্ষমতায় যাওয়া যাবে না। দেশের উন্নয়ন, শান্তি ও স্থিতি চাইলে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ছাড়া কোন বিকল্প নেই। সরকারের নানামুখী উন্নয়নের কথা জনগণের কাছে পৌঁছে দেয়ার আহ্বান জানান ১৪ দলের সমন্বয়ক ও আওয়ামী লীগের সিনিয়র এই নেতা। তিনি রবিবার দুপুুরে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন। শহরের শহীদ এম মনসুর আলী অডিটোরিয়ামে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান। সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট কেএম হোসেন আলী হাসান। এছাড়া সাবেক মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সিরাজুল ইসলাম খান, আবু ইউসুফ সূর্য, গোলাম কিবরিয়া, এ্যাডভোকেট আব্দুর রহমান, এ্যাডভোকেট বিমল কুমার দাশ, মোস্তফা কামাল খান বক্তব্য দেন। সম্মেলনে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক প্রবীণ জননেতা আনোয়ার হোসেন রতু, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল ইসলাম চৌধুরী, জান্নাত আরা হেনরী তালুকদারসহ জেলা, উপজেলা এবং শহর আওয়ামী লীগের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সম্মেলন উদ্বোধনের আগে মোহাম্মদ নাসিম সদর আসনের এমপি অধ্যাপক ডাঃ হাবিবে মিল্লাত মুন্নাসহ নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ও জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এম মনসুর আলীর ম্যুরালে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সাত্তার শিকদার।

সম্মেলনের উদ্বোধনী অধিবেশনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবসহ জেলখানায় নিহত জাতীয় চার নেতা হত্যার বিচার করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। জিয়া, এরশাদ ক্ষমতায় ছিলেন, কিন্তু তাঁরা বিচার করেননি। বরং ১৫ আগস্টে শেখ হাসিনাকে গ্রেনেড মেরে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল। এমনকি বেগম জিয়া তাঁর স্বামীর হত্যারও বিচার করেননি। তাঁরা ক্ষমতায় থেকে জঙ্গী ও সন্ত্রাসীদের প্রশ্রয় দিয়েছেন। হাওয়া ভবন সৃষ্টি করে দেশের সম্পদ লুট করেছেন।

নাসিম বিরোধী দলের নির্বাচনের দাবির উল্লেখ করে বলেন, ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে আবারও জনগণের রায় নিয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নেবে। নির্বাচন ছাড়া ক্ষমতার পালা বদল হতে পারে না। বিএনপিকে মাথা ঠা-া রেখে ২০১৯ সালের নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নেবার পরামর্শ দিয়ে নাসিম এও বলেন, খালেদা জিয়া ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে না গিয়ে রাজনৈতিকভাবে মারাত্মক ভুল করেছেন, দলের ক্ষতি করেছেন। এই ভুলের মাশুল বিএনপিকেই দিতে হবে। জনস্বার্থবিরোধী কোন আন্দোলনের নামে কেউ হুমকি দিয়ে ফায়দা লুটতে পারবে না।

নাসিম বলেন, খালেদা জিয়া যতই বড় বড় কথা বলুন না কেন, এটি প্রমাণিত যে, মুষ্টিমেয় কিছু হতাশ ও জনসমর্থনহীন ব্যক্তি ছাড়া তাঁর সঙ্গে আর কেউ নেই। বিগত মহাজোট সরকারের সময় বিএনপি-জামায়াত অপশক্তি আগুনে পুড়িয়ে মানুষ খুন, যানবাহনসহ দেশের সম্পদ ধ্বংস করে কি অর্জন করেছেন তা তিনিই ভাল জানেন। তিনি বিএনপিকে হিংসা-বিদ্বেষ, সন্ত্রাসের পথ পরিহার করে নিয়মতান্ত্রিক রাজনীতির পথে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়ে নির্বাচিত সরকারকে সহযোগিতার আহ্বান জানান।

প্রকাশিত : ৮ ডিসেম্বর ২০১৪

০৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: