কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

জলবিদ্যুত প্রকল্পে ভুটানের সহায়তা চাইলেন রাষ্ট্রপতি

প্রকাশিত : ৮ ডিসেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দক্ষিণ এশীয় দেশগুলোর মধ্যে আন্তঃসংযোগ বাড়াতে ভুটানকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। রবিবার বঙ্গভবনে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগের সঙ্গে বৈঠককালে এ আহ্বান জানান রাষ্ট্রপতি। এছাড়া ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে জাতীয় সংসদে বিরোধী দলের নেতা রওশন এরশাদের সঙ্গে বৈঠক হয়েছে।

ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠককালে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ এ অঞ্চলের আন্তঃসংযোগ জোরদার ও জলবিদ্যুত প্রকল্প বাস্তবায়নে ভুটানের সক্রিয় সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন, এর ফলে আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটবে।

রাষ্ট্রপতি বলেন, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভুটানের দ্রুত স্বীকৃতি আমাদের জয়ের পথে নিতে দারুণভাবে অনুপ্রাণিত করে। রাষ্ট্রপতি একাত্তরে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালে বিশেষ করে তখনকার ভুটানের রাজা জিগমে দর্জি ওয়াংচুক ও সেদেশের জনগণের অকুণ্ঠ সমর্থন কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করেন। আবদুল হামিদ বলেন, তিনি সে সময় ভুটান সীমান্তের কাছাকাছি থেকে মুক্তিযুদ্ধের জন্য কাজ করছিলেন। রাষ্ট্রপতি ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুককে তাঁর অভিনন্দন জানান।

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে তাঁর বাংলাদেশ সফরকে দারুণ ফলপ্রসূ বলে অভিহিত করেন। তিনি এখানকার আতিথেয়তার কথা উল্লেখ করে ভূয়সী প্রশংসা করেন। তোবগে বিশেষ করে সাভার স্মৃতিসৌধ ও জাতীয় জাদুঘর পরিদর্শন করে অভিভূত হয়েছেন বলে রাষ্ট্রপতিকে জানান। তিনি রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদকে ভুটান সফরের আমন্ত্রণ জানান।

জাতীয় জাদুঘর পরিদর্শন ॥ ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবকে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর পরিদর্শন করেছেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভুটানের অর্থ ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ভুটানের উচ্চ পর্যায়ের ৩০ জন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। বৌদ্ধ ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির ওপর আগ্রহের কথা জেনে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর গ্যালারির পাশাপাশি জাদুঘরের বৌদ্ধ ঐতিহ্যের নানা নিদর্শন যেমন- প্রস্তর ও ব্রোঞ্জ নির্মিত ভাস্কর্য, তাম্রশাসন, টেরাকোটা দিয়ে একটি বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করে। শেরিং তোবগে জাদুঘরের বিভিন্ন গ্যালারি এবং বৌদ্ধ ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির নানা নিদর্শন দেখে অভিভূত হন। তিনি বাংলাদেশ একটি ঐতিহ্যবাহী জনপদ বলে মত প্রকাশ করেন। গ্যালারি পরিদর্শন শেষে তিনি পরিদর্শন বইতে সই করেন।

স্কয়ারের কারখানা পরিদর্শন ॥ গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলায় স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস কারখানা পরিদর্শন করেছেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে। রবিবার বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একটি হেলিকপ্টারযোগে ঢাকা থেকে তিনি কালিয়াকৈরে পৌঁছান। স্কয়ার কারখানা পরিদর্শন শেষে তিনি ঢাকায় ফিরে আসেন। ভুটানের প্রধানমন্ত্রী স্কয়ার ফার্মাসিটিউক্যালস প্ল্যান্ট’র ফর্মুলেশন বিল্ডিং পরিদর্শন করেন। এছাড়া স্কয়ারের ল্যাবরেটরিতে ওষুধ তৈরির প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করেন।

সূত্র জানায়, ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল বাংলাদেশে এসেছেন। এই প্রতিনিধি দলে ভুটানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিনজিন দর্জি ও অর্থমন্ত্রী নরবু ওয়াংচুক রয়েছেন। এছাড়া ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একটি বাণিজ্য প্রতিনিধি দলও ঢাকায় এসেছেন।

বাংলাদেশকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতিদানকারী প্রথম দেশ ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়ার পর এটাই তোবগের প্রথম ঢাকা সফর। তিনি গত বছরের জুলাইয়ে ভুটানের সরকার প্রধানের দায়িত্ব নেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী জানিয়েছিলেন, ভুটানের জনগণের উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে তোবগে বাংলাদেশে আসার আগ্রহের কথা বলেন। তা শোনার পর শেখ হাসিনা তাকে আমন্ত্রণ জানান।

ভুটানের শীর্ষ ব্যবসায়ীদের একটি প্রতিনিধি দলও প্রধানমন্ত্রী তোবগের সঙ্গে বাংলাদেশে এসেছে।

প্রকাশিত : ৮ ডিসেম্বর ২০১৪

০৮/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: