মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

অভিনয়ে ফিরলেন সাত্তার

প্রকাশিত : ৭ ডিসেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্যারালাইজডজনিত অসুস্থতার কারণে প্রায় তিন বছর অভিনয় থেকে দূরে থাকার পর অবশেষে অভিনয়ে ফিরছেন দেড় শতাধিক চলচ্চিত্রের অভিনেতা সাত্তার। সৃষ্টি পরিচালিত বিশেষ নাটক ‘হাসি বাবা’ নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি গত ১ ডিসেম্বর ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান। নাটকটি রচনা করেছেন জিএম সৈকত। নাটকে সাত্তারের চরিত্রের নাম মামুন যিনি গ্রামের একজন প্রতিবাদী যুবক। কিন্তু হঠাৎ করেই তিনি প্যারালাইজড হয়ে যান। বলা যায় বাস্তব জীবনের চরিত্রে অভিনয়ের মধ্যদিয়েই চিত্রনায়ক সাত্তার আবারও অভিনয়ে ফিরেছেন। এ প্রসঙ্গে সাত্তার বলেন, নাটকের পরিচালক সৃষ্টি এবং রচয়িতা জিএম সৈকতের কাছে আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ যে তারা আমার দুঃসময়ে আমার পাশে দাঁড়িয়েছেন। তাদের এই ঋণ কোনদিনই শোধ হওয়ার নয়। পরিচালক সৃষ্টি জানান, আসছে জানুয়ারি মাসে নাটকটি এটিএন বাংলায় প্রচার হবে। চিত্রনায়ক সাত্তার ২০১২ সালের শুরুতে হার্ট এ্যাটাক করেন। যে কারণে সে সময় তার বামপাশ প্যারালাইজড হয়ে যায়। তাই স্বাভাবিক জীবনে তার আঁর ফেরা সম্ভব হয়ে উঠেনি। খুব কষ্টে দিনানিপাত করছেন তিনি।

তিন সন্তান এবং স্ত্রীকে নিয়ে বহু কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। এই কষ্ট থেকে পরিত্রাণ চান তিনি। প্রসঙ্গত, অভিনেতা সাত্তার সর্বশেষ এফআই মানিকের ‘চাচ্চু আমার চাচ্চু’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এতে তিনি লিটল স্টার দীঘির বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। নারায়ণগঞ্জের ছেলে সাত্তার ১৯৬৮ সালে ছোটবেলাতেই ইবনে মিজান পরিচালিত ‘আমির সওদাগর ও ভেলুয়া সুন্দরী’ চলচ্চিত্রে শিশু চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৮৪ সালের ‘নতুন মুখের সন্ধানে’র মাধ্যমে সাত্তার নায়ক হিসেবে কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘পাগলী’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন ফারজানা ববির সঙ্গে জুটিবদ্ধ হয়ে।

এরপর তিনি আজিজুর রহমানের ‘রঙ্গিন রূপবান’, ‘অরুন বরুণ কিরণ মালা’, ‘কাঞ্চজন মালা’, ইবনে মিজানের ‘পাতাল বিজয়’, চাষী নজরুল ইসলামের ‘শুভদা’, মিলন চৌধুরীর ‘রঙ্গিন সাত ভাই চম্পা’সহ দেড় শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। নায়ক হিসেবে তিনি সর্বশেষ মিলন চৌধুরীর ‘ভিখারীর ছেলে’ চরিত্রে অভিনয় করেন। ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগ থেকে অনার্স মাস্টার্স সম্পন্ন করা চিত্রনায়ক সাত্তার একজন বীর মুক্তিযোদ্ধাও বটে। নারী ও শিশু নির্যাতনের ওপর তিনি একটি তথ্যচিত্র নির্মাণ করেছিলেন যা প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে জমা আছে। সাত্তার তার শারীরিক অক্ষমতার কারণে আজ অভিনয় থেকে দূরে থাকলেও তার প্রচ- আত্মবিশ^াস তিনি অভিনয়ে নিয়মিত হতে পারবেন যদি তাকে তাঁর মতো চরিত্র দেয়া হয়।

প্রকাশিত : ৭ ডিসেম্বর ২০১৪

০৭/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: