রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

শীর্ষে রাশিয়ার এ্যাথলেটরা!

প্রকাশিত : ৭ ডিসেম্বর ২০১৪
  • ড্রাগ কেলেঙ্কারি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি) বেশ বড় রকমের অভিযোগই করেছে রাশিয়ান এ্যাথলেটদের বিরুদ্ধে। বিশ্বব্যাপী ডোপ পাপীদের এত দৌরাত্ম্য বাড়ার পেছনে মূলত রাশিয়ান এ্যাথলেটরা দায়ী। অধিকাংশ রাশিয়ান এ্যাথলেটই পারফর্মেন্স বর্ধক হিসেবে নিষিদ্ধ ওষুধ সেবন করে থাকেন বলে অভিযোগ করেছে আইওসি। শুধু অভিযোগ করেই বসে থাকেনি আইওসি। রাশিয়ান এ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনকে আহ্বান জানিয়েছে যত দ্রুত সম্ভব তদন্ত পরিচালনা করার। বিশ্ব এন্টি ডোপিং এজেন্সির (ডব্লিউএডিএ) প্রধান ক্রেইগ রিডি ইতোমধ্যেই এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে যথাযথ তথ্যাদি এ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের কাছে হস্তান্তরও করেছেন। আইওসির মুখপাত্র মার্ক এডামস এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে আইওসির এমন দাবিকে প্রত্যাখ্যান করেছে রাশিয়ান এ্যাথলেটিক্স কর্তৃপক্ষ।

কিছুদিন আগে জার্মান টেলিভিশনের একটি ডকুমেন্টারিতে দেখানো হয়েছে রাষ্ট্রীয়ভাবে মদদপুষ্ট হয়ে রাশিয়ার এ্যাথলেটরা বিভিন্ন নিষিদ্ধ ওষুধ সেবনের সঙ্গে জড়িত। শুক্রবার আইওসির নির্বাহী বোর্ডের এক সভায় এটাকে নিশ্চিত বলে দাবি করা হয়েছে। কিন্তু রাশিয়ার কর্মকর্তারা জোরালোভাবে এসব অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছেন। তবে এটিকে মারাত্মক এক অভিযোগ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন তারা। এ বিষয়ে এডামস বলেন, ‘এ বিষয়টি খুব ভালভাবেই খতিয়ে দেখা প্রয়োজন। আর সেটা তারাই করুক এবং খুব দ্রুত।’ ডব্লিউএডিএ প্রধান রিডি সংক্ষিপ্ত একটি প্রেজেন্টশনও দেখিয়েছেন শুক্রবারের নির্বাহী বোর্ডের সভায়। সেখানে দেখানো হয়েছে অভিযোগের পেছনে প্রয়োজনীয় প্রমাণাদি। তিনি পরবর্তীতে আন্তর্জাতিক এ্যাসোসিয়েশন অব এ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন্সের (আইএএএফ) নীতি নির্ধারক কমিশনের সঙ্গে এ বিষয়ে যোগাযোগও করেছেন। এডামস এ বিষয়ে বলেন, ‘তিনি তাদের এ অভিযোগ সংশ্লিষ্ট সব প্রয়োজনীয় তথ্যই দিয়েছেন। বিষয়টির সঙ্গে লেগে থাকবেন উভয় পক্ষই।’ আইওসি সভাপতি থমাস বাখও এর শেষ দেখা হবে বলে জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেছেন, ‘যদি মারাত্মক এ অভিযোগ সত্য হয় সেক্ষেত্রে বিষয়টি নিয়ে তাদের উচিত খুব ভালভাবে তদন্ত করা। সঠিক পন্থায় প্রয়োজনীয় পদ্ধতিতেই বিষয়টি খতিয়ে দেখতে হবে। আমরা দেখব আইএএএফ এ বিষয়ে কি ধরনের পদক্ষেপ নেয় তারপর আমরা নিজেদের কর্মপন্থা নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব।’

জার্মান টেলিভিশন চ্যানেল এআরডির করা তথ্যচিত্রের নাম ছিল, ‘গোপন ডোপিং চিত্র-যেভাবে রাশিয়া জয়ীদের বের করে আনে।’ এখানে রাশিয়ান এ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন প্রেসিডেন্ট এবং আইএএএফ কোষাধ্যক্ষ ভ্যালেন্টিন বালাখনিশেভের ভূমিকা বেশ ভালভাবেই মেলে ধরানো হয়েছে।

প্রকাশিত : ৭ ডিসেম্বর ২০১৪

০৭/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: