কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

তবু ইতিবাচক অধিনায়ক আফ্রিদি

প্রকাশিত : ৭ ডিসেম্বর ২০১৪
  • শেষ টি২তে ১৭ রানে হার পাকিস্তানের, সিরিজ ড্র ১-১এ, দুবাইয়ে প্রথম ওয়ানডে সোমবার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ টি২০ সিরিজটা পাকিস্তান খেলল পাকিস্তানেরই মতো। প্রথম ম্যাচে কিউইদের ৭ উইকেটে উড়িয়ে দিয়ে এগিয়ে যাওয়া, এরপর দ্বিতীয়টিতে প্রতিপক্ষকে ১৪৪ রানে বেঁধে রেখে উল্লাসের ছবি বলছিল সন্তুষ্ট তারা! কিন্তু শুক্রবার শেষটা ভাল হয়নি ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ পাকিদের। ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় হারতে হয়েছে ১৭ রানে। ১১ বলে ২৮ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেও দলকে বাঁচাতে পারেননি বড় তারকা শহীদ আফ্রিদি। তবু খুব বেশি হতাশ নন টি২০ অধিনায়ক। তুখোড় অলরাউন্ডারের কণ্ঠে আফসোস ঝড়েছে নিজের আউট নিয়ে!

‘আগের ম্যাচে আমরা ভাল খেলেছিলাম। তবে সার্বিকভাবে এদিন ভাল হয়নি, বিশেষ করে শেষটা। টি২০তে প্রতিপক্ষকে ১৪৪ রানে বেঁধে রাখা কৃতিত্বের। কিন্তু ব্যাট হাতে প্রথম ম্যাচের পুনরাবৃত্তি করতে পারিনি। যদিও জয়ের ব্যাপারে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আমি পজেটিভ ছিলাম, এমনকি যখন ১৩-১৪ বলে ২৪-২৫ রান প্রয়োজন ছিল। আমাকে ডট বলেও রান তুলতে হচ্ছিল, কিন্তু দুর্ভাগ্য আউট হয়ে যাই।’ বলেন ৩৪ বছর বয়সী আফ্রিদি। টম লাথামের ২২ বলে ২৬, লুক রনকির ১৯ বলে ৩১ অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের ৩১ বলে ৩২ রানের কার্যকর তিন ইনিংসে ভার করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৪৪ রানের ফাইটিং স্কোর গড়ে নিউজিল্যান্ড। জবাবে ৪.৪ ওভারে ২৪ রান তুলতেই তিন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে বিপদে পড়ে ফেবারিট পাকিস্তান। আগের ম্যাচের নায়ক সরফরাজ আহমেদ এদিন মাত্র ১ রান করে সাজঘরে ফেরেন। মোহাম্মদ হাফিজ ৯ ও হারিস সোহাইল ৩ রানে আউট হন।

এরপরও পাকিস্তানকে ম্যাচে ধরে রাখেন ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা আহমেদ শেহজাদ (৩৩) ও সাদ নাসিম (১৯)। কিন্তু কিউই পেসারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে প্রয়োজনী রান রেট বেড়ে গেলে ব্যাকফুটে চলে যায় পাকিরা। মনে হচ্ছিল ম্যাচটা বড় ব্যবধানে হারবে তারা। কিন্তু তখনই দৃশ্যপটে অধিনায়ক। বহুদিন পর ব্যাট হাতে চেনা রূপে ‘বুম বুম আফ্রিদি’। সাত নম্বরে নেমে ১১ বলে ১ চার ও ৩ ছক্কায় ২৮ রান করেন। ২ চারে ৬ বলে ১১ রান করে সঙ্গী সোহেল তানভিরও তখন রুদ্রমূর্তিতে। হু-হু করে আস্কিং রেট নাগালে চলে আসে! দুবাইর গ্যালারি আফ্রিদি আফ্রিদি ধ্বনিতে প্রকম্পিত। মিডিয়াম পেসার জিমি নিশামের গলা সমামন বাউন্স স্বভাবসুলভ স্টাইলে পুল করতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ধরা পড়েন আফ্রিদি। তবে বলটি আদৌ ব্যাটে লেগেছে কি না, তা নিয়ে রয়েছে ঘোরতর সন্দেহ! অসন্তোষ ধরা পড়েছে আফ্রিদির অভিব্যক্তিতেও।

এরপর যা হওয়ার তাই হয়েছে। তীরে এসে তরী ডুবেছে ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ পাকিদের। সিরিজ ড্র হলেও প্রাপ্তির পাল্লা ভারি উইলিয়ামসনদের। ২১ রান ও বল হাতে গুরুত্বপূর্ণ ২ উইকেটÑ অলরাউন্ড পারফর্মেন্সে ম্যাচসেরা এ্যান্টন ডেভসিস। ব্যাটিং-কিপিংয়ের মুন্সিয়ানায় সিরিজসেরা কিউই উইকেটরক্ষক লুক রনকি। এর আগে পিছিয়ে পড়েও তিন টেস্টের সিরিজ ১-১এ ড্র করেছিল নিউজিল্যান্ড। সামনে ওয়ানডের পালা। নিয়মিত সেনাপতি ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম দেশে ফিরে যাওয়ায় সেখানেও নেতৃত্ব দেবেন তরুণ উইলিয়ামসন। বিপরীতে বিশ্বকাপের আগে শেষ দ্বিপক্ষীয় সিরিজে ফেবারিটের মতো খেলার চাপ থাকবে মিসবাহ-উল হকদের ওপর। সব মিলিয়ে ওয়ানডে সিরিজটা জমবে বেশ। সোমবার শুরু পাঁচ ওয়ানডের লড়াই। স্পিরিট ধরে রেখে ওয়ানডেতেও ভাল করার প্রত্যয় জড়েছে কিউই অধিনায়ক উইলিয়ামসনের কণ্ঠে। ‘তারুণ্য ও অভিজ্ঞতার সংমিশ্রণে আমাদের এই দলটি চমৎকার। ওয়াসডেদেও আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলব।’ বলেন তিনি।

স্কোর ॥ নিউজিল্যান্ড ১৪৪/৮ (২০ ওভার; উইলিয়ামসন ৩২, রনকি ৩১, লাথাম ২৬, ডেভিচিস ২১; গুল ২/২৪, আফ্রিদি ২/৩৩, হাফিজ ১/২০), পাকিস্তান ১২৭/১০ (১৮.৫ ওভার; শেহজাদ ৩৩, আফ্রিদি ২৮, সাদ ১৯, তানভির ১১; নিশাম ৩/২৫, মিলস ৩/২৬, ডেখিজিম ২/১৬)

ফল ॥ নিউজিল্যান্ড ১৭ রানে জয়ী।

ম্যাচসেরা ॥ ডেভিচিস (নিউজিল্যান্ড)।

সিরিজ ॥ দুই ম্যাচ টি২০ ১-১এ ড্র।

সিরিজসেরা ॥ রনকি (নিউজিল্যান্ড)।

প্রকাশিত : ৭ ডিসেম্বর ২০১৪

০৭/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: