কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অবাক নন সৌরভ

প্রকাশিত : ৬ ডিসেম্বর ২০১৪
অবাক নন সৌরভ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ভারত বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন, ক্রিকেটের অঘোষিত মোড়ল। আরেকটি বিশ্বকাপ যখন দ্বারে (ফেব্রুয়ারি-মার্চ ’১৫) তখন দলটির দিকে তীক্ষদৃষ্টি ক্রিকেটপ্রেমীদের। কেমন হয়, কী করে, ট্রফি ধরে রাখতে পারবে কি না- মনে হাজারও প্রশ্ন। প্রাথমিক দলে জায়গা হয়নি গতবারের আসরসেরা যুবরাজ সিং, বড় তারকা গৌতম গাম্ভীর, বিরেন্দর শেবাগ, হরভজন সিং ও জহির খানের। এ নিয়ে চলছে ব্যাপক আলোচনা, নির্বাচকদের সমালোচনা করতেও ছাড়ছেন না অনেকে। গৌতি-ভাজ্জিরা বাদ পড়ায় অবাক হননি সৌরভ গাঙ্গুলী। সাবেক অধিনায়কের মতে, ভাল-মন্দের বিচার হয়ে যাবে ময়দানী লড়াইয়ে। অবশ্য বর্তমান দল ও বাদ পড়াদের নিয়ে নিজের ভাবনাটা খোলাখুলিই জানিয়েছেন কলকাতার ‘দাদা বাবু’ খ্যাত সৌরভ।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘বিশ্বকাপের প্রাথমিক ত্রিশ সদস্যের তালিকা দেখে আমি একেবারেই অবাক নই। শেবাগ, জহির, হরভজন আর গাম্ভীরকে সম্ভাব্য দলে রাখেননি নির্বাচকরা। সত্যি বলতে, তালিকায় ওদের নামগুলো দেখব, এটা আমি আশাও করিনি।’ বিষয়টির ব্যাখ্যা দিয়ে তিনি আরও যোগ করেন, ‘যারা বাদ পড়া নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে, তার মধ্যে গৌতিই একমাত্র ক্রিকেটার যে সম্প্রতি জাতীয় দলের হয়ে খেলেছে। ইংল্যান্ড সফরে ছিল। কিন্তু টেস্টে সুযোগটা একদমই কাজে লাগাতে পারেনি। ওর জায়গায় শিখর ধাওয়ান, অজিঙ্কা রাহানে আর চোট সারিয়ে ফেরার পর রোহিত শর্মাকে সুযোগ দিয়ে দেখা হয়েছে। ওপেনিং পজিশনে তিনজনই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে পায়ের তলায় মাটি শক্ত করে নিয়েছে। তাই আমার মনে হয়নি, ধাওয়ান-রোহিতদের বাইরে রেখে গাম্ভীর-বিরেন্দর রাখার কোন সুযোগ ছিল।’ দু’দিন আগেও বিরেন্দর শেবাগ এক অনুষ্ঠানে বলেছিলেন, এখনও বিশ্বকাপে খেলার আশা ছাড়েননি তিনি। কিন্তু দল ঘোষণায় সে আশায় গুড়ে বালি। সুনীল গাভাস্কারের সঙ্গে যাকে দেশটির ইতিহাসের অন্যতমসেরা ওপেনার ভাবা হয়। এ বিষয়েও বাস্তবতায় বিশ্বাসী সৌরভ। তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ শেবাগ ভারতীয় ইতিহাসেরই সেরা ওপেনারদের একজন। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে ও খেলার মধ্যে নেই। জাতীয় দলে নেই। ঘরোয়া ক্রিকেটেও ফিরে আসার মতো কিছু করতে পারেনি। বিশ্বকাপ এমন একটি আসর যেখানে কেবল আবেগ দিয়ে বিচার করার সুযোগ নেই।’ জহির খান ও হরভজন সিংয়ের ক্ষেত্রেও বিষয়টা আলাদ নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি। তবে সহানুভূতির ঝড়িয়েছেন যুবরাজ প্রসঙ্গে। গত আসরের নায়ক অনন্ত ত্রিশ সদস্যের দলে থাকবেন, অনেকই তা আশা করেছিলেন।

যুবির বাদ পড়া নিয়ে সৌরভের বক্তব্য, ‘পাঁচ জনের মধ্যে যুবরাজই একমাত্র ক্রিকেটার যে ভারতের হয়ে সীমিত ওভারের ম্যাচে ক’দিন আগেও খেলেছে। গত মার্চে টি২০ বিশ্বকাপে ছিল, মানছি প্রত্যাশিত পারফর্মেন্স দেখাতে পারেনি। কিন্তু ২০০৩ থেকে ২০০৭ টি২০ ও ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপে টানা তিন তিনটা বিশ্বকাপে দেশের হয়ে ওর যা অবদান, অবিশ্বাস্য সব পারফর্মেন্স, তাকে একটা মাত্র ম্যাচে ব্যর্থ হওয়ার জন্য ছুড়ে ফেলাটা অন্যায়। যুবির জন্য খারাপ লাগছে।’ টি২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে যুবরাজের ধীরগতির ইনিংসকে হারের জন্য দায়ী করেন অনেকে। তবে সুরেশ রায়নাসহ একাধিক তরুণের দুরন্ত পারফর্মেন্স যুবির জন্য বাধা হয়েছে বলেও মনে করেন তিনি। সর্বোপরি ভাল-মন্দ মাঠের লড়াইয়ে প্রমাণ হবে বলেও মনে করেন সৌরাভ।

প্রকাশিত : ৬ ডিসেম্বর ২০১৪

০৬/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: