মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পুঁজিবাজারে লেনদেন পাঁচ শ’ কোটি টাকা ছাড়াল

প্রকাশিত : ৪ ডিসেম্বর ২০১৪

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ বাড়ছেই। বড় মূলধনী কোম্পানিগুলোর শেয়ার লেনদেন ও দর বাড়ার কারণে বুধবারও দেশের উভয় পুঁজিবাজারে মূল্যসূচক বেড়েছে। একই সঙ্গে বড় মূলধনী ১০ কোম্পানির শেয়ার অধিক পরিমাণে লেনদেন হওয়ায় উভয় পুঁজিবাজারে এদিন টাকার অঙ্কে লেনদেনও বেড়েছে। শুধু তাই নয়, ব্যাংক, ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক খাতের সঙ্গে জ্বালানি ও শক্তি, বস্ত্র খাতের কোম্পানিগুলোর চাহিদার দিনে ঢাকা স্টক একচেঞ্জের লেনদেন আবারও পাঁচ শ’ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। দর বৃদ্ধি ও লেনদেনে পিছিয়ে ছিল না ওষুধ খাতের কোম্পানিগুলোও।

আগের দুই দিনের ধারাবাহিকতায় সকালে সূচকের উর্ধগতি দিয়ে ডিএসইর লেনদেন শুরু হয়। তালিকাভুক্ত ব্যাংকের সঙ্গে সঙ্গে বড় মূলধনী কোম্পানিগুলোর লেনদেন বেড়ে যায়। দিন শেষে ডিএসইর সার্বিক সূচকটি আগের দিনের চেয়ে ৫৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৯৯২ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩০৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২৩৫টির, কমেছে ৪৯টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২০টি কোম্পানির শেয়ার দর। সেখানে লেনদেন হয়েছে ৫১৬ কোটি ৫৩ লাখ ৪১ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট।

মঙ্গলবার ডিএসইর সার্বিক সূচকটি অবস্থান ছিল ৪ হাজার ৯৩২ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ৩৭৩ কোটি ৫৬ হাজার ৬৬ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। সে হিসেবে বুধবার ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১৪২ কোটি ৯৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকা বা ৩৮.২৭ শতাংশ।

বুধবার ডিএসইর টপ-২০ তালিকায় থাকা কোম্পানিগুলোর মোট ২৪৬ কোটি ৫০ লাখ ৪৭ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা ডিএসইর মোট লেনদেনের ৪৭.৭২ শতাংশ। আর তালিকার প্রথম ১০টি কোম্পানির মোট ১৬৩ কোটি ৪৯ লাখ ৩২ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা ডিএসইর মোট লেনদেনের ৩১ শতাংশ।

এদিন ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি শেয়ার লেনদেন হয়েছে কেয়া কসমেটিক্সের। দিনভর এ কোম্পানির ৭৯ লাখ ২৬ হাজার ৫০০টি শেয়ার ২২ কোটি ৭৪ লাখ ৯১ হাজার ৫০০ টাকায় লেনদেন হয়েছে। যা ডিএসইর মোট লেনদেনের ৪.৪০ শতাংশ। এ ছাড়া তিতাস গ্যাসের ২০ কোটি ৫৯ লাখ, সামিট এলায়েন্স পোর্টের ২০ কোটি ৩২ লাখ, স্কয়ার ফার্মার ১৮ কোটি ৩ লাখ, এবি ব্যাংকের ১৭ কোটি ৭১ লাখ, বেক্সিমকো ফার্মার ১৫ কোটি ৪৮ লাখ, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের ১২ কোটি ৫২ লাখ, গ্রামীণফোনের ১২ কোটি ১৯ লাখ, যমুনা অয়েলের ১২ কোটি ২ লাখ এবং মেঘনা পেট্রোলিয়ামের ১১ কোটি ৮৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

ডিএসইর দর বৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ফার্মা এইড, কাসেম ড্রাইসেল, রহিম টেক্সটাইল, শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, এ্যাপেক্স স্পিনিং, খুলনা পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, কেয়া কসমেটিক্স, সামিট এলায়েন্স পোর্ট ও এআইবিএল১ম মিউচুয়াল ফান্ড।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : নর্দান জুটস, আরএন স্পিনিং, বেঙ্গল উইন্ডসর থাার্মোপ্লাস্টিক, ন্যাশনাল টি, এনভয় টেক্সটাইল, কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স, আইসিবি ৩য় এনআরবি, এসিআই ফমর্ূুলেশন ও বিডি অটোকারস।

দিনশেষে অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক ১১১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৯৩৬১ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২২৭টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৫৯টির, কমেছে ৪৭টির এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২১টি কোম্পানির। লেনদেন হয়েছে ৩৫ কোটি ১১ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের দিন সিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ২৭ কোটি ৫১ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। সে হিসেবে বুধবার সিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : এনসিসি ব্যাংক, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ, সামিট এ্যালায়েন্স পোর্ট লিমিটেড, স্কয়ার ফার্মা, সাইফ পাওয়ার টেক, কেয়া কসমেটিক্স, ইউসিবিএল, এবি ব্যাংক ও বেক্সমকো।

প্রকাশিত : ৪ ডিসেম্বর ২০১৪

০৪/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: