মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

হাম্বানটোটায় নতুন শুরু চায় ইংলিশরা

প্রকাশিত : ৩ ডিসেম্বর ২০১৪
  • শ্রীলঙ্কা-ইংল্যান্ড তৃতীয় ওয়ানডে আজ, ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া কুক, ছুটিতে মাহেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ হাম্বানটোটায় শ্রীলঙ্কা ও সফরকারী ইংল্যান্ডের মধ্যকার সাত ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডে আজ। প্রথম দুটিতে জিতে ২-০এ এগিয়ে স্বাগতিক লঙ্কানরা। সিরিজ দীর্ঘ হওয়ায় হয়ত এখনই হিসেবের বাইরে চলে যাচ্ছে না ইংল্যান্ড। তবে ব্যাকফুটে পরিস্থিতি এড়াতে জয় চাই অতিথিদের। ঘুরে দাঁড়াতে নতুন শুরু চাইছে ইংলিশরা। এ্যালিস্টার কুকদের বাড়তি উৎসাহ দিতে পারে মাহেলা জয়াবর্ধনের অনুপস্থিতি! ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে এই ম্যাচ থেকে ছুটি নিয়েছেন কলম্বোয় দ্বিতীয় ওয়ানডে জয়ের নায়ক ও দলটির ব্যাটিং-স্তম্ভ। বিশ্বকাপ সামনে রেখে দু’দলের জন্যই সিরিজটি মহাগুরুত্বপূর্ণ। তবে মরিয়া কুকদের জন্য নতুন শুরুর কাজটি মোটেই সহজ হবে না। কারণ ঘরের মাটিতে শ্রীলঙ্কা বিশ্বের ভয়ঙ্করতম শক্তি। ‘নতুন শুরুর অর্থ ঢেলে সাজানো নয়। নিজেদের সামর্থ্যরে সেরাটা দিয়ে ঘুরে দাঁড়ানো। জানি সেই শক্তি আমাদের রয়েছে। প্রয়োজন কেবল একটি জয়। যার মধ্য দিয়ে ছন্দ ফিরে পেতে পারি।’ বলেন কোণঠাসা ইংলিশ সেনাপতি কুক। তিনি আরও যোগ করেন, ‘শ্রীলঙ্কায় সফল হতে ভাগ্যের সহায়তা প্রয়োজন, তার আগে দল হিসেবে ভাল খেলতে হবে। সবাইকে নিজ অবস্থান থেকে সেরাটা দিতে হবে। এ জন্য পরিশ্রম করছে সবাই। লঙ্কানদের ওপর চাপ তৈরি করে সাফল্য তুলে নিতে আমরা বদ্ধপরিকর।’ কলম্বো ও হাম্বানটোটার পরিবেশ ভিন্ন বলে এখানে ব্যতিক্রম কিছুর অপেক্ষায় সফরকারীরা। তবে বাস্তবতা বলে, শ্রীলঙ্কার প্রতিটি ভেন্যুই ধীরগতির, স্পিনারদের জন্য সহায়ক। রঙ্গনা হেরাথ, অজন্তা মেন্ডিস, তিলকারতেœ দিলশানের ৩০ ওভারে জুঝতে হবে ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যানদের। কলম্বোর দুটি ম্যাচেই সেটি পরিষ্কার হয়ে গেছে। কোন সেঞ্চুরি ছাড়াই প্রথম ওয়ানডেতে লঙ্কানরা ৩১৭ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে দিলশান, কুশল পেরেরা ও মাহেলার তিন তিনটি চমৎকার হাফ সেঞ্চুরি ও বাকিদের সময়োপযোগী ব্যাটিংয়ে ভর করে। হাই-স্কোরিং ম্যাচটি অবশ্য হারার আগে হারেনি ইংল্যান্ড। মঈন আলির ড্যাশিং সেঞ্চুরি ও রবি বোপারার হাফ সেঞ্চুরিতে অলআউট হওয়ার আগে ২৯২ রান তুলে নেয় কুকের দল। হারে ২৫ রানে। মঈন-বোপারা দু’জনই উপমহাদেশীয় বংশোদ্ধূত ব্রিটিশ নাগরিক। লঙ্কান কন্ডিশনে তারা যে কার্যকর হতে পারেন, তা দেখা গেছে। প্রথম ম্যাচে দারুণ ফাইট দিলেও দ্বিতীয়টিতে হতাশ করে অতিথিরা। স্পিনের বিপরীতে মূলত ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ভরাডুবি হয়েছে কুকদের। বোপারার হাফ সেঞ্চুরি সত্ত্বেও ১৮৫ রানে অলআউট। ম্যাচের নায়ক মাহেলার অপরাজিত ৭৭ ও বন্ধু সাঙ্গাকারার ৬৭ রানের দুরন্ত দুই ইনিংসে ভর করে ৮ উইকেটের বিশাল জয় স্বাগতিকদের। দিলশান-হেরাথ-মেন্ডিস পাঁচ উইকেটই তুলে নেন তিন স্পিনার। অতীত বলে হাম্বাটটোটার পিচও স্পিন সহায়ক, সুতরাং নতুন শুরুর বাস্তাবায়নে কঠিন পরীক্ষায় পড়তে হবে ইংল্যান্ডকে। কলম্বোতে দ্বিতীয় ম্যাচ শেষেই মাহেলা জানিয়ে দেন তার ছুটি প্রয়োজন। তুখোড় তারকার আবেদন উপেক্ষা করতে পারেনি নির্বাচকরা। তার পরিবর্তে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে কলম্বোরই ২৫ বছর বয়সী প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান আশান প্রিয়াঞ্জনকে। হয়ত একাদশে থাকতে পারেন আড়াই বছর পর দলভুক্ত হওয়া থিলান কান্দাম্বে।

প্রকাশিত : ৩ ডিসেম্বর ২০১৪

০৩/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: