মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিশ্বের জনসংখ্যার ১০ শতাংশই কোন না কোনভাবে প্রতিবন্ধী

প্রকাশিত : ৩ ডিসেম্বর ২০১৪
  • আজ প্রতিবন্ধী দিবস

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিশ্বের মোট জনসংখ্যার প্রায় ১০ শতাংশ মানুষ কোন না কোনভাবে প্রতিবন্ধী। আর বাংলাদেশে মোট জনসংখ্যার প্রায় এক কোটি ৭০ লাখ মানুষ প্রতিবন্ধী। তার মধ্যে ৫২ ভাগ পুরুষ ও ৪৮ ভাগ নারী। আর শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধী ৪০ লাখ, মানসিক প্রতিবন্ধী ৩৮ লাখ, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ৩৩ লাখ। আর বাক, শ্রবণ ও নানা ধরনের মিলে মোট ২৫ লাখ প্রতিবন্ধী রয়েছে বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সর্বশেষ জরিপে দাবি করা হয়েছে। প্রতিবন্ধীদের পরিসংখ্যান তৈরির জন্য ‘প্রতিবন্ধী শনাক্তকরণ জরিপ’ কার্যক্রম চালাচ্ছে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়। গত জুনে জরিপের প্রাথমিক হিসাবে শনাক্ত করা হয় ১৬ লাখ ৯৫ হাজার জন প্রতিবন্ধী। সরকারের এ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। প্রতিবন্ধীদের অধিকার রক্ষায় ‘প্রতিবন্ধী সুরক্ষা আইন-২০১৩’ বাস্তবায়ন করছে সরকার। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তৃণমূল থেকে জাতীয় পর্যায়ের বিভিন্ন উন্নয়নে প্রতিবন্ধীদের সম্পৃক্ত করা দরকার। প্রায় সব অঞ্চল ও জনগোষ্ঠীতে এমনকি সরকারী-বেসরকারী উভয় প্রতিষ্ঠানে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে অবহেলা ও বিচ্ছিন্নভাবে দেখা হয়। তাদের প্রতি অসম দৃষ্টিভঙ্গি ও আচরণ প্রবলভাবে পরিলক্ষিত হয়। প্রতিবন্ধিত্ব ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তি সম্পর্কে সমাজে এখনও সনাতন দৃষ্টিভঙ্গি প্রবল বলে অভিযোগ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। এমন অবস্থার মধ্য দিয়ে আজ পালিত হচ্ছে বিশ্ব প্রতিবন্ধী দিবস। এবার দিবসটির মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘টেকসই উন্নয়ন : প্রযুক্তি প্রসারণ’। এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী পৃথক বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ তাঁর বাণীতে বলেন, উন্নত ও সুখী সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ে তুলতে প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীকে প্রযুক্তিজ্ঞানে সমৃদ্ধ করে মূল স্রোতধারায় সম্পৃক্ত করা জরুরী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিবন্ধীদের উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার মাধ্যমেই আমরা ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ে তুলতে পারি। প্রতিবন্ধিকতা আজ আর প্রতিবন্ধকতা নয়।

সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী এ্যাডভোকেট প্রমোদ মানকিন জনকণ্ঠকে জানান, প্রতিবন্ধীরা সমাজের মূল স্রোতে মিশে যেন সুস্থভাবে বাঁচতে পারে সে লক্ষ্যেই কাজ করছে সরকার।

বিশেষজ্ঞরা অভিযোগ করেন, প্রতিবন্ধী প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মধ্যে সবচেয়ে প্রান্তিক ও বঞ্চনার শিকার প্রতিবন্ধী নারী ও শিশুরা। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা তাদের মেধা ও যোগ্যতা প্রদর্শনের সুযোগ পাচ্ছে না। তাদের বেকারত্ব দিন দিন বাড়ছে। অনেক পরিবারে তাদের দেখা হচ্ছে বোঝা হিসেবে। বোঝা হিসেবে না দেখে প্রতিবন্ধীদের জনসম্পদে রূপ দিতে হবে। আর সব ধরনের উন্নয়ন কর্মকা-ের সঙ্গে সম্পৃক্ত করে তাদের বেঁচে থাকার সুযোগ করে দিতে হবে।

প্রকাশিত : ৩ ডিসেম্বর ২০১৪

০৩/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: