মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজধানীতে বাস চাপায় ভার্সিটি ছাত্রের মৃত্যু, যুবক হত্যা

প্রকাশিত : ৩ ডিসেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার বিজি প্রেসের সামনে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। বাড্ডায় যাত্রাবাহী বাসের চাপায় আবারও বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক মেধাবী ছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এদিকে মগবাজার মোড়ে কাজী অফিসে এক তরুণী ধর্ষিত হয়েছে। এ ঘটনায় নূরুল হুদা (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। অন্যদিকে গুলশানে মেজর পরিচয় দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে এক প্রতারককে আটক করা হয়েছে। মোহাম্মদপুরে গুলিভর্তি অস্ত্রসহ দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সোমবার গভীর রাতে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানাধীন অজ্ঞাত এক যুবককে (৩০) পিটিয়ে হত্যা করেছে তার মাদকাসক্ত বন্ধুরা। খবর পেয়ে পুলিশ মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে বিজি প্রেসের ডেসপাচ গেটের সামনের ফুটপাথ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠায়। তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রোকন উদ্দিন স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, নিহতের নাকে, মুখে, মাথায় রক্তাক্ত জখমের চিহ্ন ছিল। তিনি জানান, নিহত যুবক মাদকাসক্ত। ওই এলাকায় ঘোরাফেরা করত। রাস্তায় ঘুমাত। সোমবার রাতের যে কোন সময় মাদক সেবন নিয়ে তার কয়েকজন মাদকসেবী বন্ধুর সঙ্গে কথাকাটি ও মারামারি হয়। এক পর্যায়ে তারা ওই যুবকের মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে বলে এসআই রোকন উদ্দিন জানান। নিহতের পরনে নীল ফুলহাতা শার্ট ও কালো ফুলপ্যান্ট ছিল।

সড়ক দুঘর্টনায় নিহত বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ॥ আবারও বেপোরোয়া চালকের বাসের ধাক্কায় বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে মেরুল বাড্ডার একটি যাত্রাবাহী বাসের চাপায় সাদী মোর্শেদ (২০) নামে ওই ছাত্র নিহত হয়। এ নিয়ে এক সপ্তাহে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) সাবেক প্রধান সম্পাদক ও কলামিস্ট প্রবীণ সাংবাদিক জগলুল আহমেদ ও তিন শিক্ষার্থীসহ প্রায় ১০ জন নিহত হয়েছেন। নিহত সাদী বারিধারার বেসরকারী ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনির্ভাসিটি অব বাংলাদেশের (আইইউবি) বিবিএ ছাত্র। তার বাবার নাম এসএম আলম। তারা সপরিবারে ৪২ নম্বর উত্তর কমলাপুরে বসবাস করত। ঘটনার পর পুলিশ ঘাতক ফালগুন পরিবহন নামে ওই বাসটি আটক করেছে। বাস চালক পালিয়েছে। নিহতের মা সবুরা বেগম জানান, তাঁর ছেলে বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস শেষে মোটরসাইকেলে করে উত্তর কমলাপুরের বাসায় ফিরছিল। পথিমধ্যে মেরুল বাড্ডা দিয়ে যাওয়ার সময় এশিয়া হাসপাতালের সামনে যাত্রীবাহী ফালগুন পরিবহন নামে একটি বাস মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ছেলে রাস্তা ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয়। পরে সাদীকে পথচারীরা উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জরুরী বিভাগে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল জলিল জনকণ্ঠকে জানান, ঘটনার পরপরই ঘাতক ফালগুন পরিবহনের বাসটিকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা করা হবে বলে জানান তিনি।

একইদিন সকালে আব্দুল বারেক (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে অচেতন অবস্থায় সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে জরুরী বিভাগে নিয়ে আসে এক অজ্ঞাত মহিলা। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। চিকিৎসকের মুখ থেকে বারেকের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে ওই মহিলা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ বেলা ১২টার দিকে ওই হাসপাতাল থেকে তার লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠায়। পুলিশ জানায়, অজানা বিষপানে তার মৃত্যু হয়েছে।

কাজী অফিসে তরুণী ধর্ষিত ॥ মঙ্গলবার সকালে রমনা থানাধীন মগবাজার মোড়ে একটি কাজী অফিসে ২০ বছরের তরুণী ধর্ষিত হয়েছে। পরে পুলিশ ওই তরুণীকে ধর্ষণ করার অভিযোগে নুরুল হুদা (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে। পুলিশ জানায়, কাজী অফিসেই ওই তরুণীর বিয়ে হয়। বিয়ের কাবিননামা উঠাতে আসলে ওই তরুণী ধর্ষণের শিকার হয়। তাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে। রমনা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু সাঈদ জানান, সকালে কামিননামা উঠাতে আসলে কাজীর সহকারী নুরুল হুদা অফিসে একা পেয়ে তাকে ধর্ষণ করে। রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান জানান, ওই ঘটনায় তরুণী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছে। তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে ধর্ষক নুরুল হুদাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অস্ত্রসহ দুই অপরাধী গ্রেফতার ॥ সোমবার রাত ২টার দিকে পুলিশ মোহাম্মদপুর থানাধীন শঙ্কর এলাকা থেকে অস্ত্রসহ দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরা হচ্ছে সুমন (২৫) ও আরিফুল ইসলাম ওরফে আরিফ (২৩)। সোমবার মধ্যরাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মোহাম্মদপুর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার শেখ রাজীবুল ইসলামের নেতৃত্বে এসআই মোঃ রবিউল ইসলামসহ মোহাম্মদপুর থানার পুলিশের একটি টিম মোহাম্মদপুর থানাধীন পশ্চিম ধানমন্ডির শঙ্কর এলাকা থেকে সুমন ও আরিফুলকে আটক করে। পরে গ্রেফতারকৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ওই এলাকার ৪০/১ নম্বর ভবনের নীচতলায় আরিফুল ইসলামের ভাড়া বাসা থেকে দুইটি বিদেশী পিস্তল, একটি রিভলবার ও ১৫ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

ভুয়া মেজর গ্রেফতার ॥ মঙ্গলবার ভোরে পুলিশ গুলশান-২ নম্বর থেকে সোহেল রানা (৪৫) নামে এক ভুয়া মেজরকে গ্রেফতার করে।

প্রকাশিত : ৩ ডিসেম্বর ২০১৪

০৩/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: