আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ইরাকে আইএস নিয়ন্ত্রিত শহরে ছড়িয়ে পড়ছে পানিবাহিত রোগ

প্রকাশিত : ২ ডিসেম্বর ২০১৪

চিকিৎসায় নেই পর্যাপ্ত ওষুধ

জঙ্গী সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) জুন মাসে যখন অভিযান চালিয়ে ইরাকের উত্তরাঞ্চলের দ্বিতীয় বড় শহর দখল করে নেয়, তখন তারা প্রচারণা চালিয়েছিল যে, জিহাদী শাসনের অধীনে জনগণ আরও ভাল থাকতে পারবে। এখন প্রায় ছয় মাস পর ওই শহরের বাসিন্দারা বিশুদ্ধ পানি পাচ্ছে না। এমনকি বিশুদ্ধ পানির অভাবে হওয়া রোগের চিকিৎসায় পর্যাপ্ত ওষুধও নেই। খবর এএফপির।

ইরাক ও প্রতিবেশী দেশ সিরিয়ার বিশাল ভূখ- দখল করে নিয়ে সেখানে ইসলামী খেলাফতের ঘোষণা দিয়েছে আইএস। তবে জুনের অভিযানের পর তারা সেখানে মৌলিক সেবাগুলো দিতে পারছে না, যা ইতোমধ্যেই তাদের অভিলাসকে হ্রাস করে দিচ্ছে। পূর্ব মসুলের এক বাসিন্দা আবু আলী টেলিফোনে বার্তাসংস্থা এএফপিকে বলেছেন, দূষিত পানি পান করে তার স্ত্রী অসুস্থ হয়েছে পড়েছেন। পানি বিশুদ্ধকরণ স্টেশনটি ভেঙে ফেলার কারণে অনেকেই অসুস্থ হয়ে যাচ্ছেন। এখন আমাদের জন্য সবচেয়ে বড় ও বিপজ্জনক সমস্যা হলো এই কঠিন পরিস্থিতি ও পরিসেবার অনুপস্থিতি। বিশুদ্ধ পানি পেতে কিছু লোক এখন কূয়া খনন করছে। চলতি বছর এই সমস্যার শুরু হওয়ার আগে থেকেই ইরাকে মৌলিক পরিসেবার সমস্যা রয়েছে। তবে মসুলে জিহাদীদের শাসনের ফলে দক্ষ সরকারী কর্মকর্তারা পালিয়ে গেছে। মসুলের এক ওয়াটার ট্রিটমেন্ট কর্মকর্তা বলেন, ট্রিটমেন্ট স্টেশন অনেক পুরনো এবং পানি সরবরাহের লাইনও নষ্ট হয়ে গেছে। এছাড়া এখন এখানে শ্রমিকের অভাবও রয়েছে। মসুল জেনারেল হাসপাতালের এক চিকিৎসক বলেছেন, দূষিত পানি পান করার ফলে ২৪ ঘণ্টায় ১৫ জন এ হাসপাতালে এবং আরও নয় জন শহরের অন্য হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

অসুস্থদের মধ্যে বেশিরভাগই শিশু। শহরে পেট ও অন্ত্রের সংক্রমণ এবং হেপাটাইটিসের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে তাদের চিকিৎসার জন্য পর্যাপ্ত ওষুধ নেই। দেশটির নিনেবেহ প্রদেশের স্বাস্থ্য দফতরের এক কর্মকর্তা বলেছেন, ওষুধের মজুদ অনেক কম এবং নিনেবেহ ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিও বন্ধ।

প্রকাশিত : ২ ডিসেম্বর ২০১৪

০২/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: