কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বরিশালে টেন্ডারবাজি নিয়ে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া ॥ পুলিশের লাঠিচার্জ

প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ নগরীতে টেন্ডারের সিডিউল দাখিলকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে সাধারণ ঠিকাদারদের ঘণ্টাব্যাপী ধাওয়া- পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে র‌্যাব ও পুলিশের সদস্যরা লাঠিচার্জ করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নগরীর সরকারী জিলা স্কুলের গণপূর্ত অধিদফতরের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ও বান্দরোডের নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ে। গণপূর্তের বরিশাল প্রকৌশল অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার সাহেবেরহাটে ৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে মেরিন একাডেমি নির্মাণ কাজের জন্য সম্প্রতি দরপত্র আহ্বান করা হয়। মঙ্গলবার দরপত্র দাখিলের শেষদিনে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করে গণপূর্ত প্রকৌশল অধিদফতর। সে অনুযায়ী সাধারণ ঠিকাদাররা দরপত্র দাখিলের জন্য দুটি কার্যালয়ে এসে জড়ো হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওইদিন সকাল থেকে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক ওয়াশিম দেওয়ান তাদের সমর্থকদের নিয়ে বান্দরোডের নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ে অবস্থান নেয়। এ সময় তারা দরপত্র দাখিল করে সাধারণ ঠিকাদারদের কার্যালয়ে ঢুকতে বাধা প্রদান করে। এ নিয়ে বাকবিতা-ার এক পর্যায়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে সাধারণ ঠিকাদারদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে র‌্যাব ও পুলিশের সদস্যরা লাঠিচার্জ করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে। অপরদিকে জিলা স্কুলের তত্ত্বাবাধয়ক প্রকৌশলীর কার্যালয়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের বাধা উপেক্ষা করে একটি দরপত্র দাখিল করেন সদর উপজেলার চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টুর ভাই মশিউর রহমান মিন্টু। এ ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা জসিম ও ওয়াশিম তাঁকে হুমকি দিলে তিনি ভীত হয়ে দরপত্র প্রত্যাহার করার চেষ্টা করেন।

এ সময় তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল গনির হস্তক্ষেপে তা শেষ পর্যন্ত সম্ভব হয়নি। পরে দুটি কার্যালয়েই র‌্যাব ও পুলিশের সহযোগিতায় সাধারণ ঠিকাদাররা দরপত্র দাখিল করে।

প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর ২০১৪

২৬/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: