রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ওবামার প্রতি ॥ রিপাবলিকানদের চ্যালেঞ্জ

প্রকাশিত : ২৩ নভেম্বর ২০১৪

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার মার্কিন অভিবাসন নীতির বিতর্কিত পরিবর্তন নিয়ে তাঁর সঙ্গে রিপাবলিকানদের রাজনৈতিক লড়াই তীব্র রূপ নিয়েছে। হোয়াইট হাউস এ অভিবাসন সংস্কারের পক্ষে আমেরিকান জনগণের সমর্থন আদায়ের জন্য জোর চেষ্টা চালানোর অঙ্গীকার করেছে, আর রিপাবলিকানরা এ সংস্কার সাধনের চেষ্টা ব্যর্থ করে দেয়ার সঙ্কল্প ব্যক্ত করেছেন। আইনসভা কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের রিপাবলিকানরা ওবামার স্বাস্থ্যসেবা আইনকে চ্যালেঞ্জ করে আদালতে মামলা দায়েরও করেছেন। গ্র্যান্ড ওল্ড পার্টি (রিপাবলিকান) অভিবাসন প্রশ্নে প্রেসিডেন্টের নেয়া নির্বাহী ব্যবস্থার সমালোচনা করে চলেছে। আর প্রেসিডেন্ট দেশের ভেঙ্গে পড়া অভিবাসন ব্যবস্থাকে নতুন করে ঢেলে সাজাতে কংগ্রেসকে চাপ দিচ্ছেন। খবর ওয়াশিংটন পোস্ট ও নিউইয়র্ক টাইমস অনলাইনের।

ওবামা তাঁর অভিবাসন সংস্কারের পক্ষে জোর প্রচার শুরু করতে শুক্রবার নেভাডা অঙ্গরাজ্যের লাস ভেগাসে যান। সেখানে তিনি এ সংস্কারের বিরোধিতাকারী রিপাবলিকান সমালোচকদের ভর্ৎসনাও করেন। তিনি সেখানকার একটি স্কুলে ভাষণ দেয়ার সময় ৫০ লাখ কাগজপত্রহীন অভিবাসীকে বহিষ্কারের হাত থেকে রক্ষা করা উচিত বলে আমেরিকান জনগণকে বুঝানোর চেষ্টা করেন। তিনি বলেন, আমরা এমন কোন জাতি নই যারা আমেরিকান স্বপ্নের ভাগী হতে চায় এমন উদ্যমী ও স্বপ্নদর্শী মানুষকে বের করে দেয়। আমরা বিশ্ব থেকে মুখ ঘুরিয়ে রাখতে স্ট্যাচু অব লিবার্টি নির্মাণ করিনি। এর আলো প্রজ্বলিত রাখতেই আমরা সেটি তৈরি করেছিলাম। দেশের ভেঙ্গে পড়া অভিবাসন সংস্কার করতে কংগ্রেসকে অবশ্যই ব্যবস্থা নিতে হবে। রাজধানী ওয়াশিংটনে রিপাাবলিকানরা তাঁদের আক্রমণ শুরু করেছেন। তাঁরা ঘোষণা করেন যে, প্রতিনিধি পরিষদের জিওপি ২০১০ সালের স্বাস্থ্যসেবা আইনের বাস্তবায়ন চ্যালেঞ্জ করে আদালতে এক মামলা দায়ের করেছে। তাঁরা ওবামার অভিবাসন নীতি পরিবর্তনের চেষ্টা ব্যর্থ করে দেয়ারও অঙ্গীকার করেন। প্রতিনিধি পরিষদের স্পীকার জন এ বোয়েনার (রিপাবলিকান ওহাইও) বলেন, আমরা আমাদের সদস্যদের সঙ্গে কাজ করছি এবং আমাদের সামনে খোলা রয়েছে এমন সব উপায়ই বিবেচনা করছি, কিন্তু প্রতিনিধি পরিষদই ব্যবস্থা নেবে। রিপাবলিকানদের ভাষায় ওবামার ‘রাজকীয় প্রেসিডেন্সিয়াল শাসনের’ বিরুদ্ধে সমন্বিত প্রচার চালাতে গিয়ে বোয়েনার মামলা করার কথা ঘোষণা করেন। এর কয়েক মিনিট আগে তিনি অভিবাসন প্রশ্নে ওবামার নির্বাহী নির্দেশ জারির সমালোচনা করেন। মামলাটি ডিস্ট্রিক্ট অব কলম্বিয়ার ইউএস ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে দায়ের করায় হয়। চার মাস আগে প্রতিনিধি পরিষদের রিপাবলিকান সদস্যরা মামলা দায়েরের প্রস্তাব অনুমোদন করেছিলেন। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে কোন কোন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটিতে তাঁর অভিবাসন সম্পর্কিত নির্দেশটিকে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য চাপ দেন। তবে এর বদলে বোয়েনার ওবামার পরিকল্পনার বিরোধিতা করতে প্রতিনিধি পরিষদে পদক্ষেপ নেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। তিনি বলেন, সংবিধান সমুন্নত রাখার বাধ্যবাধকতা প্রতিনিধি পরিষদের রয়েছে এবং ঠিক এ কারণেই আমরা এ কর্মপন্থা অনুসরণ করছি।

ওবামাও তাঁর পদক্ষেপের পক্ষে প্রচার অভিযান চালান। তিনি লাস ভেগাসের ঐ স্কুলে শ্রোতাদের উদ্দেশে বলেন, প্রায় দু’বছর আগে আমি এখানে বলেছিলাম, আমাদের ভেঙ্গে পড়া অভিবাসন ব্যবস্থার সংস্কার করার সময় এসেছে। তিনি যুক্তি দেখান যে, প্রতিনিধি পরিষদে রিপাবলিকানদের নিষ্ক্রিয়তার কারণেই তিনি একতরফা পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছেন।

প্রকাশিত : ২৩ নভেম্বর ২০১৪

২৩/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: