কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আবারও বর্ষসেরা সেরেনা উইলিয়ামস

প্রকাশিত : ২৩ নভেম্বর ২০১৪

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বয়সের সঙ্গে সমান তালে বাড়ছে সেরেনা উইলিয়ামসের পারফর্মেন্স। এই ৩৩ বছর বয়সেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কৃষ্ণকন্যার দাপটের সামনে দাঁড়াতে পারছেন না তরতাজা তরুণীরাও। যার কারণে এবার টানা তৃতীয়বারের মতো ডব্লিউটিএ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপাও জিতে নিশ্চিত করেছেন শীর্ষস্থান ধরে রেখেই বছর শেষ করার। তাই বর্ষসেরা মহিলা টেনিস খেলোয়াড় হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়াটা আগেভাগেই নিশ্চিত হয়েই ছিল সেরেনার। কারণ যোগ্য কোন প্রতিদ্বন্দ্বীই ছিল না তাঁর এক্ষেত্রে। শেষ পর্যন্ত সেরেনাই হয়ে গেলেন বর্ষসেরা। ষষ্ঠবারের মতো তিনি এই মর্যাদা লাভ করে পুরস্কৃত হলেন। গণমাধ্যমের ভোটের মধ্যে ৩৬টিই পেয়েছেন তিনি। উইমেন্স টেনিস এ্যাসোসিয়েশন (ডব্লিউটিএ) পুরস্কারের তালিকা দিয়েছে। সবচেয়ে উন্নয়নশীল খেলোয়াড়ের পুরস্কার পেয়েছেন কানাডার বিস্ময় তরুণী ইউজেনি বাউচার্ড। এ বছর দুর্দান্ত কেটেছে সেরেনার। সর্বশেষ ২৯ ম্যাচের মধ্যে ২৬ ম্যাচেই জিতেছেন তিনি। সবমিলিয়ে ৭টি ট্রফি ঘরেও তুলেছেন। আর ১৮তম গ্র্যান্ডসøাম জিতেছেন ইউএস ওপেনের ট্রফি হাতে তোলার মাধ্যমে। সেরেনা এ বছর জিতেছেন মায়ামি, ব্রিসবেন, রোম, স্ট্যানফোর্ড, সিনসিনাটিতেও। সর্বশেষ সিঙ্গাপুরে বছরের শেষ প্রতিযোগিতা ডব্লিউটিএ ফাইনালে জিতে অটুট রেখেছেন এক নম্বর তারকার আসনটাও। সবমিলিয়ে এ বছর ৬০ ম্যাচ খেলেছেন। হেরেছে মাত্র ৮ ম্যাচে। এর মধ্যে শীর্ষ দশে থাকা খেলোয়াড়দের মুখোমুখি হয়েছেন ১৩ ম্যাচে। অভূতপূর্ব সাফল্য আছে সেখানেও। অন্য শীর্ষ তারকারাও পরাজয়ের গ্লানি বড় করে দিতে পারেননি সেরেনাকে। মাত্র ১ ম্যাচ হেরেছেন তিনি শীর্ষ দশে থাকা কোন খেলোয়াড়ের কাছে। আর এসব নৈপুণ্যই বিচার-বিবেচনার কাজটাকে সহজ করে দিয়েছে। আর কাউকে সেরেনার আশপাশে কল্পনাই করা যায়নি। অবশ্য এ বছরটাও ইনজুরির সমস্যায় ভুগেছেন। বেশ কয়েকটি আসর থেকে নাম প্রত্যাহার করতে হয়েছে এবং বেশকিছু ম্যাচে ওয়ারকওভারও দিয়েছেন প্রতিপক্ষকে। কিন্তু সার্বিক নৈপুণ্যে বিন্দুমাত্র ঘাটতি দেখা যায়নি তাঁর। সে কারণে হ্যাটট্রিকবারের মতো বর্ষসেরা হলেন সেরেনা। দুইবারের বেশি বর্ষসেরার ট্রফি জেতার রেকর্ড মহিলা টেনিসের ইতিহাসে বিরল ঘটনা। এর আগে জার্মান তারকা স্টেফিগ্রাফ ও মার্কিন তারকা মার্টিনা নাভ্রাতিলোভা অনেক বেশিই রেকর্ড গড়ে গেছেন। স্টেফি আটবার এবং নাভ্রাতিলোভা ৭ বার হয়েছেন বর্ষসেরা। সেখানে সেরেনা হলেন ৬ বার। এর আগে ২০০২, ২০০৮, ২০০৯, ২০১২ ও ২০১৩ সালে বর্ষসেরা হয়েছিলেন মার্কিন এ কৃষ্ণতারকা। তাঁর সুযোগ নৈপুণ্য ধরে রাখতে পারলে সবাইকে ছাড়িয়ে যাওয়ার। তবে ৩৩ বছর বয়সী সেরেনার এখন ক্যারিয়ারের শেষের সময়।

প্রকাশিত : ২৩ নভেম্বর ২০১৪

২৩/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: