কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ফের ৫ হাজার পয়েন্টের ওপরে সূচক

প্রকাশিত : ১৩ নভেম্বর ২০১৪

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ আগেরদিনের ধারাবাহিকতায় বুধবারও দেশের উভয় পুঁজিবাজারে মূল্যসূচক বেড়েছে। নতুন ও পুরাতন সব ধরনের কোম্পানির দর বৃদ্ধির দিনে প্রধান বাজারের সব ধরনের সূচক বেড়েছে ১ শতাংশের বেশি । তবে বাছাই সূচকটি বেড়েছে প্রায় ৩ শতাংশ। ফলে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচকটি ফের ৫ হাজার পয়েন্টের ওপরে অবস্থান করছে। সারাদিনে ডিএসইতে ১০টির বেশি কোম্পানির দর বৃদ্ধির সর্বোচ্চ অবস্থানে থেকে লেনদেন শেষ করেছে। প্রাতিষ্ঠানিক ও ব্যক্তি পর্যায়ের সব ধরনের বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণের কারণে দিনটিতে ডিএসইর লেনদেন প্রায় সাড়ে আটশ’ কোটি টাকা ছুঁয়েছে। তবে অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সব ধরনের সূচক বাড়লেও লেনদেন কিছুটা কমেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সকালে সূচকের উর্ধগতি দিয়ে লেনদেন শুরুর পর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সার্বিক সূচক আগেরদিনের চেয়ে ৭০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫ হাজার ৫ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩০৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৭১টির, কমেছে ১০৮টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টি কোম্পানি শেয়ারদর। সেখানে লেনদেন হয়েছে ৮৪৬ কোটি ৩২ লাখ ৫ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এর আগে মঙ্গলবার ডিএসইর সার্বিক সূচকটি অবস্থান করেছে ৪ হাজার ৯৩৪ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ৬৬৮ কোটি ৭৭ লাখ ৮৩ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। সে হিসেবে বুধবার ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১৭৭ কোটি ৫৪ লাখ ২২ হাজার টাকা বা ২৬.৫৪ শতাংশ।

বুধবার ডিএসইর টপ-২০ তালিকায় থাকা কোম্পানিগুলোর মোট ৪০৭ কোটি ৬৮ লাখ ৪৩ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা ডিএসইর মোট লেনদেনের ২৬.৫৪ শতাংশ। এদিন ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি শেয়ার লেনদেন হয়েছে ডেসকোর। দিনভর এ কোম্পানির ৪৪ লাখ ২৭ হাজার ৫০০ শেয়ার ৩৪ কোটি ৩৮ লাখ ৮৪ হাজার ৬০০ টাকায় লেনদেন হয়েছে। এছাড়া ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের ৩৩ কোটি ৯ লাখ, যমুনা অয়েলের ২৯ কোটি ৫৭ লাখ, আরএসআরএম স্টিলসের ২৯ কোটি ৫৭ লাখ, কেয়া কসমেটিকসের ২৬ কোটি ৮১ লাখ, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজের ২৬ কোটি ৪২ লাখ, এমজেএলবিডির ২৩ কোটি ৭৫ লাখ, বরকতুল্লাহ ইলেকট্রো ডায়নামিকের ২২ কোটি ৮ লাখ, বেক্সিমকোর ২০ কোটি ৮৩ লাখ এবং বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেমসের ১৯ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

সারাদিনে ডিএসইতে কয়েকটি কোম্পানির দর সর্বোচ্চ বাড়ার পর বিক্রেতাশূন্য হয়ে যায়। যার কারণে কোম্পানিগুলোর সর্বোচ্চ দরে লেনদেন হয়েছে। দিনটিতে আরএসআরএম স্টিল, বেক্সিমকো, বেক্সিমকো ফার্মা, সোনালী আঁশ, প্রিমিয়ার সিমেন্ট, ন্যাশনাল পলিমার, নদার্ন জুটস, রহিম টেক্সটাইল, আলহাজ টেক্সটাইল, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ারের কোন বিক্রেতা ছিল না। কোম্পানিগুলোর সবর্শেষ প্রান্তিকে আগের তুলনায় মুনাফা এবং লভ্যাংশ ঘোষণা বাড়ার কারণেই বিনিয়োগকারীদের এমন আগ্রহের সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক ১২৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৯৪১৪ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২২৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১০১টির, কমেছে ৮৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টি কোম্পানির। লেনদেন হয়েছে ৬০ কোটি ৫৩ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগেরদিন লেনদেন হয়েছিল ৬৬ কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। সে হিসেবে বুধবার সিএসইতে লেনদেন কমেছে ৫ কোটি ৮৯ লাখ টাকা।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, বেক্সিমকো, খুলনা প্রিন্টিং এ্যান্ড প্যাকেজিং, মবিল যমুনা বিডি, হোটেল পেনিনসুলা, আরএসআরএম স্টিল, কেয়া কসমেটিকস, পদ্মা ওয়েল, ওরিয়ন ইনফিউশন এবং লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট।

প্রকাশিত : ১৩ নভেম্বর ২০১৪

১৩/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: