আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজশাহীতে উধাও লক্কড় ঝক্কড় যানবাহন

প্রকাশিত : ১২ নভেম্বর ২০১৪
  • মিশুক মালিকদের লাইসেন্স দাবি

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ সর্বাত্মক অভিযানের মুখে রাজশাহী অঞ্চলের সড়ক-মহাসড়কে অস্বাভাবিকহারে কমে গেছে মেয়াদোত্তীর্ণ যানবাহন চলাচল। সোমবার অভিযানের প্রথম দিনেই রাজশাহী নগরীর জেলার বিভিন্ন থানায় দুই শতাধিক মামলার পর সোমবার সড়ক থেকে উধাও হয়ে গেছে ফিটনেসবিহীন, লক্কড়-ঝক্কড় ও লাইসেন্সবিহীন বাস, নসিমন করিমন ভটভটি। মঙ্গলবারও অভিযান অব্যাহত রয়েছে নগর ও জেলার বিভিন্ন উপজেলায়।

লাইসেন্স না থাকায় রাজশাহী থেকে বন্ধ হয়ে গেছে প্রায় ৫ শতাধিক সিএনজি চালিত বেবিট্যাক্সি, মিশুক ও থ্রি হুইলার। রাজশাহী নগরে এসব ৭০০ যানবাহনের বেশিরভাগ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সুযোগ সন্ধানী লাইসেন্সধারীরা বাড়িয়ে দিয়েছে ভাড়া। এ নিয়ে যাত্রীদের সঙ্গে এসব যানবাহন চালকদের বাগ্বিত-া হচ্ছে সড়কে সড়কে।

এদিকে রাজশাহী জেলা মিশুক মালিক সমিতির পক্ষ থেকে মঙ্গলবার তাদের যানবাহনের লাইসেন্সের দাবিতে রাজশাহী রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) সহকারী পরিচালকের কাছে স্মারকরিপি দেয়া হয়েছে। স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, তিন বছরের বেশি সময় ধরে সিএনজি চালিত বেবিট্যাক্সি, মিশুক ও থ্রি হুইলারের রেজিস্ট্রেশন বন্ধ রেখেছে বিআরটিএ। ফলে ইচ্ছে থাকলেও অনেকে রেজিস্ট্রেশন করাতে পারেনি। এখন অভিযানের মুখে রেজিস্ট্রেশন না থাকায় তাঁরা সড়কে গাড়ি বের করতে পারছেন না। এতে চরমভাবে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন। জেলা মিশুক মালিক সমিতির সাবেক সভাপতি শাহীন শেখ জানান, সোমবার থেকে রাজশাহীর ৮০ ভাগ সিএনজি চালিত বেবিট্যাক্সি, মিশুক ও থ্রি হুইলারের চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

অভিযানের মুখে বেশিরভাগ বাস মালিক ও চালকরা মঙ্গলবার থেকেই রাস্তায় গাড়ি চলাচল বন্ধ রেখেছেন। ফলে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আগত যাত্রীরা যানবাহন সঙ্কটের কারণে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। এই সুযোগে ভাড়া বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে বিভিন্ন যানবাহনের। ৬০ টাকার ভাড়া ১০০ টাকা পর্যন্ত বাড়িয়ে দিয়েছে বাস ও সিএনজি চালিত বেবিট্যাক্সি, মিশুক ও থ্রি হুইলারের চালকরা। অভিযানের মুখে প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে অবৈধ নসিমন করিমন ভটভটিও।

প্রকাশিত : ১২ নভেম্বর ২০১৪

১২/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: