মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

এবার কি চট্টগ্রামে শতকের আক্ষেপ ঘোচাতে পারবেন তামিম?

প্রকাশিত : ১১ নভেম্বর ২০১৪
এবার কি চট্টগ্রামে শতকের আক্ষেপ ঘোচাতে পারবেন তামিম?
  • বুধবার শুরু তৃতীয় ও শেষ টেস্ট

মিথুন আশরাফ, চট্টগ্রাম থেকে ॥ আবারও কি তামিম ইকবাল কোন নাটক দেখাবেন? যে নাটকটি এর আগে ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি২০ সিরিজের আগে দেখিয়েছিলেন। সহ-অধিনায়কের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন। বলেছিলেন, ‘ব্যাটসম্যান হিসেবে আমি নির্ভার থাকতে চাই। অন্য কোন চাপ নিতে চাই না। তাই এমন সিদ্ধান্ত।’ এবারও তো তামিম সহ-অধিনায়ক। তাহলে কি কোন নাটক দেখা যাবে? যখন বাংলাদেশ দল আবার চট্টগ্রামে খেলতে এসেছে তখন এমন কথা অনেকের মুখেই শোনা যাচ্ছে। তবে তামিমের কাছ থেকে চট্টগ্রামবাসী নাটক চান না, চান চট্টগ্রামে যে এখনও কোন শতক করেননি, সেই অধরা শতকটি দেখতে। তামিম কি চট্টগ্রামে শতক করতে পারবেন? পারবেন চট্টগ্রামে শতকের আক্ষেপ ঘোচাতে?

কোন বিষয় নিয়েই তামিম সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে রাজি নন। খুলনা টেস্টে শতক করার পর তামিম সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে আসেননি। কারণ হিসেবে নাকি দেখিয়েছেন, আরও কয়েকটা দিন সংবাদ মাধ্যমকে এড়িয়ে থাকতে চান। সেই এড়িয়ে থাকা এখনও জারি রয়েছে তামিমের। সোমবার যেমন তাঁর সঙ্গে অনুশীলনের ফাঁকে অনেক চেষ্টার পরও সাংবাদিকরা কথা বলার জন্য সফল হতে পারেননি। চট্টগ্রামের ছেলে তামিম অথচ চট্টগ্রামে এসেও কথা বলতে রাজি নন। সরাসরি, ‘না’ বলে দিতেও দ্বিধা হচ্ছে না তামিমের।

দেশে-বিদেশে মিলিয়ে ৯টি শতক হয়ে গেছে বাংলাদেশ ওপেনার তামিম ইকবালের। টেস্টে ৫টি ও ওয়ানডেতে ৪টি অথচ এখন পর্যন্ত জন্মস্থান চট্টগ্রামের মাটিতেই একটি শতকও পাননি তামিম! চট্টগ্রামবাসীর এ নিয়ে কী আক্ষেপ। সবার আশা অন্তত এবার চট্টগ্রামে একটি শতক করুক তামিম। খুলনা টেস্টের আগে কোচ চন্দ্রিকা হাতুরাসিংহে যেভাবে শুধু তামিমকে নিয়েই ব্যস্ত থাকলেন, তার ফলও মিলেছে। শতক খরায় পড়ে যাওয়া তামিম দীর্ঘ প্রায় সাড়ে চার বছর পর শতক পেয়েছেন। সেই শতকটিও করেছেন ৩৩২ বলে। তবুও তো শতক এসেছে। ধুন্ধুমার ব্যাটিংয়ের পসরা সাজিয়ে দেয়া ওপেনার এবার ধীরগতির ব্যাটিং করে শতক করে দেখালেন। যেভাবেই আসুক তামিমের কাছ থেকে চট্টগ্রামে শতক চাই-ই চাই। সেই শতকের জন্য তামিমও নিশ্চয়ই বুধবার জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে তৃতীয় টেস্টে খেলতে নামবেন। টেস্টে তামিমের ৫ শতকের মধ্যে দুটি এসেছে বাংলাদেশের মাটিতে। ২০১০ সালে মিরপুরে ভারতের বিপক্ষে ১৫১ ও জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে চলমান টেস্ট সিরিজের খুলনা টেস্টে ১০৯ রান করে তামিম। বাকি তিনটির মধ্যে ২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে কিংসটাউনে ১২৮, ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে লর্ডসে ১০৩ ও ম্যানচেস্টারে ১০৮ রান করেন তামিম। কিন্তু এখন পর্যন্ত জন্মস্থান চট্টগ্রামেই নেই তার কোন শতক।

চট্টগ্রামে তামিম এ পর্যন্ত ৯টি টেস্ট খেলেন। ২০০৮ সালে টেস্ট খেলা শুরু করে ৩৬টি টেস্ট খেলেন। কিন্তু একবার শুধু শতকের কাছাকাছি যেতে পারেন। ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ৮৬ রানের ইনিংস খেলেন তামিম। আছে দুটি অর্ধশতকও। কিন্তু নেই কোন শতক। অপূর্ণতা তাই থেকেই যাচ্ছে তামিমের। নিজ ভূমেই যে শতক অধরাই হয়ে আছে।

শুধু টেস্টেই নয়, ওয়ানডেতেও তামিম চট্টগ্রামে শতকের আক্ষেপ ঘোচাতে পারেননি। ২০০৭ সালে ওয়ানডে খেলা শুরু করেন তামিম। সেই থেকে ১৩০টি ওয়ানডে খেলেছেন। দুটি শতক করেছেন দেশের মাটিতে আর দুটি করেছেন দেশের বাইরে। ২০০৮ সালে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মিরপুরে ১২৯, ২০০৯ সালে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে বুলাওয়েতে ১৫৪, ২০১০ সালে মিরপুরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১২৫ ও ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হাম্বানটোটায় ১১২ রানের ইনিংস খেলেন তামিম। কিন্তু চট্টগ্রামে ওয়ানডেতেও তামিমের নেই কোন শতক।

চট্টগ্রামে ১০টি ওয়ানডে খেলেন তামিম। ২০০৮ সালে প্রথমবার চট্টগ্রামে খেলতে নেমেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৮২ রানের ইনিংস খেলেন। এরপর শতকের কাছে কোন ইনিংস খেলতে তামিমকে প্রায় ৩ বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে। ২০১০ সালের ডিসেম্বরে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে শতক করেই ফেলেছিলেন তামিম। মাত্র ৫ রানের জন্য শতক আর করতে পারেননি। ওয়ানডেতে চট্টগ্রামে বড় ইনিংস বলতে এ দুটিই। এছাড়া ৮ ম্যাচের একটিতেও তামিম অর্ধশতকও করতে পারেননি। এবার যখন দল আবার চট্টগ্রামে খেলবে। তামিমের কাছ থেকে চট্টগ্রামবাসী অধরা শতক চান। তামিম কি পারবেন চট্টগ্রামে জন্মস্থানে শতকের আক্ষেপ এবার অন্তত ঘোচাতে?

প্রকাশিত : ১১ নভেম্বর ২০১৪

১১/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: