রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আগামী প্রজন্ম খালেদাকে একদিন কাঠগড়ায় দাঁড়াতে বাধ্য করবে

প্রকাশিত : ৬ নভেম্বর ২০১৪

সংবাদ সম্মেলনে নানক

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যুদ্ধাপরাধীদের গাড়িতে রক্তস্নাত জাতীয় পতাকা তুলে দিয়ে বিএনপিপ্রধান খালেদা জিয়া মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ক্ষতবিক্ষত ও লাখো শহীদের সঙ্গে বেইমানি করেছেন। এ কারণে খালেদা জিয়াও রেহাই পাবেন না। সময়ের ধারাবাহিকতায় সব চলে আসবে, কেউ রক্ষা পাবে না। ইতিহাস কাউকে কোনদিন ক্ষমা করে না। খালেদা জিয়াকে একদিন কাঠগড়ায় দাঁড়াতে আগামী প্রজন্মই বাধ্য করবে।

বুধবার ধানম-ির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক এ কথা বলেন। বঙ্গবন্ধু ও জেল হত্যাকা-ের প্রধান বেনিফিশিয়ারি (লাভবান) স্বৈরশাসক জেনারেল জিয়াউর রহমান দাবি করে তিনি বলেন, জিয়ার নির্দেশনা, পরিকল্পনা ও ষড়যন্ত্রেই ইতিহাসের জঘন্যতম নিষ্ঠুর এ দুটি হত্যাকা- সংঘটিত হয়েছিল।

খালেদা জিয়াকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে আগামী প্রজন্মকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়ে নানক বলেন, একটা সময় দেশে একথা প্রচলিত ছিল যে, ফাঁসির আদেশের স্বাক্ষর ছাড়া জেনারেল জিয়া ব্রেকফাস্ট (নাস্তা) করতেন না। ১৯৮১ সালে দেশে ফেরার পর তৎকালীন শাসক জিয়াউর রহমান শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে চাইছিলেন। কিন্তু শেখ হাসিনা তাঁর সঙ্গে দেখা করেননি।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, জিয়াউর রহমান যতক্ষণ জেগে থাকতেন কালো চশমা পরতেন। খালি চোখে যাঁরা তাঁকে দেখেছেন তাঁরা তাঁর চোখকে হায়েনার রক্তাক্ত চোখের সঙ্গেই তুলনা করেছেন। জেলহত্যার সঙ্গে জিয়াউর রহমানের জড়িত থাকার বিষয়ে বিভিন্ন যুক্তি তুলে ধরে নানক বলেন, জিয়াউর রহমান যদি এ হত্যাকা-ের সঙ্গে জড়িত না থাকবেন তাহলে হত্যাকারীদের কেন আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছিলেন? কেন আত্মস্বীকৃত খুনীদের লালন-পালন করেছিলেন? বিদেশে দূতাবাসে চাকরি দিয়ে কেন পুরস্কৃত করেছিলেন? শমশের মুবিন চৌধুরী আজ যিনি খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা, তিনি কেন জেলখানায় চিহ্নিত হত্যাকারীদের বিশেষ বিমানে ব্যাংকক পৌঁছে দিয়েছিলেন? বিএনপি নেতৃত্ব কী অস্বীকার করতে পারবেন শমশের মুবিন চৌধুরী জিয়াউর রহমানের সরাসরি হুকুম পালন করেননি? ইনডেমনিটি অর্ডিন্যান্স জারি করে এ নৃশংস হত্যাকা-ের দায়মুক্তি জিয়া কেন দিয়েছিলেন?

বিএনপির প্রতি প্রশ্ন রেখে জাহাঙ্গীর কবির নানক আরও বলেন, জিয়াউর রহমান কি বঙ্গবন্ধু ও জেল হত্যাকা-ের খুনীদের পৃষ্ঠপোষকতা দান করে রাজনৈতিক দল গঠনের সুযোগ দেননি? জিয়া কি এই খুনীদের আওয়ামী লীগ ও দেশের প্রগতিশীল শক্তির বিরুদ্ধে লেলিয়ে দেননি? জেল হত্যাকা-ের অভিযোগে অভিযুক্ত কেএম ওবায়দুর রহমান, নুরুল ইসলাম মঞ্জু গংরা কোন দলের নেতা হিসেবে মৃত্যুবরণ করেছেন? শাহ মোয়াজ্জেম আজও কোন দলের নেতা? বিএনপি নেতাদের এসব প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। তিনি বলেন, জেলহত্যা দিবস এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেশে ফিরে আসা নিয়ে বিএনপি নামক দলটি মিথ্যাচারে মেতে উঠেছে। তবে তারা মিথ্যাচার করে দেশবাসীকে বিভ্রান্ত করতে পারবে না। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী যে মধ্যবর্তী সর্বনাশের কথা বলেছেন, তা প্রকাশ্য দেশের বিরুদ্ধে হুমকির নামান্তর।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, দফতর সম্পাদক এ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান খান এমপি, উপ-দফতর সম্পাদক এ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।

প্রকাশিত : ৬ নভেম্বর ২০১৪

০৬/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: