আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

১২ ডিজিটের টিআইএন না থাকলে বাড়তি কর

প্রকাশিত : ৪ নভেম্বর ২০১৪

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বার ডিজিটের টিআইএনধারীরা (ইটিআইএন) ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমা রাখা যে কোন আমানতে বেশি হারে সুদ পাবেন। অর্থাৎ যেসব করদাতা ১২ ডিজিটের টিআইএন নিবন্ধন করেছেন, তাঁদের আমানতের মুনাফা থেকে কম কর কেটে রাখা হবে।

আর যেসব করদাতা ইতোমধ্যেই তাঁদের পুরনো ১০ ডিজিটের টিআইএন পুনঃনিবন্ধন করে ১২ ডিজিটে রূপান্তর করেছেন তাঁরা এবং নতুন করে যাঁরা টিআইএন নিবন্ধন করেছেন, ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানে রাখা তাঁদের আমানতের মুনাফার ওপর থেকে ১০ শতাংশ হারে উৎসে কর কেটে রাখা হবে।

আর যাঁদের ১২ ডিজিটের টিআইএন নেই বা এখনও কোন টিআইএন খোলেননি, তাঁদের আমানতের সুদ বা মুনাফার ওপর থেকে ১৫ শতাংশ হারে উৎসে কর কাটবে এনবিআর।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এ সংক্রান্ত একটি আদেশ জারি করেছে, যা গত রবিবার একটি সার্কুলারের মাধ্যমে সব ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এনবিআরের আদেশে বলা হয়েছে, অর্থ আইন ২০১৪ এর মাধ্যমে আয়কর অধ্যাদেশ ১৯৮৪ এর ৫৩ এফ ধারায় সংশোধনী আনা হয়েছে। সেই সংশোধনীর আলোকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এ মর্মে নির্দেশনা প্রদান করছে যে, সকল তফসিলি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান তাদের প্রত্যেক গ্রাহকের হিসাবে যেদিন সুদ/মুনাফা ক্রেডিট বা জমা প্রদান করবে, সেই তারিখে ১২ ডিজিটের টিআইএন থাকলে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান সেই গ্রাহকের সুদ বা মুনাফা থেকে ১০ শতাংশ হারে উৎসে কর কর্তন করতে হবে। আর যদি ওই তারিখে ১২ ডিজিটের টিআইএন না থাকে তাহলে সুদ/মুনাফার ওপর ১৫ শতাংশ হারে উৎসে কর কর্তন করতে হবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সার্কুলারে এনবিআরের এই নির্দেশনা সব শাখাকে অনুসরণ এবং পরিপালন করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এনবিআরের আয়কর বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, কয়েক দফা সুযোগ দেয়ার পর এবার ইটিআইএন (১২ ডিজিটের টিআইএন) ছাড়া করদাতাদের রিটার্ন জমা নেয়া হচ্ছে না। অর্থাৎ যারা পুরনো ১০ ডিজিটের টিআইএন ১২ ডিজিটে রূপান্তর করেছেন এবং নতুন করে যারা ১২ ডিজিটের টিআইএন খুলছেন তাদেরই রিটার্ন জমা নেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, এতদিন পুরনো ১০ ডিজিটের টিআইএনধারীরা ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমা রাখা টাকার মুনাফা তুলতে গিয়ে যে বাড়তি সুবিধা পেতেন ১২ ডিজিটের টিআইএনধারীরাও সেই একই সুবিধা পাবেন।

আর যাঁরা তাঁদের টিআইএন ১২ ডিজিটে রূপান্তর করেননি তাঁরা এ সুবিধা পাবেন না বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

এদিকে ব্যক্তি-শ্রেণীর করদাতাদের আয়কর রিটার্ন জমার মেয়াদ আরও এক মাস বাড়ানো হয়েছে। এখন পুরো নবেম্বর মাসজুড়ে রিটার্ন জমা দিতে পারবেন করদাতারা। বর্ধিত সময়সূচী অনুযায়ী রবিবার ছিল রিটার্ন জমা দেয়ার শেষ দিন। তা বাড়িয়ে ৩০ নবেম্বর পর্যন্ত সুযোগ দেয়া হয়েছে।

প্রকাশিত : ৪ নভেম্বর ২০১৪

০৪/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: