আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নোয়াখালীতে হিন্দু বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ॥ হত্যার হুমকি

প্রকাশিত : ২৯ অক্টোবর ২০১৪

বখাটে আটকের জের

নিজস্ব সংবাদদাতা, নোয়াখালী, ২৮ অক্টোবর ॥ নোয়াখালী শহরের সোনাপুরে বখাটে আটকের জের ধরে হিন্দুবাড়িতে হামলা চালিয়ে বসতঘর ভাংচুর ও কুপিয়ে তছনছ করেছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় বখাটেরা পরিবারের সবাইকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। মঙ্গলবার নোয়াখালী পৌরসভার সোনাপুরের শ্রীপুর গ্রামের মহাশ্মশান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে সুধারাম থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ঘটনায় হামলার শিকার নিখিল কর্মকার বাদী হয়ে দুজনের নাম উল্লেখ করে এবং কয়েকজনকে অজ্ঞাত আসামি করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। তবে এ ঘটনায় পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

হামলার শিকার ক্ষতিগ্রস্ত নিখিল কর্মকার ও তার স্ত্রী পুষ্পরাণী কর্মকার বলেন, সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে করিমপুর গ্রামের আমির হোসেন ওরফে প-িত মোহরারের বখাটে ছেলে মাদকসেবী শাওন (২২) তাদের বসতঘরের বারান্দায় ঢুকে পড়ে। বিষয়টি বুঝতে পেরে মেয়ে সোনালী কর্মকার আমাদের দরজা খুলতে বলে। আমরা দরজা খুলতেই বখাটে শাওন পালানোর চেষ্টা করে। পরবর্তীতে বাড়ির অন্যান্য লোকজন তাকে ধাওয়া করলে সে পার্শ্ববর্তী একটি পুকুরে পড়ে যায়। সেখান থেকে তাকে তুলে স্থানীয় কিছু লোকজনের উপস্থিতিতে বখাটের বাবাকে ফোনে বিষয়টি জানানো হয়। তার বাবার অনুরোধে এবং উপযুক্ত বিচার করার আশ্বাসে মঙ্গলবার ভোরের দিকে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

এক পর্যায়ে সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে বখাটে শাওন আরও দুজনকে সঙ্গে নিয়ে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রসহ নিখিলের বসতঘরে হামলা চালায়। এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ঘর-দরজা তছনছ করে, অকথ্য ভাষায় গালমন্দ এবং সবাইকে হত্যা করার হুমকি দেয়। ভয়ে পেছনের দরজা দিয়ে তার মেয়ে ও স্ত্রী পার্শ্ববর্তী মহাশ্মশানে গিয়ে আশ্রয় নেয়। তাদের চিৎকারে আশপাশ থেকে লোকজন এসে জড়ো হলে শাওন ও তার সঙ্গীরা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

প্রকাশিত : ২৯ অক্টোবর ২০১৪

২৯/১০/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: