আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চীনের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিয়ে আশা বিশেষজ্ঞদের

প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৪

পূর্বাভাস সঠিকতা নিয়ে একমত নন গবেষকরা

চীনের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার নিম্নমুখী হচ্ছে বলে সম্প্রতি বিভিন্ন গবেষণা ও আর্থিক প্রতিবেদনে পূর্বাভাষ করা হচ্ছে। আবাসন শিল্পের অস্বাভাবিক সম্প্রসারণ এবং অনাদায়ী ঋণের পরিমাণ বেড়ে যাওয়া এসব অনুমানের ভিত্তি। তবে বিশেষজ্ঞদের এসব হিসাব-নিকাশ পাস কাটিয়ে সর্বশেষ আর্থিক জরিপে আভাস যাচ্ছে যে চলতি কোয়ার্টার এবং আগামী বছর চীনের প্রবৃদ্ধির হার উর্ধমুখী থাকবে। এ থেকে ধারণা চীনের অর্থনীতি এখন শক্ত ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে আছে। বিশ্ব অর্থনীতির টালমাটাল অবস্থার প্রভাব কাটাতে অনেকটাই সামর্থ্য রাখে চীন। ইন্টারন্যাশনাল নিউইয়র্ক টাইমস।

অর্গানাইজেশন ফর ইকনোমিক কো-অপারেশন এ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট এবং বিশ্বব্যাংকের মতো আন্তর্জাতিক এজেন্সি এবং মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোও মনে করে, চীনের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির উর্ধমুখী হার আগামী কয়েক দশক অব্যাহত থাকবে। নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ রবার্ট ফোগেল ২০১০ সালে পূর্বাভাস করেছিলেন যে, চীনা অর্থনীতি এক সময় মার্কিন অর্থনীতিকে ছাপিয়ে যাবে। তার মতে, ২০৪০ সালে চীনের আউটপুটের পরিমাণ হবে ১২৩ ট্রিলিয়ন। এটা ওই সময়ের মার্কিন অর্থনীতির তিনগুণ বেশি হবে। চীনা অর্থনীতি নিয়ে এসব কথাবার্তা অধিকাংশই পূর্বাভাসমূলক। বিশ্লেষকরা বলছেন, ইতিহাসের দিকে তাকালে বোঝায় যায় এসব পূর্বাভাস অধিকাংশ ক্ষেত্রে সঠিক থাকে না। তবে পূর্বাভাস অনুযায়ী ৬ থেকে ১০ শতাংশের অস্বাভাবিক প্রবৃদ্ধির হার অন্তত দুই দশক অব্যাহত থাকলে ধরে নেয়া যাবে অর্থনীতিবিদদের অনুমান সঠিক ছিল।

হার্ভার্ডের অর্থনীতিবিদ ল্যান্ট প্রিচেট এবং লরেন্স সামারস তাদের নতুন গবেষণাপত্রে উল্লেখ করেছেন, অতীত অর্থনীতি দিয়ে ভবিষ্যতের অনুমান করা যায় না। আজ যা হচ্ছে চাহিদা ও সরবরাহের প্রেক্ষাপটে আগামীতে পরিস্থিতি সেরকম নাও থাকতে পারে। ১৯৭৭ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত চীনের অর্থনীতি উর্ধমুখী ছিল। তবে ভবিষ্যতে এই ধারা অব্যাহত থাকবে কিনা সেটি নিশ্চিত করে বলা সম্ভব নয়।

প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৪

২৬/১০/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: