Daily Janakantha http://www.dailyjanakantha.com Read our Online news, within moment. en-us 2017-07-26T12:51:15+0000 http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283153/জবি-নিলদলের-নতুন-কমিটিতে-সভাপতি-গোস্বামী-সেক্রেটারি http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283153/জবি-নিলদলের-নতুন-কমিটিতে-সভাপতি-গোস্বামী-সেক্রেটারি 2017-07-26T07:44:32+0000 Daily Janakantha জবি সংবাদদাতা ॥ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী আওয়ামী ও প্রগতিশীল ধারার শিক্ষকদের সংগঠন নীল দলের সভাপতি ...

জবি নিলদলের নতুন কমিটিতে সভাপতি গোস্বামী, সেক্রেটারি মাসুদ

 

জাতীয়

Daily Janakantha

জবি সংবাদদাতা ॥ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী আওয়ামী ও প্রগতিশীল ধারার শিক্ষকদের সংগঠন নীল দলের সভাপতি রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. অরুন কুমার গোস্বামী ও প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আবদুল্লাহ আল মাসুদকে সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনিত করে একটি নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।


বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে নীল দলের এ নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। তবে এ কমিটি থেকে বাদ পড়েছে নীল দলের শিক্ষকদের দ্বিতীয় অংশের সমস্ত শিক্ষক বলে জানা গেছে।


২০১৭-১৮ মেয়াদের কমিটির অন্যান্যরা হলেন সহসভাপতি ড. মো: শাহজাহান ও ক্রিষ্টিন রিচার্ডসন, কোষাধ্যক্ষ ড. শামীমা বেগম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. মোস্তফা কামাল ও শামছুল কবির, সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার মোন্তাসির হাসান।


কমিটির সদস্যরা হলেন ড. মো: ইব্রাহীম খলিল, ড. এ কে এম মাহবুবুল হক, বিভাস কুমার সরকার, নাজমুন নাহার , শেখ মাশরিক হাসান, মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ তাসফিক, মো: মহিউদ্দিন, কাজী নুর হোসেন, মো: ফারিজুল ইসলাম, মো: আসাদুজ্জামান ও কাজী ফারুক হোসেন।


এ বিষয়ে ২০১৬-১৭ মেয়াদের সাবেক সভাপতি অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. আইনুল ইসলাম জনকণ্ঠকে বলেন, আমরা নীলদেলর গঠনতন্ত্র অনুযায়ী নির্বাচন কমিশনের অধীনে ৩১ জুলাই নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছি। যদি সাদা দল অংশ গ্রহন না করে তা হলে নীল দলের দুইটি অংশ থেকে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে একটি সুষম কমিটি গঠনের প্রস্তাবও করেছি। অথচ আমাদের কাউকে কোনকিছু না জানিয়ে তারা আজকে নতুন কমিটি ঘোষণা দিয়েছে।


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283152/টানা-বর্ষণে-চরম-দুর্ভোগ-রাজধানীবাসীর http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283152/টানা-বর্ষণে-চরম-দুর্ভোগ-রাজধানীবাসীর 2017-07-26T07:43:09+0000 Daily Janakantha জনকণ্ঠ রিপোর্ট ॥ কয়েকদিনের টানা ও ভারী বৃষ্টিতে রাজধানীবাসীসহ সারাদেশের মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েছে। কখনো থেমে থেমে বৃষ্টি আবার কখনো ...

টানা বর্ষণে চরম দুর্ভোগ রাজধানীবাসীর

 

জাতীয়

Daily Janakantha

জনকণ্ঠ রিপোর্ট ॥ কয়েকদিনের টানা ও ভারী বৃষ্টিতে রাজধানীবাসীসহ সারাদেশের মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েছে। কখনো থেমে থেমে বৃষ্টি আবার কখনো টানা বৃষ্টি পড়ছে। বৃষ্টির কারণে অফিসগামী লোকজন ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা পড়েছে বিপাকে।

সারাদিনের বৃষ্টিতে অনেকে ঘর থেকে বের হতে পারছেন না। বৃষ্টির কারণে রাজধানীর প্রায় অধিকাংশ সড়ক পানিতে ডুবে গেছে। শহরের অলি-গলিতে কোথাও হাঁটু পানি আবার কোথাও দেখা যাচ্ছে কোমর পানি। এ অবস্থায় যান-বাহনও চলার অবস্থায় নেই সিটি করপোরেশনের রাস্তাগুলোতে। যানবাহনের সংকটের কারণে অনেকেই হেঁটে রওনা দেন কর্মস্থলের দিকে। সুযোগ বুঝে রিকশাওয়ালা ও সিএনজিচালকেরা ভাড়া হাঁকেন দ্বিগুণেরও বেশি। বাধ্য হয়ে তাঁদের দাবিই মেনে নিতে হয় যাত্রীদের। বৃষ্টির ভোগান্তির পাশাপাশি রিকশা ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালকদের এমন ব্যবহারে অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন।


লঘুচাপের প্রভাবে ঢাকাসহ সারা দেশেই গত রবিবার থেকে ভারি বর্ষণ চলছে। টানা বৃষ্টিতে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে পানি জমে যাওয়ায় যানবাহনের গতি কমে সৃষ্টি হচ্ছে জট। বিভিন্ন এলাকায় উন্নয়ন কাজের জন্য বেহাল রাস্তায় ছোটখাটো দুর্ঘটনাও ঘটছে। এর মধ্যে গণপরিবহন কম থাকায় চরম আকার ধারণ করেছে মানুষের দুর্ভোগ। সকালে বৃষ্টির মধ্যে প্রায় কেউই সময়মতো কর্মস্থলে পৌঁছাতে পারেননি।


সকালে বাচ্চা নিয়ে স্কুলে যাওয়ার সময় বৃষ্টি বিড়ম্বনায় পরে ৫০ টাকায় রিক্সা ভাড়া ১২০ টাকায় যান মাহমুদা খানম। তবে গতির পানি রিক্সার উপরেও উঠে আসছিল বলেও জানান তিনি।

বেসরকারি চাকুরিজীবী আলিম। যিনি মিরপুর থেকে বাংলামোটর আসতে সময় লেগেছে বেশি ভাড়াও দিয়ে এসেছেন বেশি। তিনি জানান, কিছুই করার ছিলো না কোন সিএনজি আসেত চায়না। তাই বেশি ভাড়া গুনতে হয়েছে আমাকে। এরকম অবস্থা রাজধানীর অধিকাংশ নাগারিকেরই। রাজধানীর মগবাজারের একটু সামনে রাস্তায় গাড়ি পার্কিং করে গাড়ির ভেতর থেকে পানি বের করতে দেখা গেছে এক ড্রাইভারকে। পাশেই দাঁড়িয়ে প্রাইভেটকারের মালিক জানান তিনি যে পথ দিয়ে এসেছেন সেখানে প্রাইভেট ভিতরে পানি প্রবেশ করেছে কিছুই করার ছিলো না, এতো পানি বুঝতে পারিনাই প্রথমে।

এদিকে, বৃষ্টির কারণে যানজট লেগে আছে সারাদিন ধরে। বৃষ্টির সঙ্গে যানজট জনজীবন দুর্বিষহ করে তুলেছে।

একাদিক যাত্রী ও ড্রাইভারদের কাছে জানা গেছে, ধানমন্ডি ২৭ নম্বর সড়কে সকাল সাতটা থেকেই গাড়ি চলাচল প্রায় বন্ধ। সাত মসজিদ সড়কসহ আশপাশের এলাকার রাস্তাগুলোও ছিল চরম যানজটের কবলে। এদিকে, জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউয়ের অনেকটা এলাকাজুড়ে পানি জমে যাওয়ায় মিরপুর, গাবতলী ও মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে আসা ব্যক্তিগত গাড়িগুলো ওই সড়কে না গিয়ে সোজা যাওয়ার চেষ্টা করছে। এ কারণে মিরপুর সড়কে অতিরিক্ত চাপ পড়ায় আসাদগেট এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে চরম যানজট। এ ছাড়া মিরপুর, বাড্ডা, রাজারবাগ, পুরান ঢাকাসহ অধিকাংশ এলাকায় কোথাও হাঁটু পানি কোথাও হাঁটুর উপরে।


এদিকে, দুপুরের পর থেকে আকাশ মেঘলা থাকলেও বৃষ্টি নেই রাজধানীতে। আবহাওয়া অফিসও জানিয়েছে একই কথা। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার থেকে বৃষ্টি কমে যেতে পারে। যার লক্ষণ দেখা যেতে পারে বুধবার দুপুরের পর থেকেই। আজ বুধবার সকাল থেকে সমুদ্রবন্দরগুলো থেকে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত নামিয়ে ১ নম্বর সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।



The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283151/বরিশালে-বাল্কহেডের-ধাক্কায়-ট্রলার-ডুবি http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283151/বরিশালে-বাল্কহেডের-ধাক্কায়-ট্রলার-ডুবি 2017-07-26T07:26:13+0000 Daily Janakantha স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলার সুগন্ধা নদীর মোহনায় খাপুরার খালে বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় বালু ভর্তি বাল্কহেডের ধাক্কার ...

বরিশালে বাল্কহেডের ধাক্কায় ট্রলার ডুবি

 

দেশের খবর

Daily Janakantha

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলার সুগন্ধা নদীর মোহনায় খাপুরার খালে বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় বালু ভর্তি বাল্কহেডের ধাক্কার মাছ ভর্তি একটি ইঞ্জিন চালিত ট্রলার ডুবে গেছে। এতে কোন হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও প্রায় অর্ধলাখ টাকার মাছ নদীতে ভেসে গেছে।


ডুবে যাওয়া মাছের ট্রলার মালিক অমল বিশ্বাস জানান, উজিরপুরের হারতা বন্দর থেকে মাছ বিক্রির উদ্দেশ্যে বাবুগঞ্জ বন্দরের খাপুরার খালে প্রবেশ করে ঘাটে ট্রলার নোঙর করে রাখা হয়। এ সময় পিছন দিক থেকে এমভি হযরত শাহ্জালাল (রাঃ) নামের বালু ভর্তি একটি বাল্কহেড মাছের ট্রলারটিকে প্রচন্ড বেগে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ট্রলারটি ডুবে ট্রলারে থাকা ১৫ মন পাঙ্গাস ও তেলাপিয়া মাছ পানিতে ভেসে যায়।


বাল্কহেডের চালক মোহাম্মদ আলী জানান, প্রচন্ড স্রোতের কারণে বাল্কহেডটি নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ হওয়ায় এ দূর্ঘটনা ঘটেছে। বাবুগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সালাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283150/শেরপুর-শহরে-অবৈধ-স্থাপনা-উচ্ছেদ-অভিযান http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283150/শেরপুর-শহরে-অবৈধ-স্থাপনা-উচ্ছেদ-অভিযান 2017-07-26T07:22:41+0000 Daily Janakantha নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর ॥ শেরপুর শহরে রাস্তার পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে শেরপুর পৌরসভা। বুধবার দুপুর থেকে শুরু হয় ...

শেরপুর শহরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

 

দেশের খবর

Daily Janakantha

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর ॥ শেরপুর শহরে রাস্তার পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে শেরপুর পৌরসভা। বুধবার দুপুর থেকে শুরু হয় ওই উচ্ছেদ অভিযান। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ও পৌরসভার সহায়তায় পরিচালিত অভিযানে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মেজবাউল আলম ভূইয়া, পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী রেজাউল করিম, সহকারী প্রকৌশলী খোরশেদুজ্জামান, বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা শরিফ উদ্দিন, বাজার পরিদর্শক রফিকুজ্জামান ঝন্টু ও পুলিশের এসআই বকুল সাহার উপস্থিতিতে মাথায় লাল কাপড় বাঁধা বেশ কিছু শ্রমিক উচ্ছেদে অংশ নেয়।


অভিযানের শুরুতেই জেলা শহরের থানা মোড়ের একটি রেস্তোরার বর্ধিত অংশ, কয়েকটি দোকানপাটের বর্ধিত অংশ বুলডোজার দিয়ে ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়া হয়। পরে থানা মোড় থেকে নিউমার্কেট মোড়, শহীদ বুলবুল সড়ক মোড়, গোয়ালপট্টি ও চকবাজার এলাকার বিভিন্ন অবৈধ স্থাপনাসহ ফুটপাতে বসা হকারদের দোকান-পাটও উচ্ছেদ করা হয়।


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283149/নির্বাচন-কমিশন-সম্পূর্ণ-স্বাধীন-প্রধানমন্ত্রী http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283149/নির্বাচন-কমিশন-সম্পূর্ণ-স্বাধীন-প্রধানমন্ত্রী 2017-07-26T07:11:03+0000 Daily Janakantha অনলাইন ডেস্ক ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নির্বাচন কমিশন একটি স্বাধীন স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান এবং এটি সম্পূর্ণ স্বাধীনভাবেই কাজ করছে। তিনি ...

নির্বাচন কমিশন সম্পূর্ণ স্বাধীন : প্রধানমন্ত্রী

 

জাতীয়

Daily Janakantha

অনলাইন ডেস্ক ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নির্বাচন কমিশন একটি স্বাধীন স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান এবং এটি সম্পূর্ণ স্বাধীনভাবেই কাজ করছে। তিনি বলেন, ‘সিদ্ধান্ত গ্রহণের সর্বক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশন সম্পূর্ণ স্বাধীনভাবেই কাজ করছে।’

তিনি আজ তাঁর তেজগাঁওস্থ কার্যালয়ে ফরাসি রাষ্ট্রদূত সোফি অবার এর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে একথা বলেন।


বৈঠকের পরে প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। বৈঠকে ফরাসি রাষ্ট্রদূত নির্বাচন কমিশনের স্মার্ট কার্ড প্রকল্পের প্রশংসা করে বলেন, এই প্রকল্পটি ফরাসি প্রতিষ্ঠান ওবের্থার টেকনোলজিস (ওটি)-এর সহযোগিতায় বাস্তবায়িত হচ্ছে। এই প্রকল্পটি যথাযথভাবে সম্পন্ন করার জন্য সোফি প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি বলেন, ফরাসি সরকার রাজনৈতিকভাবেই বাংলাদেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই প্রকল্পটি দ্রুত সম্পন্ন করার জন্য সব রকমের সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছে।

এ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা আশা প্রকাশ করেন, ফরাসি কোম্পানী যথাযথ মান অক্ষুন্ন রেখে যেন যথাসময়ে এই প্রকল্পের কাজ শেষ করতে পারে। ফরাসি রাষ্ট্রদূত এ সময় ফরাসি প্রতিষ্ঠান থ্যালেস অ্যালেনিয়া স্পেসের সহযোগিতায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নির্মাণের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলাতেও সন্তোষ প্রকাশ করেন। বৈঠকের শুরুতে ফরাসি রাষ্ট্রদূত ফরাসি প্রধানমন্ত্রী এডুয়ার্ড ফিলিপের একটি চিঠিও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট হাস্তান্তর করেন।


চিঠিতে ফিলিপ বলেন, ২০১৭ সালে আমরা আমাদের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ৪৫তম বর্ষ উদযাপন করছি। আমি আশা করি, আমরা আমাদের পারস্পরিক সহযোগিতা জোরদার অব্যাহত রেখে বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে যেমন জলবায়ু পরিবর্তন এবং টেকসই উন্নয়ন জোরদারকরণেও আমাদের সহযোগিতার ক্ষেত্রকে আরো প্রসারিত করতে সক্ষম হব। প্রধানমন্ত্রী এ সময় বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে ফরাসিদের অবদান শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে ফরাসি সরকারের বর্তমান তরুণ নেতৃত্বকেও স্বাগত জানান। এ বছরের অক্টোবরের শেষ নাগাদ ইউনেস্কোর অনুষ্ঠেয় একটি অনুষ্ঠানে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরনের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য অধির অপেক্ষায় আছেন বলেও প্রধানমন্ত্রী এ সময় উল্লেখ করেন।


প্রধানমন্ত্রীর কার্যালযের সিনিয়র সচিব সুরাইয়া বেগম এবং প্রতিরক্ষা সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহম্মদ জয়নুল আবেদীন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283148/সীতাকুন্ডে-জাল-টাকাসহ-স্বামী-স্ত্রী-আটক http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283148/সীতাকুন্ডে-জাল-টাকাসহ-স্বামী-স্ত্রী-আটক 2017-07-26T07:05:35+0000 Daily Janakantha নিজস্ব সংবাদদাতা, সীতাকুন্ড, চট্টগ্রাম ॥ চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড জাল টাকাসহ স্বামী-স্ত্রীকে আটক করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতেই উপজেলার বাঁশবাড়িয়া বাবু নগর ...

সীতাকুন্ডে জাল টাকাসহ স্বামী-স্ত্রী আটক

 

দেশের খবর

Daily Janakantha

নিজস্ব সংবাদদাতা, সীতাকুন্ড, চট্টগ্রাম ॥ চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড জাল টাকাসহ স্বামী-স্ত্রীকে আটক করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতেই উপজেলার বাঁশবাড়িয়া বাবু নগর এলাকায় জাহেদের ভাড়া ঘর থেকে তাদের আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো ছোট কুমিরা মসজিদ্দা চৌধুরীর বাড়ির মো.আফছারের পুত্র স্বামী মো.ফরহাদ হোসেন(২৪) ও স্ত্রী মনি আক্তার বৃষ্টি(১৯)।

জানা যায়, উপজেলার ছোট কুমিরা চৌধুরী বাড়ির বাসিন্দা পাশবর্ত্বী বাঁশবাড়িয়া ইউনিয়ন এলাকায় দীর্ঘদিন ভাড়া ঘরে বসবাস করে আসছিল। ভাড়া ঘরে বসবাসের মাঝে স্বামী-স্ত্রী দু‘জনেই জাল টাকার ব্যবসা করে আসছে। পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাতেই জাল টাকা কিনার জন্য অভিনয় করে।

পরে পুলিশের কাছে জাল টাকা বিক্রি করতে গিয়ে স্বামী-স্ত্রী আটক হয়। আটককৃত স্বামী কাছ থেকে ২৭ হাজার ও স্ত্রী কাছ থেকে ১৮ হাজার মোট ৪৫ হাজার নকল টাকা উদ্ধার করেন পুলিশ। আটক দম্পতি দীর্ঘদিন ধরে জাল টাকার ব্যবসা করে আসছিল। আটককৃত আসামীদের মামলা পরবর্তী গ্রেফতার দেখিয়ে বুধবার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সীতাকু- থানার উপ-পরিদর্শক মো.গোলাম আযম ভ’ইয়া বলেন,‘দীর্ঘ সময় জাল টাকার ব্যবসায়ী এই দম্পতির পিছনে আমি কাজ করছিলাম। মঙ্গলবার রাতেই দম্পতিকে হাতেনাতে ৪৫ হাজার জাল টাকাসহ উদ্ধার করে মামলা পরবর্ত্বী জেল হাজতে প্রেরণ করেছি।’


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283147/নিজের-থেকে-১৮-বছরের-বড়-ক্রিকেটারের-জন্য http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283147/নিজের-থেকে-১৮-বছরের-বড়-ক্রিকেটারের-জন্য 2017-07-26T07:01:59+0000 Daily Janakantha অনলাইন ডেস্ক ॥ তিনি ধক ধক গার্ল। তাঁর হাসির প্রেমে পড়েননি এমন সিনেপ্রেমী খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। পর্দায় তাঁর উপস্থিতি হাজার ...

নিজের থেকে ১৮ বছরের বড় ক্রিকেটারের জন্য পাগল ছিলেন মাধুরী

 

সংস্কৃতি অঙ্গন

Daily Janakantha

অনলাইন ডেস্ক ॥ তিনি ধক ধক গার্ল। তাঁর হাসির প্রেমে পড়েননি এমন সিনেপ্রেমী খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। পর্দায় তাঁর উপস্থিতি হাজার হাজার পুরুষের বুকে ঝড় তোলে। কিন্তু সেই মাধুরী দীক্ষিতের মনে ঝড় তুলেছিল কে?

ভাবছেন, নিশ্চয়ই মাধুরীর মনের গোপনতম জায়গাটি দখল করে রয়েছেন তাঁর স্বামী শ্রীরাম নেনে। নাহ! ভুল ভাবছেন। স্বামী শ্রীরাম নন। এক সময় মাধুরীর সঙ্গে নাম জড়িয়েছিল পর্দায় তাঁর সফলতম নায়কদেরও। কিন্তু নায়িকার পছন্দের তালিকায় নেই আনিল কপূর বা সঞ্জয় দত্তও। মাধুরীর পছন্দ সিনে জগতের বাইরের এক মানুষ। তাঁকে দেশের অন্যতম সফল ক্রিকেটারও বলা যায়। এ বার গেস করতে পারলেন কার কথা বলা হচ্ছে?

মাধুরীর পছন্দের মানুষটি আর কেউ নন, সুনীল গাভাস্কার। একবার এক সাক্ষাৎকারে মাধুরী নিজেই জানিয়েছিলেন এ কথা। নিজের থেকে ১৮ বছরের বড় এই ক্রিকেটারকে যখন মাঠে নামতে দেখতেন, তখনই মুগ্ধ হতেন। শুধু তাই নয়, সুনীলের জন্য যে তিনি পাগল ছিলেন সে কথাও নিজ মুখেই স্বীকার করেছিলেন নায়িকা। এমনকী সুনীলকে ‘সেক্সি’ তকমাও দিয়েছিলেন মাধুরী। সেই সাক্ষাৎকারেই মাধুরী জানিয়েছিলেন, সুনীলের জন্য এতটাই পাগল ছিলেন যে প্রায়ই তাঁর স্বপ্নে আসতেন বিশ্বখ্যাত এই ব্যাটসম্যান।


সূত্রা : আনন্দবাজার পত্রিকা



The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283146/বিজ্ঞাপনের-জুটি-ইমন-মৌ-খান http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283146/বিজ্ঞাপনের-জুটি-ইমন-মৌ-খান 2017-07-26T07:01:26+0000 Daily Janakantha অনলাইন ডেস্ক ॥ ‘কিলার’ শিরোনামের একটি ছবিতে জুটি বেঁধে অভিনয় করছেন চিত্রনায়ক ইমন ও নবাগতা মৌ খান। ছবির নির্মাণ কাজ ...

বিজ্ঞাপনের জুটি ইমন-মৌ খান

 

সংস্কৃতি অঙ্গন

Daily Janakantha

অনলাইন ডেস্ক ॥ ‘কিলার’ শিরোনামের একটি ছবিতে জুটি বেঁধে অভিনয় করছেন চিত্রনায়ক ইমন ও নবাগতা মৌ খান। ছবির নির্মাণ কাজ প্রায় শেষের দিকে। এরই মধ্যে ইমন-মৌ জুটি বাঁধলেন আরেকটি কাজে।


তবে এবার আর বড়পর্দায় নয়, একটি বিজ্ঞাপনে। রিদিশা সল্ট বিস্কুট নামের এই বিজ্ঞাপনটি নির্মাণ করেছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল। সম্প্রতি রাজধানীর একটি স্টুডিওতে বিজ্ঞাপনটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। জানা গেছে, এই বিজ্ঞাপনটি শিগগিরই প্রচারে আসবে।


মৌ খান বলেন, এটি আমার তৃতীয় বিজ্ঞাপন। ইমন ভাইয়ার সঙ্গে চলচ্চিত্রে কাজ করলেও বিজ্ঞাপনে প্রথম কাজ করলাম।



The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283145/নাফ-নদীতে-নিখোঁজ-জেলের-লাশ-উদ্ধার http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283145/নাফ-নদীতে-নিখোঁজ-জেলের-লাশ-উদ্ধার 2017-07-26T07:00:59+0000 Daily Janakantha স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ নাফনদীর জাদিমুরা বরাবর মাছ শিকারে গিয়ে নিখোঁজ হওয়া জেলে নুর আলমের (৩৫) লাশ তিনদিনের মাথায় উদ্ধার ...

নাফ নদীতে নিখোঁজ জেলের লাশ উদ্ধার

 

দেশের খবর

Daily Janakantha

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ নাফনদীর জাদিমুরা বরাবর মাছ শিকারে গিয়ে নিখোঁজ হওয়া জেলে নুর আলমের (৩৫) লাশ তিনদিনের মাথায় উদ্ধার করেছে টেকনাফ মডেল থানা পুলিশ। সে জাদিমুরা এলাকার নুর মোহাম্মদের পুত্র। বুধবার দুপুরে শাহপরীরদ্বীপ জেটিঘাট এলাকা থেকে তার লাশটি উদ্ধার করে।

উল্লেখ্য সোমবার সকালে হ্নীলা দক্ষিণ জাদিমোরাস্থ নাফ নদীতে মোস্তাক আহমদের পুত্র লোকমান হাকিম ও উদ্ধার হওয়া জেলে নুর আলম মাছ শিকারে যায়। মাছ শিকাররত অবস্থায় ঝড়ো হাওয়ার কবলে পড়ে জইল্যারদ্বীপ সংলগ্ন নাফ নদীতে ডুবে যায় নৌকাটি। ঐসময় লোকমান হাকিমকে ডুবে যাওয়া নৌকা থেকে উদ্ধার করা হলেও নুরুল আলম নিখোঁজ ছিল।


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283144/‍-ভারতে-দু’বছরে-৪১-শতাংশ-বেড়েছে-ঘৃণা http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283144/‍-ভারতে-দু’বছরে-৪১-শতাংশ-বেড়েছে-ঘৃণা 2017-07-26T06:59:33+0000 Daily Janakantha অনলাইন ডেস্ক ॥ বারবার কড়া বার্তা এসেছে রাজ্য ও কেন্দ্র দু’তরফেই। প্রধানমন্ত্রীও সতর্ক করেছেন বারবার। তা সত্ত্বেও থামেনি দেশ জুড়ে ...

‍ ভারতে দু’বছরে ৪১ শতাংশ বেড়েছে ঘৃণা জনিত অপরাধ

 

বিদেশের খবর

Daily Janakantha

অনলাইন ডেস্ক ॥ বারবার কড়া বার্তা এসেছে রাজ্য ও কেন্দ্র দু’তরফেই। প্রধানমন্ত্রীও সতর্ক করেছেন বারবার। তা সত্ত্বেও থামেনি দেশ জুড়ে উত্তরোত্তর বেড়ে চলা হেট ক্রাইম বা ঘৃণা জনিত অপরাধের ঘটনা। আর সেই সংক্রান্ত বিদ্বেষের রাজনীতি।

সম্প্রতি দেশজুড়ে গণপ্রহারে মৃত্যুর ঘটনা বেড়ে যাওয়া প্রসঙ্গে বিরোধীদের এক প্রশ্নের উত্তরে সংসদে এক রিপোর্ট পেশ করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী হংসরাজ আহির। সেই রিপোর্টে তিনি জানান, ২০১৪ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত এ দেশে ৪১ শতাংশ বেড়েছে ঘৃণা জনিত অপরাধের পরিমাণ। তালিকার একেবারে প্রথমে রয়েছে উত্তরপ্রদেশ।

আহির জানান, ২০১৪ সালে যেখানে উত্তরপ্রদেশে হেট ক্রাইমের সংখ্যা ছিল ২৬, সেই সময় কেরলে এই অপরাধের সংখ্যা ছিল ৬৫, কর্নাটকে ৪৬। রাজস্থানে হেট ক্রাইমের সংখ্যা ছিল ৩৯। দু’বছরের মধ্যে সেই সংখ্যাটা এক লাফে বেড়েছে অনেকটাই। ২০১৫ সালে ২৬ থেকে তরতরিয়ে সংখ্যাটা পৌঁছে গিয়েছিল ৬০-এ। বৃদ্ধি প্রায় ১৩০ শতাংশ। ২০১৬-তে উত্তরপ্রদেশে নথিভুক্ত অপরাধের সংখ্যা ৬০ থেকে বেড়ে দাঁড়ায় ১১৬তে। ২০১৫-এর তুলনায় যা প্রায় ৯৩% বেশি। অর্থাত্ দু’বছরে শুধুমাত্র উত্তরপ্রদেশেই মোট ৩৪৬% বেড়েছে এই জাতীয় অপরাধের ঘটনা।

আহিরের রিপোর্ট থেকে জানা যাচ্ছে, তালিকার প্রথম স্থানে রয়েছে ভারতের সর্বাধিক জনবহুল এই রাজ্য। ২০১৬ সালে ৫৩টি ঘৃণা জনিত অপরাধের সংখ্যা নিয়ে এর পরের স্থানটিই দখল করেছে পশ্চিমবঙ্গ।

রিপোর্ট জানাচ্ছে, খুব সম্প্রতি এই ধরনের ঘটনার প্রতুলতা বেড়েছে এ রাজ্যে। ২০১৪-য় এই সংখ্যাটা ছিল ২০। ২০১৫-য় সামান্য কমে সংখ্যাটা দাঁড়িয়েছিল ১৮-এ। কিন্তু গত বছর হাফ সেঞ্চুরি পার করেছে পশ্চিমবঙ্গ। রিপোর্ট অনুযায়ী, গত দু’বছরে বেশির ভাগ রাজ্যেই বেড়েছে হেট ক্রাইমের পরিমাণ।

যেমন উত্তরাখণ্ডের ক্ষেত্রে দু’বছর আগে হেট ক্রাইমের সংখ্যা ছিল ৪, ২০১৬-তে এসে সেটাই গিয়ে দাঁড়িয়েছে ২২-এ। হরিয়ানায় ৩ থেকে সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬-তে। বিহারে ২০১৪ সালে ঘৃণা জনিত অপরাধের ঘটনা একটাও নথিভুক্ত হয়নি। কিন্তু ২০১৬-তে সেই সংখ্যাটা ১০ ছুঁইছুঁই। মধ্যপ্রদেশে দু’বছর আগে নথিভুক্ত হেট ক্রাইমের ঘটনা ছিল ৫টি। ২০১৬-তে সেই সংখ্যাই গিয়ে পৌঁছয় ২৬-এ। অন্যদিকে, অরুণাচলপ্রদেশ ও অসমে ২০১৪-তে ঘৃণা জনিত অপরাধ একটাও নথিভুক্ত হয়নি। ২০১৬-তে দু’টি রাজ্যেই একটি করে হেট ক্রাইমের ঘটনা নথিভুক্ত হয়েছে।

পেশ করা এই রিপোর্টে আহির জানিয়েছেন, দেশের মধ্যে ১৬টি রাজ্যে বেড়েছে হেট ক্রাইমের ঘটনা। যার মধ্যে ৯টি রাজ্যে ক্ষমতায় রয়েছে বিজেপি অথবা বিজেপির জোট সরকার।

গো-রক্ষকদের তাণ্ডব কী করে বন্ধ করা যায়, তা নিয়ে কিছু দিন আগেই কেন্দ্র ও ছ’টি বিজেপি শাসিত রাজ্যের কাছে জবাব চেয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। গোরক্ষক বাহিনীর তাণ্ডব বন্ধের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সমাজকর্মী তেহসিন পুনাওয়ালা। সেই প্রেক্ষিতেই আদালত কেন্দ্র ও ছ’টি রাজ্যের কাছে লিখিত জবাব চায়। কিন্তু কেন্দ্র বা উত্তরপ্রদেশ, গুজরাত, রাজস্থান, হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র, ঝাড়খণ্ডের মতো কোনও বিজেপি-শাসিত রাজ্যই লিখিত জবাব জমা দেয়নি। তবে আরএসএস বারবারই দায় এড়িয়ে জানিয়েছে, যাঁরা ধর্মের নামে হিংসা ছড়াচ্ছে সঙ্ঘের সঙ্গে কোনও সম্পর্ক নেই। অপরাধীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিও তুলেছে সঙ্ঘ পরিবার।



সূত্রা : আনন্দবাজার পত্রিকা



The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283143/নেত্রকোনায়-ঐতিহাসিক-নাজিরপুর-যুদ্ধ-দিবস-পালিত http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283143/নেত্রকোনায়-ঐতিহাসিক-নাজিরপুর-যুদ্ধ-দিবস-পালিত 2017-07-26T06:58:48+0000 Daily Janakantha নিজস্ব সংবাদদাতা, নেত্রকোনা ॥ দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বুধবার নেত্রকোনার কলমাকান্দায় ঐতিহাসিক নাজিরপুর যুদ্ধ দিবস পালিত হয়েছে। বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা ...

নেত্রকোনায় ঐতিহাসিক নাজিরপুর যুদ্ধ দিবস পালিত

 

দেশের খবর

Daily Janakantha

নিজস্ব সংবাদদাতা, নেত্রকোনা ॥ দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বুধবার নেত্রকোনার কলমাকান্দায় ঐতিহাসিক নাজিরপুর যুদ্ধ দিবস পালিত হয়েছে। বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ এর জেলা ও কলমাকান্দা উপজেলা ইউনিট যৌথভাবে এসব কর্মসূচির আয়োজন করে।

সকাল সাড়ে ১০টায় মুক্তিযোদ্ধারা কলমাকান্দা উপজেলার নাজিরপুর যুদ্ধ স্থানে নির্মিত স্মৃতিস্তম্ভে এবং বেলা ১২টায় লেংগুরা এলাকার ফুলবাড়িয়ায় সাত শহীদদের সমাধিস্থলে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে মুক্তিযোদ্ধাদের একটি দল শহীদদের উদ্দেশ্যে গার্ড অব অনার প্রদর্শন করেন। বাদ জোহর লেঙ্গুরা বাজারের জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হয় দোয়া মাহফিল। এছাড়া দুপুরে স্থানীয় মন্দির এবং গীর্জায় অনুষ্ঠিত হয় বিশেষ প্রার্থনা।

বিকেল তিনটায় লেঙ্গুরা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হয় মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশ ও আলোচনা সভা। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ছবি বিশ্বাস। মুক্তিযোদ্ধা সংসদের জেলা কমান্ডার নূরুল আমিনের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেনঃ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার রায়, পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আনোয়ার হোছাইন আকন্দ, বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল সাঈদ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলী খান খসরু, নেত্রকোনা পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম খান, স্থানীয় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ্ মোঃ ফখরুল ইসলাম ফিরোজ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চন্দন বিশ্বাস ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার সুলতান গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ। নেত্রকোনা ছাড়াও বৃহত্তর ময়মনসিংহের বিভিন্ন জেলার মুক্তিযোদ্ধারা এতে অংশগ্রহণ করেন।

১৯৭১ সালের ২৬ জুলাই নাজিরপুরে পাকবাহিনীর সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মুখ যুদ্ধ হয়। এতে সাতজন বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ এবং বহু পাকসেনা আহত হয়। শহীদ মুক্তিযোদ্ধারা হলেনঃ জামালপুরের জামাল উদ্দিন, মুক্তাগাছার দ্বিজেন্দ্র চন্দ্র বিশ্বাস, ভবতোষ চন্দ্র দাস, ইয়ার মাহমুদ, নূরুজ্জামান এবং নেত্রকোনার ফজলুল হক ও ডাঃ আব্দুল আজিজ। যুদ্ধের পর তাদের ফুলবাড়িয়ায় সমাহিত করা হয়। মুক্তিযোদ্ধারা প্রতিবছর এই দিবসটি ‘নাজিরপুর যুদ্ধ দিবস’ হিসেবে পালন করেন।



The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283142/খালেদা-লন্ডন-যাওয়ার-পর-থেকে-সরকারের-ঘুম http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283142/খালেদা-লন্ডন-যাওয়ার-পর-থেকে-সরকারের-ঘুম 2017-07-26T06:53:53+0000 Daily Janakantha স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া চিকিৎসার জন্য লন্ডন যাওয়ার পর থেকে সরকারের ঘুম হারাম হয়ে গেছে বলে মন্তব্য ...

খালেদা লন্ডন যাওয়ার পর থেকে সরকারের ঘুম হারাম: রিজভী

 

জাতীয়

Daily Janakantha

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া চিকিৎসার জন্য লন্ডন যাওয়ার পর থেকে সরকারের ঘুম হারাম হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। বুধবার দুপুরে নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।


রিজভী অভিযোগ করেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ পাতানো নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করছে। এ জন্যই মিথ্যা কল্পকাহিনি রচনা করে বিএনপির সিনিয়র নেতাদের নামে বদনাম ও কুৎসা রটানোর অপচেষ্টা করছে। এসব ষড়যন্ত্রমূলক রটনার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে বিএনপিকে বাইরে রেখে ৫ জানুয়ারির মতো একতরফা র্র্নিবাচন করা। কিন্তু আমরা তাদের সে সুযোগ দেবো না। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে এ বিষয়ে বিএনপি ইস্পাতকঠিন মনোবলে ঐক্যবদ্ধ।


বিএনপির মুখপাত্র বলেন, খালেদা জিয়ার লন্ডন সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা কতই না প্রলাপ বকছেন। তিনি চিকিৎসার জন্য লন্ডন গেছেন। অথচ প্রথমে আওয়ামী লীগের নেতারা বললেন, খালেদা জিয়া মামলার ভয়ে দেশ ছেড়ে পালিয়ে গেছেন। এখন তারা বলছেন, খালেদা জিয়া ষড়যন্ত্র করতে লন্ডন গেছেন। এরপরও হয়তো তারা আবার আরেক নতুন তত্ত্ব দেবেন।


রিজভী বলেন সরকারের এজেন্সিগুলোও বিএনপির সিনিয়র নেতাদের উদ্ধৃত করে নানা অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। এবার তারা বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও অবিশ্বাস্য কল্পকাহিনী প্রচার করছে। সরকারের জনপ্রিয়তা শূন্যে চলে আসায় এখন দেশবাসী ও বিএনপির সাধারণ নেতাকর্মীদের মধ্যে নেতিবাচক ধারণা সৃষ্টির জন্য সরকারি এজেন্সিগুলোকে মাঠে নামিয়ে দেয়া হয়েছে।


রিজভী বলেন, আমরা আগেও বলেছি বিএনপির সিনিয়র নেতাদের নামে বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বিবৃতি দিয়ে একটি ওয়েবসাইটে প্রচার করা হয়েছে। ক’দিন আগেও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে উদ্দেশ করে দলের ভাইস চেয়ারম্যান এম মোর্শেদ খানের নাম ব্যবহারের মাধ্যমে বানোয়াট, অসত্য, মনগড়া বক্তব্য একটি ওয়েবসাইটে প্রচার করা হয়েছে। যে বক্তব্যের সঙ্গে মোর্শেদ খানের কোনো সম্পর্ক নেই। তারা দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করছে। ওয়ান-ইলেভেনের সরকারও এই অপচেষ্টা করেছিল কিন্তু কোনো লাভ হয়নি। তিনি বলেন, দেশের মানুষ অপপ্রচার ও কুৎসা রটনাকারীদের ঘৃণা করে, কারণ, এরা ইতিহাসের ঘৃণ্য চরিত্র, অসভ্যতা এবং নোংরা সংস্কৃতির ধারক।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ক্ষমতাসীন জোটের মন্ত্রী ও নেতারা নগদ লাভের জন্যই প্রধানমন্ত্রীকে খুশি করতে খালেদা জিয়ার লন্ডন সফর ও চিকিৎসা নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াতে মেতে উঠেছেন। দেশের অবিচার, নিষ্ঠুর নিপীড়ণ আর গুম, খুন ও লাশ ফেলার রাজনীতি ঢেকে ফেলার জন্যই তারা লন্ডনে চিকিৎসাধীন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। খালেদা জিয়া মামলার ভয়ে দেশ ছেড়ে পালিয়ে গেছেন এমন আওয়াজ তুলে আওয়ামী লীগ নেতারা নিজেরাই জনগণের কাছে বিভ্রান্তকারী হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু সহ-দফতর সম্পাদক মুনির হোসেন প্রমুখ।


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283141/দেশের-বিভিন্ন-স্থানে-মাদক-বিরোধী-আন্তজার্তিক-দিবস http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283141/দেশের-বিভিন্ন-স্থানে-মাদক-বিরোধী-আন্তজার্তিক-দিবস 2017-07-26T06:53:24+0000 Daily Janakantha নিজস্ব সংবাদদাতা, হবিগঞ্জ ॥ জনসচেতনতা সৃষ্টিতে নানা শ্লোগান সম্বলিত উক্তি আর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও সমাজের নানা পেশার সাধারন ...

দেশের বিভিন্ন স্থানে মাদক বিরোধী আন্তজার্তিক দিবস পালিত

 

দেশের খবর

Daily Janakantha

নিজস্ব সংবাদদাতা, হবিগঞ্জ ॥ জনসচেতনতা সৃষ্টিতে নানা শ্লোগান সম্বলিত উক্তি আর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও সমাজের নানা পেশার সাধারন মানুষের স্বতঃর্স্ফুত অংশগ্রহন এবং না’সূচক শপথের মধ্য দিয়ে বুধবার হবিগঞ্জে পালিত হলো ‘মাদক দ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তজার্তিক দিবস-২০১৭’। এ উপলক্ষে এ দিন সকাল সাড়ে ৯ টায় হবিগঞ্জ কালেক্টরেট ক্যাম্পাসে অবস্থিত নিমতলা প্রাঙ্গন থেকে এমপি আলহাজ্ব মোঃ আবু জাহির, ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোঃ শফিউল আলম ও সংশ্লিস্ট মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অফিসের সহকারী পরিচালক মোঃ তানভীর হোসেন খানের নের্তৃত্বে এক বর্নাঢ্য র‌্যালী বের করে জেলা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অফিস। এতে অংশ নেন, শিক্ষার্থী-সাংবাদিক সহ বিভিন্ন পেশার শত শত নারী-পুরুষ। পরবর্তীতে জেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় এক বিশাল সেমিনার। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি এডভোকেট আলহাজ্ব মোঃ আবু জাহির। ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোঃ সফিউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সেমিনারে প্রথমেই স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সংশ্লিস্ট অফিসের সহকারী পরিচালক মোঃ তানভীর হোসেন খান, সদর ইউএনও এ,টি,এম আজহারুল ইসলাম, এডিশনাল এসপি (সার্কেল) মোঃ হায়াতুন্নবী, বিজ্ঞ এডিএম, মোঃ নুর ইসলাম, এডিশনাল এসপি আ,স,ম সামছুর রহমান ভূইয়া, এডিসি (জেনারেল) মোঃ এমরান হোসেন ও সাংবাদিক আলমগীর ছাদেক।


ঝালকাঠি :

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝালকাঠি ॥ ঝালকাঠিতে মাদক দ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচাঁর বিরোধী আর্ন্তজাতীক দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। আজ বুধবার সকাল ১০ টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্তর থেকে র‌্যালী বের হয় । জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের চত্তরে এর পরে আলোচনা সভায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সভাপতিত্ব করেন। প্রধান অতিথি ছিলেন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মো: জাকির হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন আতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: আব্দুর রকিব, জেলা তথ্য অফিসার মো: রিয়াদুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো: শাহ আলম।


বাগেরহাট:

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ বাগেরহাটে র‌্যালী ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস পালিত হয়েছে। বুধবার সকালে সাংষ্কৃতিক ফাউন্ডেশন থেকে জেলা প্রশাসন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের আয়োজনে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোমিনুর রশীদের সভাপতিত্বে জেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে আগে শুনুন, “শিশু ও যুবাদের প্রতি মনোযোগ দেয়াই তাদের নিরাপদ বেড়ে উঠার প্রথম পদক্ষেপ” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব) শফিকুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাফুজ আফজাল, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো: শরিয়াতউল্লাহ, সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডাঃ প্রদীপ কুমার বকসী প্রমুখ।


মুন্সীগঞ্জ :

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জে মাদকদ্রব্য অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী র‌্যালী ও আলোচনা সভা হয়েছে। বুধবার সকালে কালেক্টর মাঠ থেকে র‌্যালিটি বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। পরে জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে আলোচনা সভা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক ও মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস। এডিএম একএম শওকত আলী মজুমদারের সভাপত্বিতে আরও বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রসাশক (রাজস্ব) মোহাম্মদ ফজলে আজিম, অতিরিক্ত জেলা প্রসাশক (সার্বিক, শিক্ষা ও আইসিটি) মোহা. হারুন-অর-রশীদ, সাংবাদিক মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বল, জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয়ের পরিদর্শক মো. হোসেন মিয়া ও অ্যাডভোকেট গোলাম মাওলা তপন প্রমুখ।




The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283140/জনগণের-রায়েই-বিশ্বাস-করে-আওয়ামীলীগ http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283140/জনগণের-রায়েই-বিশ্বাস-করে-আওয়ামীলীগ 2017-07-26T06:52:50+0000 Daily Janakantha স্টাফ রিপোর্টার ॥ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, যারা আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে নির্বাচন বন্ধ করতে চায় ...

জনগণের রায়েই বিশ্বাস করে আওয়ামীলীগ

 

জাতীয়

Daily Janakantha

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, যারা আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে নির্বাচন বন্ধ করতে চায় তারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। জনগণের রায়েই বিশ্বাস করে আওয়ামীলীগ। নির্ধারিত সময়ের নির্বাচন এবং নির্বাচনে ভোটদান থেকে জনগণকে বঞ্চিত করার ক্ষমতা কারো নেই।


বুধবার রাজধানীর পুরাতন ঢাকার ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল পরিদর্শন এবং মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী ফিরোজ রশিদের সভাপতিত্বে হাসপাতালের পরিচালক ক্যাপ্টেন (অব.) এম এ ছালাম, ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজের অধ্যাক্ষ এম এ বাসার, ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবু আহম্মেদ মান্নাফী, সাংগঠনিক সম্পাদক হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।


নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে আর কোনো নির্বাচন হবে না’ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বলেন, ‘নির্বাচন জনগনের অধিকার, ভোট দেয়াও জনগনের গণতান্ত্রিক অধিকার। সেই অধিকারের উপর যারা হস্তক্ষেপ করতে চায় তারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না।’

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপি-জামায়াতের জ্বালাও পোড়াও এর পরও ২০১৪ সালে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। তারা জ্বালাও-পোড়াও করে নির্বাচন বন্ধ করতে পারেনি। আগামী নির্বাচনও যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে। সেই নির্বাচন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই অনুষ্ঠিত হবে। সংবিধানের বাহিরে যাবার কোন সুযোগ নেই। তিনি বলেন, সারা পৃথিবীতে যে ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশেও সেভাবেই নির্বাচন হবে। জনগণ যাদের ভোট দিবে তারাই বিজয়ী হবে। আগামী নির্বাচন করার ক্ষমতা কারো নেই।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ১৬ কোটি মানুষের দেশে সীমিত সম্পদ নিয়ে সবার জন্য স্বাস্থ্য নিশ্চিত করা দুরূহ। সরকারি হাসপাতালে শয্যা সংখ্যার অতিরিক্ত রোগী আসলেও ফেরত দেওয়া হয় না। চিকিৎসক ও নার্সরা বাড়তি চাপ নিয়ে সাধারণ মানুষের চিকিৎসা নিশ্চিত করছেন। গ্রামের ওয়ার্ড পর্যায় থেকে শুরু করে রাজধানীর বিশেষায়িত হাসপাতালগুলো থেকে মানুষ আধুনিক চিকিৎসা গ্রহণ করতে পারছে। সবার জন্য স্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে হলে মাঠ পর্যায়ের চিকিৎসক, নার্সসহ সকলকে আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে। দেশের জনগণের দোরগোড়ায় সহজে কম খরচে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার যে কর্মসূচি হাতে নিয়েছে তা সফল করতে সকলকেই যার যার অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান তিনি।



The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283139/বিএনপির-আন্দোলন-লন্ডনে-স্বেচ্ছা-নির্বাসনে-সেতুমন্ত্রী http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283139/বিএনপির-আন্দোলন-লন্ডনে-স্বেচ্ছা-নির্বাসনে-সেতুমন্ত্রী 2017-07-26T06:50:39+0000 Daily Janakantha স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর ॥ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, কান্নাকাটি আর নালিশ ছাড়া বিএনপির রাজনৈতিক কোন কর্মসূচি ...

বিএনপির আন্দোলন লন্ডনে স্বেচ্ছা নির্বাসনে ॥ সেতুমন্ত্রী

 

দেশের খবর

Daily Janakantha

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর ॥ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, কান্নাকাটি আর নালিশ ছাড়া বিএনপির রাজনৈতিক কোন কর্মসূচি এ মূহুর্তে নেই। ঈদের আগে বেগম খালেদা জিয়া ঈদ পরবর্তী দূর্বার আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছিলেন। সে আন্দোলন এখন লন্ডনে স্বেচ্ছা নির্বাসনে। তাদের আন্দোলনের কোন খবর নেই। বিএনপির রাজনৈতিক এজেন্ডা ঠিক থাকছে না।

তিনি বুধবার দুপুরে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ভোগড়া বাইপাস মোড়ে বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্থ ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক ও ঢাকা বাইপাস সড়ক পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, সংবিধান সংশোধন করার কোন সুযোগ এখন আর নেই। সহায়ক সরকারতো থাকবেই। শেখ হাসিনা সরকার নির্বাচন কমিশনকে সহায়ক সরকার হিসেবে সহায়তা দিবে। নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন দরকার। নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ হলে নির্বাচনও নিরপেক্ষ হবে। সরকারের এখানে দায়িত্ব যেটা সেটা নির্বাচন কমিশনকে সহযোগিতা করা।

মন্ত্রী ক্ষতিগ্রস্থ ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক সম্পর্কে বলেন, এবার প্রবল বর্ষনে কোন ভাবেই রাস্তা ঠিক রাখা যাচ্ছে না। ভারি যানবাহনে সারাদেশেই রাস্তা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। আমরা জরুরী ভাবে নির্দেশ দিয়েছি আমাদের ইঞ্জিনিয়াররা সার্বক্ষণিক রাস্তায় থাকবে। এ মূহুর্তে আমাদের একটাই এজেন্ডা সেটা হলো রাস্তাকে পাসেবল ইউজেবল ও সচল করে রাখা। প্রয়োজনে আরো টিম নিয়োগ করে অন্তত এ মূহুর্তে যে কাজ বৃষ্টির মধ্যে রাস্তাকে পাসেবল করে রাখতে হবে।

রাস্তায় যে বড় বড় গর্ত হয়েছে গর্তগুলোকে ভর্তি করতে হবে এবং রাস্তা থেকে যেন পানি সরে যায় সে ব্যাপারে জরুরী ভিত্তিতে ব্যবস্থা নিতে হবে। কোন অবস্থাতেই রাস্তা বন্ধ থাকবে না। ইঞ্জিনিয়ারদের প্রয়োজনে ২৪ ঘন্টা রাস্তায় থাকতে হবে। এটাই আমার নির্দেশ। এটা বলতেই আমি এসেছি।


পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সওজের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ, গাজীপুর সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী ডিএকেএম নাহীন রেজা, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর আলমসহ সওজের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ।


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283138/কুয়াকাটা-সৈকতে-জোয়ারের-আঘাতে-ব্যাপক-ক্ষতি http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283138/কুয়াকাটা-সৈকতে-জোয়ারের-আঘাতে-ব্যাপক-ক্ষতি 2017-07-26T06:48:53+0000 Daily Janakantha নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া ॥ লঘুচাপের প্রভাবে অমাবস্যার জোতে অস্বাভাবিক জোয়ারে উত্তাল ঢেউয়ের ছোবলে কুয়াকাটা সৈকতের বেলাভূমের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। প্রায় ...

কুয়াকাটা সৈকতে জোয়ারের আঘাতে ব্যাপক ক্ষতি

 

দেশের খবর

Daily Janakantha

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া ॥ লঘুচাপের প্রভাবে অমাবস্যার জোতে অস্বাভাবিক জোয়ারে উত্তাল ঢেউয়ের ছোবলে কুয়াকাটা সৈকতের বেলাভূমের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। প্রায় ৩০ ফুট প্রস্থ সৈকত সাগরে বিলীন হয়ে গেছে। দীর্ঘ সৈকতের শত শত গাছপালা ঢেউয়ের তোড়ে উপড়ে গেছে। তছনছ হয়ে গেছে সৈৗন্দর্যমন্ডিত স্পটগুলো।

এমনকি সৈকত সংলগ্ন তিনটি পয়েন্টে বন্যানিয়ন্ত্রণ বেড়িবাঁধও চরম হুমকির কবলে পড়েছে। মিরাবাড়ি, মাঝিবাড়ি ও খাজুরায় এমন শঙ্কা দেখা দিয়েছে। স্থানীয় দোকানিরা জানান, এ বছর সৈকত রক্ষায় প্রকল্পের কাজ শুরু না করলে মূল বাঁধ ভেঙ্গে জলোচ্ছ্বাসের শঙ্কা রয়েছে। বুধবার দুপুরে সৈকত ঘুরে দেখা গেছে জোয়ারের সময় সৈকতে কোন ওয়াকিংজোন থাকছে না।

নদী পাড়ের মতো কিনারে উত্তাল ঢেউ আঘাত হানছে। আর সেইসঙ্গে ধুয়ে যাচ্ছে সৈকতের বেলভূমি। কুয়াকাটা সৈকতে শুন্য পয়েন্টে যাওয়ার সড়কটির অন্তত ২০ ফুট সাগরে ভেসে গেছে। শত শত গাছ উপড়ে ঢেউয়ের সঙ্গে ভাসছে।

সাগরের উত্তাল ঢেউয়ের ক্ষতি দেখে পর্যটক-দর্শনার্থীসহ স্থানীয়রা শঙ্কা প্রকাশ করেছে। বেড়িবাঁধের বাইরের মসজিদ, মন্দিরসহ প্রায় অর্ধশত স্থাপনা রয়েছে চরম ঝুঁকিতে। পানি উন্নয়ন বোর্ড কলাপাড়া সার্কেলের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবুল খায়ের জানান, কুয়াকাটা সৈকত রক্ষা প্রকল্পের কাজ শুরুর প্রক্রিয়া চলছে।


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283137/ব্যবসায়ীর-স্ত্রীকে-হত্যাকারীদের-ফাঁসির-দাবিতে-বিক্ষোভ http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283137/ব্যবসায়ীর-স্ত্রীকে-হত্যাকারীদের-ফাঁসির-দাবিতে-বিক্ষোভ 2017-07-26T06:40:35+0000 Daily Janakantha নিজস্ব সংবাদদাতা, পাবনা ॥ স্ত্রীকে নৃশংসভাবে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা করেছে এক ধনাঢ্য ব্যবসায়ী। বুধবার বেলা ১২ টায় শহরের শান্তিনগরের ...

ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ

 

দেশের খবর

Daily Janakantha

নিজস্ব সংবাদদাতা, পাবনা ॥ স্ত্রীকে নৃশংসভাবে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা করেছে এক ধনাঢ্য ব্যবসায়ী। বুধবার বেলা ১২ টায় শহরের শান্তিনগরের (রূপকথার গলি) বাড়ি থেকে নিহত গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় স্বামী তৌহিদুল ইসলাম রঞ্জনসহ ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে শহরে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী।

নিহত গৃহবধুর স্বজনরা জানান, তিন বছর আগে পাবনা শহরের তুষ্ট কমপ্লেক্স এর মালিক তৌহিদুল ইসলাম রঞ্জনের সাথে জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার মিরকামারী গ্রামের আব্দুল কুদ্দুস মোল্লার মেয়ে তানিয়া সুলতানা (২২) এর বিয়ে হয়। নিহত গৃহবধুর ২বছর বয়সী একটি শিশু সন্তানও রয়েছে। সম্প্রতি স্বামী রঞ্জনের পূর্বের একটি বিয়ের কথা প্রকাশ হলে তাদের মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়।

এরই জের ধরে মঙ্গলবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রঞ্জন ও পরিবারের লোকজন তানিয়াকে নৃশংসভাবে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে নিহতের মরদেহ ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেবার চেষ্টা করে। নিহত গৃহবধুর ভাই তুফান হোসেন জানান, সকালে আমার ছোটবোন তানিয়া গুরুতর অসুস্থ বলে তার স্বামী তাদের বাড়িতে খবর পাঠায়।

আমরা এসে দেখি তার শয়ন ঘরের মেঝেতে লাশ পড়ে আছে। এ সময় রঞ্জনের পরিবারের লোকজন তানিয়া আত্মহত্যা করেছে বলে দাবী করে। কিন্তু তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে আমাদের সন্দেহ হয়। পরে প্রতিবেশীরাও জানায় রাতভর তানিয়াকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক প্রতিবেশী জানান, রাত তিনটার দিকে গৃহবধু তানিয়ার আত্মচিৎকারে আমরা ওই বাড়িতে যাই। এ সময় রঞ্জন ও তার পরিবারের লোকজন বিষয়টি তাদের পারিবারিক বলে তাদের বাড়িতে ঢুকতে বাধা দেয়। পরে সকাল দশটার দিকে তারা শুনতে পান রঞ্জনের স্ত্রী আত্মহত্যা করেছে। প্রতিবেশীরা আরও জানান, রঞ্জন তার প্রথম স্ত্রীকেও নির্যাতন করায় তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। ঐ সময় প্রথম স্ত্রীর দায়ের করা নারী নির্যাতন মামলায় রঞ্জন ও তার মাতা-পিতা বেশ কিছুদিন জেলও খেটেছে। ঐ মামলাটি এখনও বিচারাধিন রয়েছে। এসব ঘটনা গোপন করে রঞ্জন তানিয়াকে বিয়ে করে। বিষয়টি জানাজানির পর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়।

এদিকে, নিহত গৃহবধুর পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেয়ে পুলিশ এসে ঐ বাড়ি থেকে বেলা ১২ টার দিকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এ সময় এলাকাবাসী হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবীতে বিক্ষোভ করে। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মাহমুদুল হাসান জানান, সুরতহালে নিহতের শরীরে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জন্য নিহতের স্বামী রঞ্জন, শশুর শাহজাহান আলী ও শাশুরী আনোয়ারা বেগমকে আটক করা হয়েছে।


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283136/দক্ষিণ-কোরিয়ার-নতুন-রাষ্ট্রদূত-আবিদা-ইসলাম http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283136/দক্ষিণ-কোরিয়ার-নতুন-রাষ্ট্রদূত-আবিদা-ইসলাম 2017-07-26T06:40:03+0000 Daily Janakantha কূটনৈতিক রিপোর্টার ॥ দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন রাষ্ট্রদূত হিসেবে আবিদা ইসলামকে নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তিনি বর্তমানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আমেরিকা ...

দক্ষিণ কোরিয়ার নতুন রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম

 

জাতীয়

Daily Janakantha

কূটনৈতিক রিপোর্টার ॥ দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন রাষ্ট্রদূত হিসেবে আবিদা ইসলামকে নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তিনি বর্তমানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আমেরিকা বিভাগের মহাপরিচালক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।


এতে বলা হয়, পেশাদার কূটনীতিক আবিদা ইসলাম বিসিএস ১৫তম ব্যাচে ফরেন অ্যাফায়ার্স ক্যাডার হিসেবে যোগ দেন। তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন দায়িত্ব পালন ছাড়াও কলকাতায় উপ হাইকমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও লন্ডন, কলম্বো, ব্রাসেলস মিশনে বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন।


আবিদা ইসলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগে মাস্টার্স ডিগ্রি পাশ করেছেন। এছাড়াও অস্ট্রেলিয়ার মোনাশ ইউনিভার্সিটি থেকে তিনি ফরেন অ্যাফেয়ার্স ও ট্রেড বিভাগ থেকে মাস্টার্স ডিগ্রি লাভ করেছেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, আবিদা ইসলাম বর্তমান রাষ্ট্রদূত জুলফিকার রহমানের স্থলাভিষিক্ত হবেন।


The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283135/নতুন-মুদ্রানীতিতে-কমানো-হলো-বেসরকারি-খাতে-ঋণপ্রবাহ http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283135/নতুন-মুদ্রানীতিতে-কমানো-হলো-বেসরকারি-খাতে-ঋণপ্রবাহ 2017-07-26T06:27:34+0000 Daily Janakantha অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথমার্ধের (জুলাই-ডিসেম্বর) মুদ্রানীতিতে বেসরকারি খাতের ঋণের লক্ষ্যমাত্রা কমিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বিদায়ী অর্থবছরের শেষার্ধের ...

নতুন মুদ্রানীতিতে কমানো হলো বেসরকারি খাতে ঋণপ্রবাহ

 

ব্যবসা বানিজ্য

Daily Janakantha

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথমার্ধের (জুলাই-ডিসেম্বর) মুদ্রানীতিতে বেসরকারি খাতের ঋণের লক্ষ্যমাত্রা কমিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বিদায়ী অর্থবছরের শেষার্ধের মুদ্রানীতিতে বেসরকারি খাতের ঋণের লক্ষ্যমাত্রা ১৬ দশমিক ৫ শতাংশ নির্ধারণ করা হলেও নতুন মুদ্রানীতিতে তা ১৬ দশমিক ২ শতাংশে নামিয়ে আনা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে বাংলাদেশ ব্যাংকের গবর্নর ফজলে কবির অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসের মুদ্রানীতি ঘোষণা করেন। এই মুদ্রানীতি বাস্তবায়নের জন্য দুটি ঝুঁকির কথা তিনি বলেন। একটি হলো সঞ্চয়পত্রে উচ্চ মুনাফার হার, দ্বিতীয়টি হলো প্রবাসী আয় কমে যাওয়া।

সরকারের নির্ধারিত জিডিপি প্রবৃদ্ধি ও মূল্যস্ফীতির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনকে সামনে রেখে নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হয়। গবর্নর বলেন, সরকারের যে প্রবৃদ্ধি লক্ষ্যমাত্রা ৭ দশমিক ৪ শতাংশ, তা এই মুদ্রানীতি দিয়ে অর্জন সম্ভব। এ ছাড়া মূল্যস্ফীতি লক্ষ্যমাত্রার মধ্যে থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।



The Daily Janakantha website developed by
BIKIRAN.COM
]]>
http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283134/বরিশালে-রোজীনাকে-মধ্যযুগীয়-কায়দায়-নির্যাতন http://www.dailyjanakantha.com/details/article/283134/বরিশালে-রোজীনাকে-মধ্যযুগীয়-কায়দায়-নির্যাতন 2017-07-26T06:26:54+0000 Daily Janakantha স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ কর্মের সুবাধে ঢাকায় থাকার সুবাধে প্রথম বিয়ের কথা গোপন রেখে সম্পূর্ণ প্রতারনার মাধ্যমে রোজিনা আক্তারকে (২২) ...

বরিশালে রোজীনাকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

 

দেশের খবর

Daily Janakantha

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ কর্মের সুবাধে ঢাকায় থাকার সুবাধে প্রথম বিয়ের কথা গোপন রেখে সম্পূর্ণ প্রতারনার মাধ্যমে রোজিনা আক্তারকে (২২) দ্বিতীয় বিয়ে করেছিলো মাইনুল বাদশা নামের এক যুবক। সম্প্রতি সময়ে রোজিনাকে ফেলে রেখে আত্মগোপন করে মাইনুল। পরবর্তীতে বৃদ্ধ পিতাকে নিয়ে স্বামীর খোঁজে তার গ্রামের বাড়িতে এসে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের স্বীকার হয়ে এখন হাসপাতালের বেডে কাতরাচ্ছেন রোজিনা। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে জেলার উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর গ্রামে।

হাসপাতালে শষ্যাশয়ী মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার কৈতরা গ্রামের বাসিন্দা জয়নাল মৃধার কন্যা রোজিনা জানায়, কর্মের সুবাধে ঢাকায় থাকার সুবাধে তার সাথে পরিচয় হয় উজিরপুরের ওটরা ইউনিয়নের কেশবকাঠী গ্রামের এনায়েত হোসেনের পুত্র মাইনুল বাদশার। পরিচয়ে সূত্রধরে মাইনুলের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একপর্যায়ে গত ৮ মে তাকে (রোজিনা) আদালতের মাধ্যমে (কোর্ট ম্যারেজ) বিয়ে করেন। বিয়ের পর তারা দুইজনে ঢাকার ভাড়াটিয়া বাসায় বসবাস করে আসছিলেন। এরই মধ্যে গত দশদিন পূর্বে মাইনুল বাদশা পালিয়ে গ্রামের বাড়িতে চলে আসে।

রোজিনা আরও জানান, তার বৃদ্ধ পিতাকে নিয়ে স্বামী মাইনুলকে খুঁজতে মঙ্গলবার বিকেলে তার গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার পর তিনি জানতে পারেন মাইনুলের প্রথম স্ত্রী রয়েছে। ওই বাড়িতে গিয়ে স্বামী মাইনুলকে খুঁজতে থাকায় ক্ষিপ্ত হয়ে মাইনুলের বাবা এনায়েত হোসেন, মা নারগিস বেগম ও মাইনুলের প্রথম স্ত্রী রিনা বেগম রাতে তাকে (রোজিনা) অমানুষিক নির্যাতন করে।

একপর্যায়ে মাইনুল বাদশাকে ছেড়ে দিয়ে চলে যাওয়ার জন্য একটি সাদা ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর আদায়ের চেষ্টা করা হয়। রোজিনা আরও জানান, সকালে স্থানীয়দের কাছে জানতে পারেন মাইনুল তার প্রথম শশুর বাড়ি শিকারপুরে আত্মগোপন করেছে। পরবর্তীতে সে তার বৃদ্ধ পিতাকে নিয়ে শিকারপুরের মাইনুলের প্রথম শশুর বাড়িতে যাওয়ার পর উল্লেখিতরা সেখানে বসেও তাকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে তাড়িয়ে দেয়। পরবর্তীতে স্থানীয় এক সংবাদকর্মীর সহায়তায় গুরুতর আহত রোজিনাকে বুধবার বেলা এগারোটার দিকে ইচলাদী বাসষ্ট্যান্ড থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ গোলাম সরোয়ার জানান, সংবাদকর্মীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে নির্যাতিতার বক্তব্য গ্রহণ করেছে। পুরো ঘটনার তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


]]>