মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
রবিবার, ৬ জানুয়ারী ২০১৩, ২৩ পৌষ ১৪১৯
১০ জানুয়ারির মধ্যে নতুন করে শৈত্যপ্রবাহ শুরু
স্টাফ রিপোর্টার ॥ আগামী ১০ জানুয়ারির মধ্যে নতুন করে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। আর এ শৈত্যপ্রবাহ তীব্র থেকে মাঝারি হতে পারে। ফলে পুনরায় সারা দেশে শীতের প্রকোপ আবার বাড়তে পারে। তবে গতবার এ সময়ে সাগরে নিম্নচাপের সৃষ্টি হলেও এবার সেরকম কোন সম্ভাবনা দেখছেন না বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদফতরের ঘূর্ণিঝড় সতর্কীকরণ কেন্দ্রের উপপরিচালক শাহ আলম। তিনি বলেন, নতুন করে শৈত্য প্রবাহ শুরু হলে তাপমাত্রা ৬ থেকে ৭ ডিগ্রী সেলসিয়াসের মধ্যে চলে আসতে পারে। ফলে তাপমাত্রার গড় ব্যবধান কমে গিয়ে তীব্র শীত অনুভূত হতে পারে।
গত ২১ ডিসেম্বর থেকে এ বছর শীতে প্রথম শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়। তা একটানা ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলে। আবহাওয়া অধিদফতরের হিসাব অনুযায়ী প্রথম শৈত্যপ্রবাহ মৃদু থাকলেও সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রার গড় ব্যবধান কমে আসায় শীতে আক্রান্ত হয়ে পড়ে সারাদেশ। এ সময় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে ২ থেকে ৫ ডিগ্রী পর্যন্ত নিচে অবস্থান করে। এখন পর্যন্ত শীতে এ বছর দেশের সর্বনিম্ন
তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৬.৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস। প্রথম শৈত্যপ্রবাহে ঢাকাসহ উত্তরাঞ্চলে শীত জাঁকিয়ে বসে। এর প্রভাব পড়ে মানুষসহ পশুপাখি ও উঠতি ফসলের ওপর।
বর্তমানে কোন শৈত্যপ্রবাহ না থাকলেও আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে জানুয়ারি মাসে আরও ১ থেকে ২টি মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। এ ছাড়া ২ থেকে ৩টি মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলের ওপর দিয়ে এ শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। মাঝারি শৈত্যপ্রবাহের ক্ষেত্রে তাপমাত্রা ৬ থেকে ৮ ডিগ্রীর মধ্যে এবং তীব্র শৈত্যপ্রবাহের ক্ষেত্রে ৪ থেকে ৬ ডিগ্রীর মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকতে পারে। আবহাওয়া অধিদফতরের দীর্ঘ মেয়াদী পূর্বাভাসে আবহাওয়ার তথ্য, উপাত্ত, বিন্যাস, বায়ুম-লের বিশ্লেষিত আবহাওয়া মানচিত্র, উপগ্রহ ও রাডার চিত্র বিশ্লেষণ করে বিশেষজ্ঞ কমিটি এ পূর্বাভাস দিয়েছে। পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, ফেব্রুয়ারি মাসের শুরুতেও দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে ১টি মৃদু শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি উভয় মাসে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।
এদিকে জানুয়ারি শুরুতেই দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টিপাতের রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অদিদফতর। বর্তমানে সারাদেশেই তাপমাত্রা কিছুটা বেড়েছে। আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে দুএক বিভাগ বাদে সারাদেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা প্রায় স্বাভাবিক পর্যায়ে রয়েছে। শৈত্যপ্রবাহ শুরু হলে তাপমাত্রা আবার নেমে যেতে পারে। ফলে শীত আরও বৃদ্ধি পেতে পারে।
এদিকে ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলাসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকায় মাঝারী থেকে ঘন কুয়াশা এবং অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। এতে বলা হয় পাবনা, দিনাজপুর, সৈয়দপুর, কুষ্টিয়া ও শ্রীমঙ্গল অঞ্চলসমূহের উপর দিয়ে মুদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এ শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। শুক্রবার সকাল থেকে আকাশ মেঘলা রয়েছে। উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমী লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর থেকে এর বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। ফলে আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা রয়েছে জানানো হয়।