মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
মঙ্গলবার, ২০ আগষ্ট ২০১৩, ৫ ভাদ্র ১৪২০
টি২০ বিশ্বকাপ, ফতুল্লাকে মূল ভেন্যু করার প্রস্তাব বিসিবির
স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আগামী বছর এককভাবে বিশ্বকাপ টি২০ আসর আয়োজন করবে বাংলাদেশ। তবে কিছুদিন আগে যথাসময়ে ভেন্যু প্রস্তুতি নিয়ে একটা আশঙ্কার সৃষ্টি হয়েছিল। ইতোমধ্যেই চারবার ভেন্যু প্রস্তুতির ব্যবস্থাপনা দেখে গেছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) প্রতিনিধি দল। এবারও এসেছেন তাঁরা। আর একে একে সব শঙ্কাই দূর হয়ে যাচ্ছে এবার। প্রথমদিন মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম ও বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) এবং রবিবার সিলেট বিভাগীয় স্টেডিয়াম পরিদর্শন করে সন্তোষ জানিয়েছেন আইসিসি প্রতিনিধিরা। এবার বিকল্প ভেন্যু হিসেবে প্রস্তাবিত নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়াম নিয়েও সন্তোষ জানালেন তারা। আর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সে সুযোগে ফতুল্লাকে টি২০ বিশ্বকাপের মূল ভেন্যু করার আহ্বান জানিয়েছে। সোমবার আইসিসি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে ছিলেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। বিসিবির প্রস্তাব বিবেচনা করে সাতদিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাবে আইসিসি এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। সোমবার ফতুল্লা পরিদর্শন করেন আইসিসি প্রতিনিধি দলের ইভেন্ট ম্যানেজার ক্রিস টেটলি, টুর্নামেন্ট পরিচালক ধীরাজ মালহোত্রা, বিশেষজ্ঞ ভুরেন ইউজিন, পিচ বিশেষজ্ঞ এ্যাট কিনসেন।
আগামী টি২০ বিশ্বকাপের বিকল্প ভেন্যু নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা খান সাহেব ওসমান আলী ক্রিকেট স্টেডিয়াম পরিদর্শন করে আইসিসির পরিদর্শক দল সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। সোমবার দুপুরে মাঠ পরিদর্শনে এসে আইসিসি পরিদর্শক দলের প্রধান আইসিসির ইভেন্ট ব্যবস্থাপক টেটলি এ সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। আগামী সপ্তাহের মধ্যে বিসিবিতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করবে আইসিসি। বিসিবির পক্ষে ছিলেন সভাপতি পাপন ছাড়াও ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিজামউদ্দিন চৌধুরী, বিসিবির মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম। আইসিসির পরিদর্শক দল উইকেট, মাঠ, প্রেসবক্স, গ্যালারি, ড্রেসিংরুম, আউটার স্টেডিয়াম ও ফ্লাডলাইটসহ বিভিন্ন অংশ ঘুরে দেখেন। বিসিবির সভাপতি পাপন সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিকল্প ভেন্যু হিসেবে খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামকে রাখা হয়েছিল। আইসিসির পরিদর্শক দল বিকল্প ভেন্যু পরিদর্শনে এসে আমাদের কাজের অগ্রগতি দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে। আমরা মূল ভেন্যুর জন্য ফতুল্লা ক্রিকেট স্টেডিয়ামকে প্রস্তাব করেছি। আইসিসি পরিদর্শক দল আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন দেবেন। বিসিবির নির্বাচন প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সভাপতি পাপন বলেন, ‘গুটি কয়েকজন ব্যক্তি নির্বাচন বানচালের জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে। কিন্তু আমরা চাই যথাসময়ে নির্বাচন হোক। বিসিবির গঠনতন্ত্র অনুয়ায়ী নির্বাচন হবে। ফোরাম বলে কোন কিছু গঠনতন্ত্রে নেই।’ সিঙ্গাপুর থেকে রবিবার রাতেই ফিরেছেন পাপন। ম্যাচ ফিক্সিং ইস্যু নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা ম্যাচ ফিক্সিংয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছি। ম্যাচ ফিক্সিংয়ে ট্রাইব্যুনাল নয়, ১০ জনের প্যানেল গঠন করতে হয়। ইতোমধ্যে কয়েকজনের নাম প্রস্তুত করা হয়েছে। আইনগত কোন সমস্যা না থাকলে খুব একটা দেরি হওয়ার সুযোগ নেই।’ আজ চট্টগাম পরিদর্শন করবেন আইসিসির প্রতিনিধিরা।