১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 

স্বস্তির জয়ে রিয়ালের পাশে বার্সেলোনা

প্রকাশিত : ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১০:৫৭ এ. এম.
স্বস্তির জয়ে রিয়ালের পাশে বার্সেলোনা

অনলাইন ডেস্ক ॥ এসপানিওলের সঙ্গে ড্র আর ভ্যালেন্সিয়ার কাছে হেরে যাওয়া- এ দুই ম্যাচে পাঁচ পয়েন্ট খুইয়ে স্প্যানিশ লা লিগায় নিজেদের শীর্ষস্থান হারিয়েছে বার্সেলোনা। তাদের বাজে পারফরম্যান্সের সুযোগ নিয়ে এক নম্বরে উঠে গিয়েছে চির প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ।

তবে ফের রিয়ালের সমানে উঠে এসেছে বার্সা। শনিবার রাতে গেতাফের বিপক্ষে ২-১ গোলে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলে রিয়ালের পাশে বসেছে কিকে সেতিয়েনের শিষ্যরা। তবে শীর্ষস্থান এখনও রয়ে গেছে রিয়ালেরই দখলে।

গেতাফেকে হারানোর পর ২৪ ম্যাচে ১৬ জয় ও ৪ ড্রতে ৫২ পয়েন্ট রয়েছে বার্সার ঝুলিতে। এক ম্যাচ কম খেলে ১৫ জয় ও ৭ ড্রতে সমান ৫২ পয়েন্ট রিয়ালেরও। তবে বার্সেলোনার গোল ব্যবধান ২৮, অন্যদিকে রিয়ালের ৩০। এ কারণে শীর্ষে রয়েছে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরাই।

শনিবার রাতের ম্যাচে নিজেদের ঘরের মাঠে জয়টা খুব একটা সহজেই পায়নি বার্সেলোনা। ম্যাচের শুরুতে গুছিয়ে উঠতে বেশ সময় নিয়ে ফেলে কাতালুনিয়ানরা। সেই সুযোগে একের পর এক আক্রমণে তাদের ব্যতিব্যস্ত করে রাখে গেতাফের আক্রমণভাগ। প্রতিবারই দলকে উদ্ধার করেন গোলরক্ষক মার্ক টের স্টেগান।

তবে ২৬ মিনিটের সময় গোল হজম করেই বসেছিলেন স্টেগান। প্রথমে কর্ণার থেকে করা মোলিনা ভিদালের হেড দারুণ ক্ষিপ্রতায় ঠেকিয়ে দিয়েছিলেন বার্সেলোনার জার্মান গোলরক্ষক। কিন্তু ফিরতি বলে বল জালে প্রবেশ করান অ্যালেন নিয়োম। তবে ভিএআরের সহায়তা নিয়ে দেখা যায়, গোল করার আগে ডি-বক্সের বাইরে স্যামুয়েল উমতিতিকে ফাউল করেছিলেন নিয়োম। যে কারণে বাতিল হয়ে যায় গোলটি। স্বস্তির নিশ্বাস দেখা যায় বার্সা শিবিরে।

ম্যাচের প্রথম বৈধ গোল আসে ৩৩ মিনিটের মাথায়। অধিনায়ক লিওনেল মেসির বুদ্ধিদীপ্ত পাস ধরে ঠান্ডা মাথার ফিনিশিংয়ে দলকে এগিয়ে দেন বার্সার ফ্রেঞ্চ স্ট্রাইকার অ্যান্তনিও গ্রিজম্যান। চলতি লিগে এটি তার সপ্তম গোল। আর শেষ তিন ম্যাচে মেসির ৬ষ্ঠ এসিস্ট এটি। এর মিনিট ছয়েক পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সার্জিও রবার্তো। জর্দি আলবার বদলি হিসেবে নামা জুনিয়র ফিরপোর পাস ধরে আড়াআড়ি শটে বল জালে জড়ান রবার্তো। দ্বিতীয়ার্ধে গেতাফের পক্ষে এক গোল শোধ করেন অ্যাঞ্জেল রদ্রিগেজ।

প্রকাশিত : ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১০:৫৭ এ. এম.

১৬/০২/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: