২৪ জানুয়ারী ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৬, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

গাজীপুরে বেতনভাতা পরিশোধের দাবিতে পোশাক শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

প্রকাশিত : ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:০২ পি. এম.
গাজীপুরে বেতনভাতা পরিশোধের দাবিতে পোশাক শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর ॥ গাজীপুরে বকেয়া বেতনভাতা পরিশোধের দাবীতে দু’গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীর শ্রমিকরা মঙ্গলবার কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ করেছে। বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা সন্ধ্যার পর পর্যন্ত প্রায় ৬ ঘন্টা ঢাকা-গাজীপুর সড়ক অবরোধ করে রাখে।

পুলিশ ও আন্দোলনরত শ্রমিকরা জানায়, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের লক্ষীপুরা এলাকায় একই ক্যাম্পাসে স্টাইল ক্রাফট এবং ইয়ং ওয়ান্স গার্মেন্টসের শ্রমিকরা গত কিছুদিন ধরে কর্তৃপক্ষের কাছে তাদের পাওনা অক্টোবর ও নবেম্বর মাসের বকেয়া বেতন ভাতা পরিশোধের দাবী জানিয়ে আসছিল। কিন্তু কারখানা কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের পাওনাদি পরিশোধের একাধিকবার আশ^াস দিয়ে তারিখ নির্ধারণ করলেও পরিশোধ করেনি। গত বৃহস্পতিবার শুধুমাত্র অক্টোবর মাসের বেতন পরিশোধের কথা থাকলেও তা পরিশোধ না করে পুনঃরায় মঙ্গলবার তা পরিশোধের আশ্বাস দিয়ে তারিখ ঘোষণা করে। এরপ্রেক্ষিতে শ্রমিকরা মঙ্গলবার সকালে তাদের পাওনাদি পরিশোধের দাবী জানায়। কিন্তু কর্তৃপক্ষ এদিনও শ্রমিকদের পাওনাদি পরিশোধে অপারগতা প্রকাশ করে আগামী বৃহস্পতিবার শুধুমাত্র অক্টোবর মাসের বেতন পরিশোধের নতুন তারিখ ঘোষণা করলে শ্রমিকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে এবং তা প্রত্যাখান করে। এসময় শ্রমিকরা তাদের দু’মাসের বকেয়া বেতনসহ ভাতাদি পরিশোধের দাবীতে বিক্ষোভ ও কর্মবিরতি শুরু করে। তারা সকাল ১০টার দিকে কারখানার সামনে ঢাকা-গাজীপুর সড়ক অবরোধের জন্য কারখানা থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ বাঁধা দেয়। পুলিশের বাঁধা পেয়ে শ্রমিকরা কারখানার ভিতরে গিয়ে কর্মকর্তাদের অবরোধ করে অফিস কক্ষের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। কিন্তু দুপুর ১টা পর্যন্ত কর্তৃপক্ষের সাড়া না পেয়ে শ্রমিকরা কারখানা থেকে একযোগে বের হয়ে কারখানার সামনে ঢাকা-গাজীপুর সড়কের উপর অবস্থান নিয়ে অবরোধ করে। এতে ওই সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিকেলে পুলিশের মধ্যস্থতায় কারখানা কর্তৃপক্ষ আন্দোলনরত শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনা বৈঠকে বসলেও কোন সুরাহা না হওয়ায় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় পর্যন্ত শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে রাখে। পুলিশ শ্রমিকদের বুঝিয়ে সড়ক অবরোধ তুলে নেওয়ার চেষ্টা করেও ব্যার্থ হয়। একপর্যায়ে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য শামসুন নাহার ভুইয়া ঘটনাস্থলে এসে শ্রমিক ও কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করেন। এসময় আলোচনা শেষে তিনি শ্রমিকদের পাওনা অক্টোবর মাসের বেতন ভাতা আগামী বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) এবং নবেম্বর মাসের বেতনভাতা আগামী ২৩ ডিসেম্বর পরিশোধের তারিখ ঘোষণা করলে শ্রমিকরা তাদের আন্দোলন কর্মসূচি সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে স্থগিত করে অবরোধ তুলে নিলে ওই সড়কে যানবাহন চলাচল পুনঃরায় শুরু হয়। প্রায় সাড়ে ৬ঘন্টা সড়ক অবরোধের কারণে ওই সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। তবে শ্রমিকদের একাংশ ওই সিদ্ধান্ত মেনে না নিয়ে বুধবার হতে পুনঃরায় তাদের আন্দোলন কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়ে কারখানা এলাকা ত্যাগ করে।

স্টাইল ক্রাফটের সুইং সেকশনের অপারেটর মাসুদ রানা জানান, তাদের অক্টোবর এবং নবেম্বর মাসের বেতন সহ দুই বছরের ছুটির টাকা বকেয়া রয়েছে। পাওনা বকেয়া বেতন ভাতা পরিশোধের একাধিকবার তারিখ ঘোষণা দিয়েও তা পরিশোধ করেনি। সর্বশেষ মঙ্গলবার তা পরিশোধের আশ্বাস েিদওয়া হয়েছিল। কিন্তু এদিন কর্তৃপক্ষের কোনো সাড়া না পেয়ে শ্রমিকরা কর্মবিরতী ও আন্দোলন শুরু করে। একপর্যায়ে আন্দোলনরত শ্রমিকরা দুপুর একটার দিকে লক্ষীপুরা এলাকায় গাজীপুর-ঢাকা সড়কে অবস্থান নেয়।

একই সেকশন এর অপারেটর লাইজু বেগম জানান, তাদের এই বকেয়া বেতন না পেয়ে জীবনযাত্রা স্বাভাবিক ভাবে করতে পারছেন না। শ্রমিকরা তাদের ছেলে মেয়েদের স্কুলের বেতন, বাড়ি ভাড়াসহ দোকান বাকি দিতে পারছেন না। বেতন ছাড়া তারা খুব কষ্টে জীবনযাপন করছেন। কারখানার কর্তৃপক্ষ বারবার শ্রমিকদের পাওনাদি পরিশোধের আশ্বাস দিলেও তা পরিশোধ করছেন না।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের ইন্সপেক্টর শহিদুল ইসলাম জানান, শ্রমিকরা তাদের বকেয়া বেতনের দাবিতে মঙ্গলবার দুপুর ১টা থেকে রাস্তায় নেমেছে। কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনার করলেও শ্রমিকরা সাড়া দিচ্ছে না। তারা বাংলাদেশ ধান গবেষণার সামনে ঢাকা-গাজীপুর মহাসড়কে অবস্থান নিয়েছে। তবে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে।

প্রকাশিত : ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:০২ পি. এম.

১০/১২/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: