১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২ পৌষ ১৪২৬, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 

শীতের সবজি মিলছে অলিগলিতে, তবু দাম কমছে না

প্রকাশিত : ২০ নভেম্বর ২০১৯

ওয়াজেদ হীরা ॥ রাজধানীতে হাল্কা ঠা-া অনুভূত হলেও শীত আসতে এখনও দেরি। তবে ইতোমধ্যেই বাজারের অলিগলিতে ভরপুর শীতের সবজি। সব ধরনের সবজির পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকা সত্ত্বেও দাম কমছে না এসব সবজির। আর বাজারে নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধিতে মধ্যবিত্ত, নিম্নমধ্যবিত্তদের জীবন অস্থির হয়ে উঠছে।

১৫ নবেম্বরের আগ পর্যন্ত আসা সবজিকে শীতের আগাম সবজি বলা হয়। এরপর থেকে আসা সবজি শীতের হিসেবে গণ্য করে থাকে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর। চলতি বছর সর্বশেষ তথ্যে ৩ লাখ ১৯ হাজার হেক্টরে শীতের সবজি লাগানো হয়েছে। এর মধ্যে ২ লাখ হেক্টর আগাম সবজি বলছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের সরেজমিন উইং। সরেজমিন উইংয়ের পরিচালক চন্দ্রীদাস কু-ু জনকণ্ঠকে বলেন, সাড়ে ৫ লাখ হেক্টর জমিতে শীতের সবজি হবে এ বছর। ইতোমধ্যেই ৩ লাখ ১৯ হাজার হেক্টর হয়ে গেছে। এই জমি থেকে আমরা উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছি ১ কোটি ১৭ লাখ মেট্রিক টন। ফুলকপি, বাঁধাকপি, লাউ, শিম, মুলা, লালশাক, পালং শাক ইত্যাদি বিভিন্ন জমিতে চাষ হচ্ছে জানান তিনি।

এদিকে, শীতের শাক-সবজির সরবরাহ বাড়লেও রাজধানীর বাজারে কমছে না দাম। উল্টো সপ্তাহের ব্যবধানে কিছু সবজির দাম বেড়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় অন্যান্য পণ্যের সঙ্গে সব ধরনের শাক-সবজির চড়া দামে অতিষ্ঠ ক্রেতারা। বাড়তি দামের হাত থেকে তাদের রক্ষা পাওয়ার কোন উপায় নেই। ফলে সবজি বাজারে ক্রেতাদের হাহুতাশ বাড়ছে। ক্রেতাদের অভিযোগ বাজারে কার্যকর মনিটরিং না থাকায় মাসের পর মাস চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সবজি। এতে সাধারণ মানুষের পকেট কাটা গেলেও, মুনাফালোভী এক শ্রেণীর পকেট ভারি হচ্ছে। বাজারে যে হারে সবজির সরবরাহ রয়েছে তাতে সংশ্লিষ্টদের কড়া নজরদারি থাকলে দাম কমবে বলে আশা করছেন ক্রেতারা।

ইতোমধ্যে বেড়ে যাওয়া পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করলেও সেটি এখনও দেড় শ’ টাকার ওপরে বিক্রি হচ্ছে। মান যেমনই হোক কোথাও এখনও কেজিপ্রতি এক শ’ টাকার নিচে পাওয়া যায় না। এরই মধ্যে লবণের মূল্য বৃদ্ধির ‘গুজব’ রয়েছে। ফলে গুজবের ফাঁদে পা দিয়ে অনেককেই বেশি লবণ কিনতে দেখা গেছে। এছাড়া গত দু-তিন দিন ধরে বাড়ছে আদার দাম। বাজারে আদা বিক্রি হচ্ছে ১৯০ থেকে ২০০ টাকায়। রসুনের কেজিপ্রতি দাম বেড়েছে ১০ থেকে ১৫ টাকা। ১৭০ থেকে বেড়ে ১৮০-১৮৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে রসুন। সয়াবিন তেল লিটারপ্রতি বেড়েছে চার থেকে পাঁচ টাকা। এতসব মসলা যে সকল খাবারের জন্য সেই শীতের আগাম সবজির দামও চড়া। এই মৌসুমে শীতের সবজির প্রতি বিশেষ আগ্রহ থাকে সবার। তবে ব্যবসায়ীরা বললেন, আগামী কয়েক দিনে সরবরাহ আরও বাড়বে। এখনও পর্যাপ্ত সরবরাহ নেই আর চাহিদাও বেশি তাই দামও বেশি।

প্রকাশিত : ২০ নভেম্বর ২০১৯

২০/১১/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: