২০ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

ঝিলপাড় বস্তিতে নতুন করে উচ্ছেদ আতঙ্ক

প্রকাশিত : ৯ নভেম্বর ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মিরপুরের ঝিলপাড় বস্তিতে অগ্নিকা-ের তিন মাস পর যখন নতুন করে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছেন বস্তিবাসীরা, ঠিক তখনই নতুন করে উচ্ছেদ আতঙ্ক।

তাদের অভিযোগ, ৭ নবেম্বর সকালে একদল সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র দিয়ে নতুন নির্মিত ঘরগুলো গুঁড়িয়ে দিয়েছে। তবে স্থানীয় এমপি বলছেন, নতুন করে পুনর্বাসনের আগ পর্যন্ত এখানেই থাকবেন তারা।

ভোলার মোঃ গফুর মিয়া। ১৫ বছরের অধিক সময় ধরে থাকছেন মিরপুরের চলন্তিকা বস্তিতে। কিন্তু গত ১৬ আগস্টের অগ্নিকা-ের পর থেকে তিন মাস ধরে খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছেন পরিবারের ছয় সদস্য নিয়ে। এরই মধ্যে নতুন করে উচ্ছেদ আতঙ্ক। এই দীর্ঘ সময়ে পুনর্বাসন এবং আর্থিক সহযোগিতার মিলেছে বহু আশ্বাস, তবে কাজের কাজ কিছুই হয়নি। বস্তিবাসীরা বলেন, আমরা তেমন কোন সহযোগিতা কারও থেকে পাইনি। আজ নাগাদ কেউ আমাদের ১০ টাকাও দেয়নি। বস্তিবাসীরা যখন নতুন করে নিজেদের শেষ সম্বল দিয়ে নির্মাণ করছেন নিজেদেরে বেঁচে থাকার আশ্রয়। ঠিক তখনই সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা তাদের নতুন নির্মিত ঘরগুলো গুঁড়িয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ বস্তিবাসীর।

এ প্রসঙ্গে তারা বলেন, তারা এভাবে আমাদের বাসাবাড়ি কুপিয়ে রেখে গেল। আমরা সুদের উপর টাকা নিয়ে বাড়ি তুলছি। তারা যদি আমাদের আগেই বলতো তাহলে তো আমরা ঘর তুলতাম না।

তবে, স্থানীয় সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লা আশ্বাস দিয়েছেন পুনর্বাসনের। তিনি বলেন, এ বিষয়ে সহযোগিতা লাগলে আমি নিজেই বলেছি তাদের সহযোগিতা করব। তবে এলোমেলোভাবে পুনর্বাসনের দরকার নেই। তাদের পরিকল্পিতভাবে আমরা সব সাজিয়ে দেব। চলতি বছর চলন্তিকা বস্তির অগ্নিকা-ে গৃহহীন হয়েছে প্রায় ৫০ হাজার মানুষ।

প্রকাশিত : ৯ নভেম্বর ২০১৯

০৯/১১/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: